ঢাকা, শুক্রবার, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১৬ নভেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

‘বিদেশি ফ্রিজে ভালো সার্ভিস না পেয়ে মার্সেল কিনলাম’

মোহাম্মদ মাসুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৫-২০ ৩:৩১:২৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৫-২০ ৩:৩১:২৪ পিএম
মার্সেল ফ্রিজ কিনে আরেকটি ফ্রিজ ফ্রি পেয়েছেন শাহ আলম

নিজস্ব প্রতিবেদক : চলতি বছরের শুরুতে বিদেশি ব্র্র্যান্ডের একটি ফ্রিজ কিনেছিলাম। দুই মাসের মাথায় সমস্যা দেখা দেয়। কয়েকবার সার্ভির্সিং করানোর পরও সমস্যা থেকে যায়। পরবর্তীতে অন্য একজনের কাছে বিক্রি করি ফ্রিজটি। প্রতিবেশী অনেকেই বলল, দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন অথবা মার্সেলের ফ্রিজ কিনতে। দেখলাম-তারা সবাইতো ওয়ালটন ও মার্সেলের ফ্রিজ ব্যবহার করছে। সার্ভিসও ভালো পাচ্ছে। তাই আমিও মার্সেলের ফ্রিজ কিনলাম। মার্সেলের টেম্পারড গ্লাস ডোরের ফ্রিজগুলোর ডিজাইন ও কালার খুব সুন্দর।

রাইজিংবিডির কাছে কথাগুলো বলছিলেন হাজারীবাগের বাসিন্দা শাহ আলম। গ্রামের বাড়ি ভোলা দক্ষিণ চর আইশা মাইনকা ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামে। স্ত্রী ও দুই ছেলেকে নিয়ে তিনি ঢাকায় হাজারীবাগে থাকছেন। পেশায় টাইলস মিস্ত্রী।

তিনি চলতি মাসের ৮ তারিখে হাজারীবাগে মার্সেল পণ্যের পরিবেশক ‘রাসেল ইলেকট্রনিক্স’ থেকে ২৪ হাজার টাকা দিয়ে সাড়ে এগার সিএফটির টেম্পারড গ্লাস ডোরের একটি ফ্রিজ কিনেন। ফ্রিজটি কিনে তিনি তা মার্সেল ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের আওতায় রেজিস্ট্রেশন করেন। এর কিছুক্ষণ পরেই ক্যাম্পেইনে ঘোষিত ‘শত শত ফ্রিজ, টিভি ও এসি ফ্রি’ অফারে মার্সেলেরই আরো একটি আট সিএফটি’র ফ্রিজ উপহার পান শাহ আলম।

এর প্রতিক্রিয়ায় শাহ আলম বলেন, ‘জীবনে এই প্রথম কোনো পুরস্কার পেলাম। মার্সেলের কাছ থেকে ফ্রিজ উপহার পেয়ে এতটাই আনন্দিত হয়েছি যে, বাসায় আসার পর প্রতিবেশীদের সাত কেজি মিষ্টি বিতরণ করেছি।’



মার্সেলের চলমান অফার সম্পর্কে আগে থেকে জানতেন না বলে জানান শাহ আলম। তিনি জানান, শোরুমে যাওয়ার পরই বিক্রেতার কাছ থেকে অফার সম্পর্কে অবগত হন। বিক্রেতা তাকে ফ্রি ফ্রিজ, টিভি ও এসির পাশাপাশি আমেরিকা ও রাশিয়ার ফ্রি বিমান টিকিট উপহার পাওয়ার কথা জানালেও এসব পুরস্কার পাওয়ার কথা আশা করেননি তিনি। কিন্তু ফ্রিজটি কিনে রেজিস্ট্রেশন করতেই আরেকটি ফ্রিজ উপহার পাওয়ার ম্যাসেজ পেয়ে তো হতবাক হয়ে পড়েন তিনি। 

উপহার পাওয়া ফ্রিজটি কি করবেন-এ প্রশ্নের উত্তরে শাহ আলম বলেন, গ্রামের বাড়ি ভোলাতে বাবা-মা’কে উপহার দেব। মাকে মোবাইল ফোনে মার্সেলের ফ্রিজ কিনে আরেকটি ফ্রিজ পুরস্কার পাওয়ার কথা জানিয়ে বলেছি-পুরস্কারের ফ্রিজটি তাদেরকে উপহার দেব। এতে আমার মা-বাবাও অনেক খুশি হয়েছি। শুনেছি-আমার গ্রামেও নাকি এই খবরটি ছড়িয়ে পড়েছে। অনেকেই বাবা-মা’র সাথে দেখা হলে বলছে-আপনার ছেলেতো অনেক ভাগ্যবান।

মার্সেল সূত্রমতে, বিক্রয়োত্তর সেবা কার্যক্রম অনলাইনের আওতায় আনতে গত ১ এপ্রিল থেকে দেশব্যাপী আবারো ডিজিটাল ক্যাম্পেইন শুরু করেছে মার্সেল। ক্যাম্পেইনের আওতায় একজন ক্রেতা প্রতিবার মার্সেলের ফ্রিজ, টিভি কিম্বা এসি কিনে তা রেজিস্ট্রেশন করলেই পেতে পারেন আমেরিকা, রাশিয়া ভ্রমণের সুযোগ কিংবা মার্সেলেরই ফ্রিজ, টিভি ও এসি সম্পূর্ণ ফ্রি। তবে এসব সুযোগ না পেলেও, ক্রেতার জন্য রয়েছে সর্বোচ্চ এক হাজার টাকা পর্যন্ত নিশ্চিত নগদ ছাড়।

ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের আওতায় গ্রীষ্মকালীন সময়ের জন্য মার্সেল ফ্রিজ ও এসিতে এবং বিশ্বকাপ ফুটবল উপলক্ষে মার্সেল টিভিতে এসব সুবিধা পাওয়া যাবে আগামী ৩০ জুন ২০১৮ পর্যন্ত।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ মে ২০১৮/একরাম হোসেন পলাশ/সাইফ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC