ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ আষাঢ় ১৪২৪, ২৯ জুন ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

অনেক বাসেই নেই ভাড়ার তালিকা

নাসির উদ্দিন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৪-১৭ ২:৫৮:০০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৪-২২ ৫:৫৩:৪১ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : লোকাল সার্ভিস হিসেবে চলাচল শুরু করা রাজধানীর বিভিন্ন রুটের অধিকাংশ বাসে দ্বিতীয় দিনেও (সোমবার) দেখা মেলেনি নির্ধারিত ভাড়ার তালিকার।

এত দিন বাসগুলোতে ভাড়ার তালিকা ঝুলিয়ে রাখা হলেও লোকাল চলার সিদ্ধান্ত কার্যকর হওয়ার পর অধিকাংশ বাসেই পাওয়া যায়নি ভাড়ার তালিকা। আর এ সুযোগে নির্ধারিত চার্ট অনুযায়ী টাকা আদায় না করে যাত্রীদের কাছ থেকে আগের মতোই অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে বেশ কয়েকটি পরিবহন।

কেন ভাড়ার তালিকা রাখা হয়নি, জানতে চাইলে ওয়েলকাম পরিবহনের হেলপার মনির বলেন, ‘বাসে ভাড়ার তালিকা আছে, তবে তা টাঙানো হয়নি।’ দেখতে চাইলে তা খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এনায়েতুল্লাহ বলেন, ‘ভাড়াতো নির্ধারণ করে দেওয়াই রয়েছে। নির্ধারিত ভাড়ার তালিকাও বাসে টানিয়ে রাখার জন্য বলা হয়েছে। সুতরাং অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার কোনো সুযোগই নেই। তবুও কোনো পরিবহনে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগের প্রমাণ মিললে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আর এজন্য রাজধানীর কয়েকটি স্পটে বিআরটিএ এর সঙ্গে আমাদের রিজিওনাল টিম কাজ করছে।’

বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) নিয়ম অনুযায়ী, মিনিবাসের সর্বনিম্ন ভাড়া ৫ টাকা। আর বাসের সর্বনিম্ন ভাড়া ৭ টাকা। চালকসহ যে বাসের সর্বোচ্চ ৩১টি সিট থাকবে তা মিনিবাস হিসেবে গণ্য হবে। আর ৩১টির বেশি সিট থাকলে তা বাস হিসেবে বিবেচিত হবে। সর্বনিম্ন ভাড়ার পাশাপাশি সরকার প্রতি কিলোমিটারের ভাড়াও ১ টাকা ৪২ পয়সা নির্ধারণ করে দিয়েছে।

বিআরটিএর ওয়েবসাইটে ২০১৫ সালের ১৬ সেপ্টেম্বরের প্রজ্ঞাপন অনুসারে, ১৪১ পৃষ্ঠার তালিকায় পৃথক রুটের নির্ধারিত ভাড়ার কথা উল্লেখ করেছে। সেখানে লেখা রয়েছে অতিরিক্ত ভাড়া দাবি করা যাবে না।





রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৭ এপ্রিল ২০১৭/নাসির/সাইফুল

Walton Laptop