ঢাকা, সোমবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
Risingbd
অমর একুশে
সর্বশেষ:

প্রধান বিচারপতির সঙ্গে আলোচনা এখনো শেষ হয়নি : কাদের

নৃপেন রায় : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৮-১৩ ৭:৫৫:৩০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৮-১৪ ৯:৩৬:০৩ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়ের পর্যবেক্ষণ নিয়ে প্রধান বিচারপতির সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ আলোচনা হয়েছে। আলোচনা আরো হবে। আলোচনা এখনো শেষ হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রোববার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্সে সম্মিলিত ক্রীড়া পরিবার আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

শহীদ শেখ কামালের ৬৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা ও স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বাসভবনে নৈশভোজে অংশ নেওয়া প্রসঙ্গে তিনি একথা বলেন।

প্রসঙ্গত, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে দেওয়া আপিল বিভাগের রায় নিয়ে চলমান বিতর্কের মধ্যে গতকাল শনিবার প্রধান বিচারপতির সঙ্গে নৈশভোজে অংশ নেন ওবায়দুল কাদের।

ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, অব দ্য রেকর্ড বলি, এই কয়েকদিন বাংলাদেশে যে বিষয়টি এত বেশি আলোচিত, এখন আপনারা এত উৎসুক নিয়ে জানতে এসেছেন, কিন্তু কালকে তো আপনাদের একটা দুর্বল দিক খুঁজে পেলাম। আমি একটা বাড়িতে এতক্ষণ ছিলাম। কেউ খুঁজেও পেলেন না। কেউ নিউজটা দিতেও পারলেন না। যারা দিলেন তারাও ঠিকঠাক মতো দিতে পারেননি।

এ ব্যাপারে তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বাড়িতেই আমি কালকে যাইনি। কেউ বলছেন, যাওয়ার সময় গণভবন হয়ে, কেউ বলছেন আসার সময় গণভবনে গেছি, কোনোটাই সঠিক নয়। আমি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আজ সকালে দেখা করেছি। কাল আমার এ বিষয়ে তার সঙ্গে কোনো সাক্ষাৎ হয়নি, মোবাইলে কথা হয়েছে।

তিনি, আমি এনিয়ে বেশি কথা বলব না। প্রধান বিচারপতির বাড়িতে গিয়েছিলাম তার সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। আমি তার সঙ্গে ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়ে যে পর্যবেক্ষণ বা অবজারভেশন ছিল, সেগুলো নিয়ে আমি আমাদের পার্টির বক্তব্য তাকে জানিয়েছি। তার সঙ্গে আলোচনা দীর্ঘক্ষণ হয়েছে। আরো আলোচনা হবে। আলোচনা এখনো শেষ হয়নি। শেষ হওয়ার আগে আমি কোনো মন্তব্য করতে চাই না। সময়মতো সব কথাই আপনারাও জানবেন, আমিও বলব। 

ক্রীড়া সংগঠক শহীদ শেখ কামাল ও বঙ্গবন্ধু পরিবারের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে কাদের বলেন, বেশি লোক দেখলে ভয় পাই। কারণ ক্ষমতায় যখন থাকি, তখন চাটুকার মোসাহেবের অভাব নেই। আমি চাই না, শেখ কামালকে নিয়ে চাটুকার-মোসাহেবরা ক্ষমতার রাজনীতিতে মেতে উঠুক। কারণ দুঃসময় এলে হাজার পাওয়ারের বাতি জ্বালিয়ে কাউকে খুঁজে পাব না।

নির্মোহভাবে শেখ কামালের জীবন, চরিত্র ও ব্যক্তিত্বকে অনুসরণ করার আহ্বান জানিয়ে শেখ কামালের মতো ক্রীড়া সংগঠক বাংলাদেশে আজ অনেক বেশি প্রয়োজন বলে দাবি করেন। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর সন্তান শেখ কামাল কিন্তু ক্রীড়া অঙ্গনকে রাজনীতির ঊর্ধ্বে রেখেছিলেন। কাজেই ক্রীড়াঙ্গনকেও আপনারা রাজনীতির ঊর্ধ্বে রাখবেন। এটা আমার আবেদন। ক্রীড়াঙ্গন আমাদের সবার। ক্রীড়াঙ্গনের সফলতা ধরে রাখতে হলে আমাদের রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠতে হবে। পলিটিক্স করলে ক্রীড়াঙ্গন নষ্ট হয়ে যাবে।

শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উদযাপন কমিটির চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের ক্রীড়াবিষয়ক সম্পাদক হারুনুর রশীদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন সালমান এফ রহমান, বাফুফের সভাপতি কাজী সালাহউদ্দিন, ফেরদৌস ওয়াহিদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন আওয়ামী লীগের প্রাক্তন ক্রীড়া সম্পাদক দেওয়ান আহমেদ টুটুল।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ আগস্ট ২০১৭/নৃপেন/মুশফিক

Walton
 
   
Marcel