ঢাকা, সোমবার, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২০ নভেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

বিশ্ব ইজতেমা শুরু হবে ১২ জানুয়ারি

আসাদ আল মাহমুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১০-১৬ ৫:০৬:০৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১০-২৪ ৬:৪৯:৩৯ পিএম

সচিবালয় প্রতিবেদক : টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে আগামী ১২ জানুয়ারি শুরু হবে তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমা।

সোমবার সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বিশ্ব ইজতেমা-২০১৮ উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলাসহ অন্যান্য প্রাসঙ্গিক বিষয় নিয়ে বৈঠক শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এ তথ্য জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, বিশ্ব ইজতেমা দুই পর্বে হবে। আগামী ১২ থেকে ১৪ জানুয়ারি প্রথম পর্ব এবং ১৯ থেকে ২১ জানুয়ারি হবে দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা।
 

তিনি বলেন, ইজতেমার সময় যেকোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিদেশিদের জন্য আর্চওয়েসহ বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে।

তিনি আরো বলেন, প্রতি বছরের মতো আসন্ন ইজতেমা সুন্দরভাবে শেষ করতে আরও কিছু করার প্রয়োজন আছে কিনা এজন্য সবার সঙ্গে আলোচনা করা হয়েছে।   

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যেসব দেশে বাংলাদেশের দূতাবাস বা মিশন নেই, সেসব দেশ থেকে বিশ্ব ইজতেমায় আসতে চাইলে তাদের শর্ত সাপেক্ষে (অন অ্যারাইভাল) ভিসা দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে তাদের আমাদের দেশের তাবলীগের মুরব্বিদের অনুমতি নিতে হবে। অনুমতি নিয়ে তারা এলে তাদের ৩০ দিনের ভিসা দেওয়া হবে।

রোহিঙ্গাদের ইজতেমায় অংশ নেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, রোহিঙ্গারা তো বিদেশি। বিদেশিদের জন্য ইজতেমায় অংশ নেওয়ার যে নিয়ম, রোহিঙ্গাদের জন্য একই নিয়ম।

মন্ত্রী বলেন, ইজতেমা উপলক্ষে তুরাগ নদীর তীরে ইজতেমা প্রাঙ্গণে পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজির নেতৃত্বে একটি কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হবে। এছাড়া বসানো হবে ফায়ার সার্ভিসের একটি কন্ট্রোল রুম।

তিনি বলেন, আখেরি মোনাজাতের আগে ও পরে বিশেষ ট্রেন রাখা হবে। ইজতেমা চলাকালে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ ও পানি সরবরাহের ব্যবস্থা রাখা হবে। এছাড়া পয়ঃনিষ্কাশনসহ অন্যান্য সেবার যাবতীয় ব্যবস্থাও করা হবে। আটটি মেডিক্যাল টিম বিশ্ব ইজতেমায় আগতদের সার্বক্ষণিক চিকিৎসাসেবা দেবে। রেড ক্রিসেন্টের একটি টিমও ইজতেমা প্রাঙ্গণে থাকবে বলে জানান তিনি।

যানজট নিরসনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইজতেমা শুরুর এক সপ্তাহ আগে ইজতেমা ময়দান ও এর আশপাশের এলাকার যাতায়াত ব্যবস্থা সম্পর্কে সবাইকে জানিয়ে দেওয়া হবে। বিভাগ অনুযায়ী পার্কিংয়ের ব্যবস্থা করা হবে।

বিশ্ব ইজতেমা যেহেতু একটি বৈশ্বিক আয়োজন, তাই এর প্রতি সারাবিশ্বের নজর রয়েছে। এ কারণেই বিশ্ব ইজতেমা সফল করতে সবার সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

বৈঠকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব  ফরিদ উদ্দিন আহম্মদ চৌধুরী, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৬ অক্টোবর ২০১৭/আসাদ/রফিক/মুশফিক

Walton