ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ কার্তিক ১৪২৫, ১৮ অক্টোবর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

ঢাকা-লন্ডন সরাসরি কার্গো পরিবহন শুরু বুধবার

হাসান মাহামুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৩-১৩ ৬:১০:৫৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৩-১৩ ৭:২৭:৪৯ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : যুক্তরাজ্যের কার্গো নিরাপত্তা মান বিষয়ক এসিসি৩ অডিট সনদ অর্জন করায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ঢাকা-লন্ডন রুটের সরাসরি কার্গো পরিবহন শুরু হচ্ছে।

দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে বুধবার থেকে ঢাকা টু লন্ডনে সরাসরি কার্গো পরিবহন শুরু হবে।

বাংলাদেশ বিমানের মহাব্যস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ রাইজিংবিডিকে এই তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, বুধবার সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে বিজি০০১ ফ্লাইট যোগে এই কার্গো পরিবহন শুরু হবে।

২০১৬ সালের ৮মার্চ যুক্তরাজ্য সরকার কর্তৃক বাংলাদেশ থেকে আকাশ পথে কার্গো পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার ফলে বিমানের ঢাকা-লন্ডন রুটে সরাসরি কার্গো পরিবহন বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে গত দুই বছরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কার্গো আমদানি ও রপ্তানি শাখায় ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের (ইইউ) নিরাপত্তামান অনুযায়ী বিমানবন্দরের সার্বিক নিরাপত্তার মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে ব্যাপক উদ্যোগ নেওয়া হয়। যার আওতায় ইউরোপগামী কার্গো পণ্যের সেকেন্ডারি স্ক্রিনিংয়ের জন্য এক্সপ্লোসিভ ডিটেক্টর সিস্টেম (ইডিএস), এক্সপ্লোসি ভডিটেকশন ডগ  (ইডিডি), এক্সপ্লোসিভ ট্রেস ডিটেক্টর (ইডিটি) মেশিন স্থাপন করা হয়।

ইউরোপগামী সব কার্গো পণ্যের জন্য বিশেষভাবে সুরক্ষিত আরএ-৩ ওয়্যারহাউজ নির্মাণ করা হয় এবং ওই ওয়্যারহাউজে বিমানের কর্মী ছাড়া বহিরাগতদের প্রবেশ বন্ধ করা হয়।

এছাড়াও বিমানের কার্গো হ্যান্ডেলিং-এ নিয়োজিত সব কর্মীর পুলিশ ক্লিয়ারেন্স, ব্যাকগ্রাউন্ড চেক, ট্রেনিং রেকর্ড, বৈধ পাস, নিয়োগসংক্রান্ত সব তথ্য নিয়ে ডাটাবেজ তৈরি করা হয়। কার্গো এলাকার সব এন্ট্রি পয়েন্টে একসেস কন্ট্রোল সিস্টেম চালু করা হয়। বিমানবন্দর এপ্রোন এলাকায় ওয়ারহ্উাজ থেকে এয়ারক্রাফট কার্গো পরিবহন পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টা সার্বক্ষণিক এস্কর্ট প্রদানের জন্য ৫টি গাড়ি  নিয়োজিত করা হয়েছে।

এদিকে, বিমান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গত ১৩ থেকে ১৬ নভেম্বর রেগুলেটরি এজেন্ট ফর থার্ডকান্ট্রি অডিট সম্পন্ন হয়। বিমান কার্গো হ্যান্ডলিং এজেন্ট হিসেবে উক্ত অডিটে সফলতার সঙ্গে উত্তীর্ণ হয়। এর প্রেক্ষিতে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি ইইউ এবং ডিপার্টমেন্ট ফর ট্রান্সপোর্টেশন, ইউকে থেকে বাংলাদেশের ওপর থেকে কার্গো নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। তবে বিমান কার্গো হ্যান্ডলিং এজেন্ট হিসেবে কার্গো নিষেধাজ্ঞা মুক্ত হলেও কার্গো ক্যারিয়ার হিসেবে বিমানকে আলাদাভাবে অপর আরেকটি অডিটের মুখোমুখি হতে হয়। উক্ত ACC3অডিট গত ১৯ থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়। বিমান তাতেও উত্তীর্ণ হয়েছে।

এর ফলে ১২ মার্চ থেকে বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইটে লন্ডনগামী কার্গো পরিবহনে কোনো নিষেধাজ্ঞা রইল না। আগামীকাল সকাল থেকে লন্ডনে পুনরায় সরাসরি কার্গো পরিবহন শুরু হচ্ছে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ মার্চ ২০১৮/হাসান/সাইফ

Walton Laptop
 
     
Walton