ঢাকা, বুধবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৩ মে ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

‘নতুন যুগে প্রবেশ করল বাংলাদেশ’

এনএ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০৫-১২ ১১:৫১:২১ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৫-২৩ ১০:৩৬:০৬ এএম

রাইজিংবিডি ডেস্ক : বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর সফল উৎক্ষেপণের ঘোষণা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মহাকাশে স্যাটেলাইট পাঠানোর মধ্য দিয়ে নতুন যুগে প্রবেশ করল বাংলাদেশ।

স্পেসএক্স-এ দেওয়া এক ভিডিও বার্তায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আজ থেকে আমরা স্যাটেলাইট ক্লাবের গর্বিত সদস্য। তিনি বলেন, আজ আমাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দের একটি দিন। আজ আমরা মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর সফল উৎক্ষেপণ করেছি।

বাংলাদেশ সময় শুক্রবার দিবাগত রাত ২টা ১৪ মিনিটে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টারের লঞ্চপ্যাড থেকে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হয়। ফ্যালকন-৯ রকেটের নতুন সংস্করণ ব্লক ফাইভ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটকে নিয়ে যাত্রা করে নিজস্ব কক্ষপথে।

রকেট উৎক্ষেপণের আধা ঘণ্টাখানেক পর বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কাঙ্ক্ষিত জিওস্টেশনারি ট্রান্সফার অরবিটে পৌঁছায়। এই স্যাটেলাইটের মাধ্যমে সম্প্রচার, টেলিযোগাযোগ ও ডেটা কমিউনিকেশন সেবা পাওয়া যাবে।

স্পেসএক্সের স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের লাইভ টেলিকাস্টে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ধারণকৃত একটি ভিডিও সম্প্রচারিত হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশ ও বাঙালি জাতির অগ্রযাত্রার ধারাবাহিকতায় যোগ হয়েছে আরো একটি মাইলফলক। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণের মধ্য দিয়ে আজ আমরা মহাকাশে বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করেছি।’
 


‘আজ শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছি বাঙালি জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। যিনি দীর্ঘ ২৪ বছর বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগ্রামে জেল-জুলম ও নির্যাতন সহ্য করে উপহার দিয়েছেন স্বাধীন ও সার্বভৌমত্ব বাংলাদেশকে। স্মরণ করছি মুক্তিযুদ্ধের সকল শহীদকে।

‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল বাংলাদেশ উন্নত মর্যাদাশীল দেশ হিসেব বিশ্বে প্রতিষ্ঠিত হবে। তিনি অনুধাবন করেছিলেন বহির্বিশ্বের সঙ্গে অব্যাহত যোগাযোগ রক্ষা করতে না পারলে প্রগতির পথে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে না। এজন্য স্বাধীনতার মাত্র তিন বছরের মধ্যে ১৯৭৪ সালে তিনি রাঙ্গামাটির বেতবুনিয়ায় প্রথম ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্র স্থাপন করেন। যার সাহায্যে তথ্য-উপাত্ত আদান-প্রদানের মাধ্যমে বহির্বিশ্বের সঙ্গে বাংলাদেশের সরাসরি যোগাযোগ স্থাপনের সুযোগ তৈরি হয়।’

‘এ স্যাটেলাইট দিয়ে ভারত, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, ফিলিপাইন, ইন্দোনেশিয়া, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, তাজাকিস্তান, কাজাকিস্তান ও উজবেকিস্তানের অংশ বিশেষে আমরা সেবা দিতে পারব।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে যোগাযোগ বৃদ্ধিতে গুরুত্ব দিতেন।  মহাকাশে স্যাটেলাইট পাঠানোর মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরণের পথে একধাপ এগিয়ে গেল বাংলাদেশ।’

‘ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অধীন বিটিআরসির থেকে প্রকল্প গ্রহণ করে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ নির্মাণ ও উৎক্ষেপণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ, বিটিআরসি ও স্যাটেলাইট কোম্পানির কর্মীদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমি স্যাটেলাইট নির্মাতা ও উৎক্ষেপণকারী উভয় প্রতিষ্ঠানের কর্মীদেরও ধন্যবাদ জানাচ্ছি। ধন্যবাদ জানাচ্ছি ফ্রান্স ও যুক্তরাষ্ট্রের সরকার ও জনগণকে এ কাজে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য। পাশাপাশি ধন্যবাদ জানাই রাশিয়াকে, তাদের কক্ষপথ আমাদের ভাড়া দেওয়ার জন্য।’




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১২ মে ২০১৮/এনএ/ইভা

Walton Laptop
 
   
Walton AC