ঢাকা, শুক্রবার, ৫ শ্রাবণ ১৪২৫, ২০ জুলাই ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

স্ত্রী হত্যা মামলায় স্বামী-ননদসহ ৬ জনের ফাঁসি

মামুন খান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৭-০৫ ৭:১০:৩৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৭-০৫ ৭:১০:৩৭ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকার ধামরাইয়ে মাত্র ১০ হাজার টাকা যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা মামলায় নিহতের স্বামী জাফর ও ননদ রোকেয়াসহ ৬ জনকে ফাঁসির দণ্ড দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল।

বৃহস্পতিবার ঢাকার ৯ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. শরিফ উদ্দিন এ রায় দেন।

দণ্ডিত অন্য আসামিরা হলেন-সালেক, জাহাঙ্গীর, আব্দুর রহিম ও ফেলা মিয়া। এদের মধ্যে জাফর ছাড়া ৫ জনই পলাতক।

২০০৫ সালের ৯ জুন সামিনার মা নাজমা বেগম মামলায় অভিযোগ করেন, দুই বছর আগে জাফরের সঙ্গে সামিনার বিয়ে হয়। বিয়ের সময় ১৬ হাজার টাকা যৌতুক হিসেবে দেওয়ার কথা ছিল। ৬ হাজার টাকা দিতে পারলেও বাকি ১০ হাজার টাকা না দিতে পারায় জাফর ও ননদ রোকেয়া মাঝে মধ্যেই মারধর করতেন। সর্বশেষ ২০০৫ সালের ৭ জুন সামিনা ননদ রোকেয়ার সৈয়দপুরের বাসায় বেড়াতে গেলে আসামিরা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ওইদিন বেলা ৩টার দিকে রোকেয়ার ঘরে সামিনার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে গুরুতর দগ্ধ সামিনাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যালে আনার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।

এ ঘটনায় ২০০৫ সালের ৯ জুন নাজমা বেগম ধামরাই থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্তের পর ধামরাই থানার এসআই রফিকুল ইসলাম আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

মামলায় ২০০৬ সালের ২৮ জুন এবং ২০০৮ সালের ৬ জানুয়ারি আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে দুই দফা অভিযোগ গঠন করেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৫ জুলাই ২০১৮/মামুন খান/সাইফ

Walton Laptop
 
     
Walton