ঢাকা, সোমবার, ৩ আষাঢ় ১৪২৬, ১৭ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

কুড়িগ্রামে ব্রহ্মপুত্র ও ধরলার পানি বাড়ছে

বাদশাহ সৈকত : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৯-১৩ ৫:২৯:১৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৯-১৩ ৫:২৯:১৭ পিএম
Walton AC 10% Discount

কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা : উজান থেকে নেমে আসা ঢল ও বৃষ্টির পানিতে কুড়িগ্রামে ব্রহ্মপুত্র ও ধরলা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। এতে করে প্লাবিত হয়ে পড়ছে নদ-নদী তীরবর্তী নিম্মাঞ্চলগুলো। নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় বড় ধরনের বন্যার আশংকা করছেন চরাঞ্চলের বাসিন্দারা।

পানি উন্নয়ন বোর্ড জানায়, গত ২৪ ঘন্টায় ব্রহ্মপুত্রের পানি চিলমারী পয়েন্টে ৮ সেন্টিমিটার ও নুন খাওয়া পয়েন্টে ৪ সেন্টিমিটার, সেতু পয়েন্টে ধরলার পানি ১ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে কাউনিয়া পয়েন্টে ৭ সেন্টিমিটার হ্রাস পেয়েছে তিস্তা নদীর পানি।

নদ-নদী তীরবর্তী চরের নিম্মাঞ্চলগুলোতে থাকা ঘর-বাড়িতে পানি প্রবেশ করতে শুরু করেছে। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় প্লাবিত হয়ে পড়ছে চরাঞ্চলের নতুন নতুন এলাকা।

উলিপুর উপজেলার বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের বাসিন্দা শহিদার ইসলাম জানান, গত তিনদিন ধরে যেভাবে ব্রহ্মপুত্রের পানি বাড়ছে তাতে বড় ধরনের বন্যা হতে পারে। 

এদিকে, চলতি মৌসুমে চরাঞ্চলে রোপনকৃত আমন ক্ষেত পানির নিচে তলিয়ে যাওয়ায় দুঃচিন্তায় পড়েছেন কৃষকরা।

কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের কৃষক মো. আবুল হোসেন বলেন, ‘আমরা চরাঞ্চলের কৃষকরা সেচ দিয়ে কিছু জমিতে আমন লাগিয়েছি। এসব আমন ক্ষেত তলিয়ে গেছে। গত তিনদিন ধরে নদীর পানি বাড়ছেই।’

স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো.শফিকুল ইসলাম জানান, কুড়িগ্রামে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধির ফলে বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। আরো ৭২ ঘন্টা পর্যন্ত ব্রহ্মপুত্রের পানি বেড়ে বিপদসীমার কাছাকাছি বা সামান্য উপরে যেতে পারে। তবে এতে বড় ধরনের বন্যার আশংকা নেই। 



রাইজিংবিডি/কুড়িগ্রাম/১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮/বাদশাহ্ সৈকত/শাহেদ

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge