ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৭ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ট্রেনের টিকিট বিক্রি হচ্ছে ৫ স্থানে

হাসান মাহামুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৫-২২ ৯:০০:১০ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৫-২২ ৮:১৪:৪৩ পিএম
ছবি : শাহীন ভূইয়া
Walton AC 10% Discount

নিজস্ব প্রতিবেদক : আসন্ন ঈদ উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। এই প্রথম যাত্রীদের সুবিধার জন্য রাজধানীর পাঁচ স্থানে একযোগে টিকিট বিক্রি চলছে।

বুধবার থেকে অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। চলবে ২৬ মে পর্যন্ত।

৫ জুন ঈদের সম্ভাব্য তারিখ ধরে আজ প্রথম দিন বিক্রি করা হচ্ছে ৩১ মে’র টিকিট। সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একটানা টিকিট বিক্রি চলবে।

এবারই প্রথম গন্তব্য অনুযায়ী একেক ট্রেনের টিকিট একেক স্থান থেকে বিক্রি করার উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে।

ঘরমুখো যাত্রীদের অগ্রিম টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে কমলাপুর স্টেশন, বিমানবন্দর স্টেশন, বনানী স্টেশন, তেজগাঁও স্টেশন এবং ফুলবাড়িয়া স্টেশন থেকে। ফলে ট্রেনে বাড়ি ফেরার জন্য সবাইকে এখন আর এক কাউন্টারে জড়ো হতে হচ্ছে না। এ ছাড়া যাত্রীরা ৫০ শতাংশ টিকিট অনলাইনে অ্যাপের মাধ্যমে কিনতে পারবেন। স্টেশন কাউন্টার থেকে ৫০ শতাংশ টিকিট অগ্রিম কিনতে পারবেন। অনলাইনে ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি না হলে অবিক্রিত টিকিট কাউন্টার থেকে দেওয়া হবে।

টিকিট কালোবাজারি প্রতিরোধে সব বড় বড় স্টেশনে জিআরপি, আরএনবি, বিজিবি ও স্থানীয় পুলিশ এবং র্যা বরে সহযোগিতায় এবার টিকিট বিক্রি হচ্ছ। এ ছাড়া জেলা প্রশাসকদের সহায়তায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে বলেও জানা গেছে।

কোথায় পাওয়া যাচ্ছে কোন জেলার টিকেট : যমুনা সেতু দিয়ে সমগ্র পশ্চিমাঞ্চলগামী ট্রেনের টিকিট পাওয়া যাচ্ছে কমলাপুরে। চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী সব আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট পাওয়া যাচ্ছে বিমানবন্দর স্টেশনে। ময়মনসিংহ ও জামালপুরগামী সব আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট অগ্রিম সংগ্রহ করা যাচ্ছে তেজগাঁও রেলস্টেশন থেকে। নেত্রকোনাগামী মোহনগঞ্জ ও হাওড় এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট সংগ্রহ করা যাচ্ছে বনানী স্টেশন থেকে। এ ছাড়া সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী সব আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট সংগ্রহ করতে হচ্ছে ফুলবাড়িয়া (পুরনো রেলভবন) থেকে।



কবে কোন দিনের  টিকিট : ৫ জুন ঈদের সম্ভাব্য তারিখ ধরে  আজ টিকিট বিক্রির প্রথম দিনে বিক্রি করা হচ্ছে ৩১ মে’র টিকিট। পর্যায়ক্রমে ২৩ মে পাওয়া যাবে ১ জুনের টিকিট, ২৪ মে পাওয়া যাবে ২ জুনের টিকিট, ২৫ মে পাওয়া যাবে ৩ জুনের টিকিট এবং ২৬ মে পাওয়া যাবে ৪ জুনের টিকিট।

অন্যদিকে রেলের ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে ২৯ মে থেকে। এদিন পাওয়া যাবে ৭ জুনের টিকিট। ৩০ মে বিক্রি হবে ৮ জুনের টিকিট। ৩১ মে বিক্রি হবে ৯ জুনের টিকিট। ১ জুন বিক্রি হবে ১০ জুনের টিকিট এবং ২ জুন বিক্রি হবে ১১ জুনের টিকিট।

এবার ঈদে ছয়টি স্পেশাল ট্রেন ছাড়া হবে। এগুলো ২ থেকে ৪ জুন ঢাকা থেকে বিভিন্ন গন্তব্যে ছাড়া হবে। ঈদের পরে ৬ জুন থেকে ১২ জুন পর্যন্ত বিভিন্ন গন্তব্য থেকে ঢাকায় আসবে ফিরতি ট্রেন। এবার ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বিভিন্ন রুটে ১২টি বিশেষ ট্রেন যাতায়াত করবে। এ ছাড়া এবার ঈদের ১০ দিন আগে এবং পরের ১০ দিন ট্রেনে ভিআইপিদের জন্য সেলুন সংযোজন করা হবে না।

আন্তঃনগর ট্রেনের খবর : ঈদুল ফিতরের পাঁচ দিন আগে ৩১ মে থেকে ঈদের আগের দিন পর্যন্ত সব আন্তঃনগর ট্রেন সাপ্তাহিক বন্ধের দিনও চলাচল করবে। ছুটি প্রত্যাহারের কারণে পূর্ব ও পশ্চিম মিলে প্রায় ৪৮টি ট্রেন বিশেষ ট্রিপ হিসেবে পরিচালিত হবে। ৮ জোড়া বিশেষ ট্রেন চলাচল করবে।

যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলের সুবিধার্থে ঈদের ৩ দিন আগে থেকে কন্টেইনার ও জ্বালানি তেলবাহী ট্রেন ছাড়া কোনো পণ্যবাহী ট্রেন চলাচল করবে না।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/২২ মে ২০১৯/হাসান /ইভা/এনএ

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge