ঢাকা, শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪২৬, ১৯ এপ্রিল ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘ঊনপঞ্চাশ বাতাস’ ও পোস্টার সমাচার

আমিনুল ইসলাম শান্ত : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৯-১০ ৮:০৩:৩৯ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৯-১০ ১:২৭:১২ পিএম

বিনোদন ডেস্ক : আকাশে ঘন কালো মেঘ। সূর্যের আলো মেঘের আড়াল থেকে উঁকি দিচ্ছে। তারই নিচে এক পাশে দাঁড়িয়ে আছেন ইমতিয়াজ বর্ষণ। আর তার পাশে মাটিতে পড়ে আছে বড় আকৃতির খোলা একটি ট্রলি ব্যাগ। এতে গুটিসুটি হয়ে শুয়ে আছেন শার্লিন ফারজানা। তার চোখেমুখে লেগে আছে গভীর বেদনার ছাপ, দৃষ্টি পড়ে আছে অজানা কোথাও।

‘ঊনপঞ্চাশ বাতাস’ সিনেমার প্রকাশিত পোস্টারে এমন দৃশ্য দেখা যায়। এতদিন সিনেমাটির স্থিরচিত্র প্রকাশ্যে আসলেও এবারই প্রথম প্রকাশিত হলো সিনেমাটির অফিসিয়াল পোস্টার। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় সিনেমাটির পরিচালক মাসুদ হাসান উজ্জ্বল পোস্টারটি প্রকাশ করেন। 

পোস্টার প্রসঙ্গে এ পরিচালক বলেন, ‘ব্যাখ্যাতীত যেকোনো অনুভূতিবোধ মানুষকে সবথেকে তীব্রভাবে আকৃষ্ট করে, আবেগপ্রবণ এবং স্মৃতিকাতর করে! আপনি চোখ বন্ধ করে একটা দম নিন এবং কোনো একটি অনুভূতিকে দৃশ্যমান করার চেষ্টা করুন, একমুহূর্তের জন্য সে‌ই অনুভূতির যে ছবি আপনার মানসপটে দৃশ্যমান হবে সেটি ফ্রেমে বন্দী করলে ব্যাখ্যাতীত কিছু একটা দাঁড়াবে, তেমনই ব্যাখ্যাতীত অনুভূতির ছবি নিয়ে পোস্টারটি করা হয়েছে। এই ছবিটি কবিতার মতো- একেক রকম মানসিক অবস্থানের দর্শক একেক রকম দৃষ্টিকোণ থেকে ছবিটির ব্যাখ্যা দাঁড় করাবেন এমনটাই বিশ্বাস।’

ছোট পর্দার গুণী এই পরিচালকের এটিই প্রথম চলচ্চিত্র। পরিচালনার পাশাপাশি ‘ঊনপঞ্চাশ বাতাস’-এর কাহিনি, সংলাপ, চিত্রনাট্য, শিল্প নির্দেশনা এবং সংগীত পরিচালনাও করেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, ফটোগ্রাফি এবং পোস্টার ডিজাইনও তার করা।



সিনেমাটির সব দায়িত্ব একা কাঁধে কেন নিলেন? এমন প্রশ্নের জবাবে মাসুদ হাসান উজ্জ্বল রাইজিংবিডিকে বলেন,  “ভবিষ্যতে আমি একজন ফিল্ম মেকার হতে চাই- ক্লাশ সেভেনে পড়াকালীন এই ভাবনা মাথায় আসে। ‘তারকোভস্কি ডায়েরি’ নামে একটি বই তখন আমার মেজ বোন উপহার দিয়েছিলেন। তারপরই আমি বুঝতে শুরু করলাম- সিনেমা নিছক একটি বিনোদন না। ক্লাশ এইটে পড়াকালীন আমি মিউজিক শুরু করি। ফটোগ্রাফি শুরু করি সতেরো বছর বয়স থেকে। ফিল্মের সব আমি টুকটাক জানি বিষয়টি তা নয়। এক্ষেত্রে আমি বিনয় দেখাতে পারছি না। কারণ ফিল্ম আমি টুকটাক জানি না বরং পেশাদারভাবেই বিষয়টি জানি। সেটা সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, কম্পোজিং…। সিনেমাটিতে আমি ভিন্ন ঘরানার বাদ্যযন্ত্র ব্যবহার করেছি। এতে যা যা বাজানো হয়েছে তার সবই আমি বাজিয়েছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমার কাজ নিখুঁত হতে হবে। তা মাথায় রেখেই বিভিন্ন লোক দিয়ে যখন এসব কাজ করানোর চেষ্টা করলাম তখন দেখেছি- তারা সময় মতো ডেলিভারি দিচ্ছে না, যা চাচ্ছি তা পাচ্ছি না এসবের পরই নিজের মতো করে কাজ করেছি। আমার চাওয়া মতো যদি কেউ আমার কাজ দিতে পারত তবে অবশ্যই আমি তাকে হায়ার করতাম। তবে পোস্টার দেখে অনেকে মনে করতে পারেন- আমি যা বলছি সে কথার সঙ্গে তো কাজের মিল নেই। সেক্ষেত্রে বলব, আমি আমার সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করেছি।’

এই চলচ্চিত্রের গল্পের মূল চরিত্র অয়ন ও নিরা। এ দুটি চরিত্র রূপায়ন করেছেন ইমতিয়াজ বর্ষণ ও শার্লিন ফারজানা। ঝুঁকি হলেও একদম নতুন মুখ নিয়েই সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন পরিচালক।



এই পোস্টার প্রকাশের মধ্য দিয়েই সিনেমাটির ক্যাম্পেইন শুরু করলেন এ নির্মাতা। চলতি বছরের শেষের দিকে এটি মুক্তির কথা রয়েছে। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান রেড অক্টোবরের ব্যানারে চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করছেন আসিফ হানিফ, নির্বাহী প্রযোজকের দায়িত্বে আছেন সৈয়দা শাওন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮/শান্ত/মারুফ

Walton Laptop
     
Walton AC
Marcel Fridge