ঢাকা, বুধবার, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

‘চালের বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না সরকার’

রেজা পারভেজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৯-২১ ৫:৫৬:২৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৯-২১ ৫:৫৬:২৩ পিএম

জ‌্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : সরকারের মন্ত্রী-এমপিদের ব‌্যর্থতার কারণেই দেশে চালের বাজারে অস্থিরতা দেখা দিয়েছে বলে মনে করছেন বিএনপি নেতা আবদুল্লাহ আল নোমান।

বৃহস্পতিবার রাজধানীতে এক আলোচনা সভায় তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ জনগণের সরকার নয় বলেই খাদ্য সম্পর্কে তাদের কোনো নীতিমালা নেই। তাই তারা চালের বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না। মন্ত্রী-এমপিরা দায়িত্ব পালনে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। তাদের ক্ষমতায় থাকার নৈতিক কোনো অধিকার নেই।’

প্রাক্তন এই খাদ‌্যমন্ত্রী দাবি করেন, সরকারি খাদ্যাগারে যে পরিমাণ মজুত থাকার কথা ছিল সে পরিমাণ মজুত নেই। আজকের দিনে ১০ লক্ষ মেট্রিক টন চাল মজুত থাকার কথা, সেখানে ২ লক্ষ মেট্টিক টন রয়েছে। সরকারি মজুতের কথা ব্যবসায়ীরা জেনে যান নানাভাবে এবং কোনো বাজারে চালের চাহিদা বেশি সেখানে সংকট তৈরি করে দাম বাড়িয়ে দেন এসব ব্যবসায়ীরা।

‘সরকার ব্যবসায়ী ও মিল মালিকদের থেকে ৩০-৩২ টাকায় চাল কিনতে চেয়েছিল। ব্যবসায়ীরা তা দেয়নি। ফলে সরকার এই প্রকল্পে ব্যর্থ হয়েছে”, বলেন বিএনপির এই ভাইস চেয়ারম‌্যান।

জাতীয় প্রেসক্লাবের হলরুমে ‘চালসহ-নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর মূল্য উর্ধ্বগতির প্রতিবাদ এবং রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান’ দাবিতে এই আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী কর্মজীবী দল।

নোমান বলেন, ‘তোফায়েল আহমেদ, আব্দুর রাজ্জাক ও কামরুল ইসলাম এই তিন মন্ত্রী চাল ব্যবসায়ীদের নিয়ে বৈঠক করেছেন কিভাবে দাম কমানো যায়, মজুতদারি রোধ করা যায়? এমন পরিস্থিতিতে মজুতদাররা বললেন তারা চালের সংকট যাতে না হয় এই জন্য মজুত করেছে। এমন হলে বাজার নিয়ন্ত্রণ সম্ভব নয়। চালের দাম কেন বাড়ছে, কেন এই সংকট? এই ঘটনার গভীরে না যাওয়া পর্যন্ত এই সংকট মোকাবিলা সম্ভব নয়। সংকটের কারণ হলো ডিমান্ডেড সাপ্লাই নিশ্চিত করতে না পারা।’

এ সময় নোমান অভিযোগ করেন, সরকার সর্বক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়ে ফের ভোটবিহীন নির্বাচন করতে চাচ্ছে। এই সরকারের জনগণের কাছে কোনো জবাবদিহিতা নেই। আবার তারা ভোটবিহীন নির্বাচন করার পাঁয়তারা করছে। কিন্তু বাংলাদেশের মাটিতে আমরা আর এমন নির্বাচন হতে দিতে পারি না।

নিরপেক্ষ সরকারের দাবি আদায়ে দলের সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি করতে দলের দায়িত্বশীলদের প্রতি আহ্বান  জানান তিনি।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি হাজী মো. লিটনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আলতাব হোসেনের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য দেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এ বি মোশাররফ হোসেন, জিনাপের সভাপতি মিয়া মো. আনোয়ার, এনডিপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মঞ্জুর হোসেন ঈশা, বাগেরহাট জেলা বিএনপির উপদেষ্টা, ড. কাজী মনিরুজ্জামান মনির, দেশ বাঁচাও মানুষ মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭/রেজা/সাইফ

Walton