ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ কার্তিক ১৪২৪, ২৪ অক্টোবর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কথা বললেই গুম: রিজভী

মামুন খান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১০-০৬ ২:৫৩:০৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১০-০৮ ৯:৩৭:০৫ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ৭১’র চেতনা কি এই ছিল যে, আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কথা বললেই গুম, অপহরণ ও বিচারবহির্ভুত হত্যার শিকার হতে হবে?

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির নিখোঁজ হয়ে যাওয়া মহাসচিব এম এম আমিনুর রহমানের অপহরণের প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, টেলিভিশন, প্রিন্ট মিডিয়াকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়। কিন্তু তথ্য-প্রযুক্তির উন্নয়নের ফলে অনেক গণমাধ্যম আছে যেখানে নিয়ন্ত্রণ করা যায় না। প্রধান বিচারপতিকে ধমক দিচ্ছে কারা, কোন সংস্থার লোক, কোন সংস্থার কর্মকর্তা তা জনগণ জানে।

তিনি বলেন, ‘বিচার বিভাগ রাষ্ট্রের একটি স্বাধীন অঙ্গ। কিন্তু বিচার বিভাগের ভিত্তির ওপর আঘাত করা হলো। কারণ সুপ্রিম কোর্টের একটি রায়ের পর্যবেক্ষণে সরকার বিব্রত ও ক্ষুব্ধ হয়েছে। তাই বিরোধী দল সত্য কথা বললে যেমন বেঁচে থাকার অধিকার নেই, গুম-খুন হতে হয় ; তেমনিভাবে বিচার বিভাগের কোনো পর্যবেক্ষণ যদি সরকারের বিপক্ষে যায় তারও টিকে থাকার কথা নয়।’

প্রধান বিচারপতি সরকারের ক্রোধ ও ক্ষোভের শিকার দাবি করে রিজভী আহমেদ বলেন, ‘এই ক্ষোভের কারণ হচ্ছে, তিনি ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়ের পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে কেন সরকারের বিরুদ্ধে কথা বললেন? এখন জনগণের সর্বশেষ আশ্রয়টি শেষ হয়ে গেল। এখন যেটি হবে তা হলো, প্রধান বিচারপতির ওপর একজন সুপ্রিম জাস্টিস হবেন, তিনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বসে থাকবেন। তিনি হবেন সবার ওপরে। কার বিচার হবে, কার শাস্তি হবে, সেই রায় হবে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে।’

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, ‘গতকাল প্রধান বিচারপতি তার স্ত্রীকে নিয়ে ঢাকেশ্বরী মন্দিরে গেছেন, পূজা করেছেন। তাহলে আমরা কী বলব? একদিকে আইনমন্ত্রী বলছেন, তিনি ছুটি নিয়েছেন। অন্যদিকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেছেন, এতে বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে। তাহলে কোনটা ঠিক? ঠিক এটাই যে, প্রধান বিচারপতি এখন সরকারের টার্গেট। তিনি কেন সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলেছেন?’

কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মে. জেনারেল (অব.) সৈয়দ মো. ইব্রাহিমের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব এম এ গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৬ অক্টোবর ২০১৭/মামুন খান/এসএন

Walton
 
   
Marcel