ঢাকা, রবিবার, ৮ মাঘ ১৪২৪, ২১ জানুয়ারি ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

‘সরকারের হুকুমেই নিম্ন আদালতের বিচারকদের চলতে হবে’

রেজা পারভেজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১২-১৩ ১:১০:৪২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১২-১৩ ১:১০:৪২ পিএম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : নিম্ন আদালতের বিচারকদের শৃঙ্খলাবিধির গেজেট প্রকাশের পর বিচারকদের ‘সরকারের হুকুমে চলতে বাধ্য হবে’ বলে মনে করছে বিএনপি।

দলটি বলছে, ‘এর মাধ্যমে বিচারকরা সবসময় আতঙ্কে থাকবে। চাকরি রক্ষার্থে নির্বাহী বিভাগের সব অন্যায় আবদার শুনতে ও পালন করতে হবে। সুবিচার-ন্যায়বিচার কালের গর্ভে হারিয়ে যাবে।’

বুধবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে দলের পক্ষে এই প্রতিক্রিয়া দেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, ‘এই বিধিমালায় বিচার বিভাগের স্বাধীনতা বলে কিছু নেই। মাসদার হোসেন মামলায় বিচার বিভাগকে পৃথকীকরণ নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট যে নির্দেশ দিয়েছিল তার পরিপন্থী। এমনকি সংবিধানেরও পরিপন্থী।’

শৃঙ্খলাবিধির মাধ্যমে প্রশাসন থেকে বিচার বিভাগকে পৃথকীকরণের মৃত্যু ঘটেছে মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘এই বিধির ফলে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা বিঘ্নিত হবে। সাংবিধানিক প্রক্রিয়া ক্ষতিগ্রস্ত হবে। বিচারিক আদালত সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান। তাদের সরকারি গণপ্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করার উদ্দেশ্য নির্বাহী বিভাগ তাদেরকে নিরঙ্কুশভাবে নিয়ন্ত্রণ করবে। এর ফলে সরকারের হুকুমেই নিম্ন আদালতের বিচারকদের চলতে হবে।’

‘আওয়ামী লীগকে ভোটে হারানোর মতো দল আর বাংলাদেশে নেই’ বলে শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় যে বক্তব্য রেখেছেন তার সমালোচনা করেন রুহুল কবির রিজভী।

‘এই মনোভাবকে বলা হয় ফ্যাসিস্ট মনোভাব, যা বহুদলীয় গণতন্ত্র, সুশাসন ও মানুষের নাগরিক অধিকারকে কুঠারাঘাত করার সামিল। ২০১৪ সালের ভোটারবিহীন নির্বাচনের আগেও তিনি একইরকম জরিপ প্রকাশ করে বলেছিলেন যে, আমার কাছে তথ্য আছে-আওয়ামী লীগই জিতবে। তাহলে এবারেও তার বক্তব্যে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে আরেকটা নীল নকশার নির্বাচনের লক্ষণ দেখা যাচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা বলেছেন-তিনি মেশিন দিয়ে জরিপ চালিয়েছেন। তিনি জনগণের মধ্যে জরিপ চালাননি। তিনি যে মেশিনের কথা বলছেন সেটি ‘আওয়ামী মেশিন’। সেই মেশিনের জরিপে জনগণের প্রকৃত মনোভাব ফুটে ওঠে না, মেশিনে শুধু আওয়ামী মনোভাবই ফুটে ওঠে।’

ছাত্রলীগ ‘স্কুল পর্যায়ে কমিটি ঘোষণা’ শিক্ষার্থীদের মধ্যে হানাহানি ছড়িয়ে দিয়েছে দাবি করেন রিজভী বলেন, ‘গত দুদিন আগে মৌলভীবাজারে ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে খুন হয়েছে শাবাব ও মাহী নামে দুই স্কুল শিক্ষার্থী। এদের পরিবারে চলছে এখন শোকের মাতম।’

‘ক্ষমতাসীনরা দেশব্যাপী সন্ত্রাসের পরিকাঠামো নির্মাণের জন্য স্কুল পর্যায়ে কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ধ্বংস করে এখন মাধ্যমিক পর্যায়েও ছাত্রলীগের কমিটির নামে দলীয় সন্ত্রাসী দল তৈরি করছে। এটি শিক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংস করার মাধ্যমে গোটা জাতিকে পঙ্গু করার একটি পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র’, বলেন বিএনপির দপ্তরের দায়িত্বে থাকা এই নেতা।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ ডিসেম্বর ২০১৭/রেজা/সাইফ

Walton
 
   
Marcel