ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ কার্তিক ১৪২৪, ১৯ অক্টোবর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

আমের নাম ‘ব্রুনাইকিং’

মো. আনোয়ার হোসেন শাহীন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৫-২০ ১১:৩৭:০৮ এএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৫-২০ ১১:৩৭:০৮ এএম

মাগুরা প্রতিনিধি: আমের নাম ‘ব্রুনাইকিং’। বিদেশি জাতের ঢাউস আকৃতির আমের পরীক্ষামূলক চাষ শুরু হয়েছে মাগুরার হর্টিকালচার সেন্টারে। দুটি গাছে এবার পাঁচটি আম আছে। ইতিমধ্যে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে এই আম।

মাগুরা শহরের ঝিনাইদহ সড়কের পুলিশ লাইনস সংলগ্ন হর্টিকালচার সেন্টারে  মানুষের মনোযোগ কাড়ছে এই আম।আকর্ষণীয় এই আম দেখতে ও চারা সংগ্রহ করতে  লোকজন ভিড় করছে প্রতিদিন। 

মাগুরা হর্টিকালচার সেন্টারের উদ্যান তত্ত্ববিদ মো. আমিনুল ইসলাম জানান,  ব্রুনাইকিং জাতের আম সৌখিন চাষিদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। গতবার লাগানো গাছে এবার আম এসেছে। অনেক আম আসলেও ওজনের কারণে দুটি গাছে পাঁচটি আম রাখা হয়েছে।

আমের আঁটি পরিপক্ক হওয়ার আগেই একেকটি আমের ওজন এক কেজি ছাড়িয়ে গেছে। পরিপক্ক হলে ওজন পাঁচ কেজি পর্যন্ত হবে বলে তিনি জানান।

তিনি বলেন, ‘রোপণের এক বছর পরই ফল আসে। শ্রাবণ মাসে পাকে। বাড়ির ছাদে সহজেই আবাদ করা যায়।এসময় অন্য আম কমে আসায় এই আমের চাহিদা বেশি হবে। স্বাদ, গন্ধ এবং রঙও  ভালো। গত মৌসুমে প্রায় ৫০ জন আগ্রহী কৃষকের মধ্যে এই আমের চারা বিতরণ করা হয়েছে। বেশিরভাগ গাছেই আম এসেছে।’

তিনি জানান, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মাধ্যমে  ব্রুনাই থেকে আনা এই জাতের আম ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য মাগুরা হর্টিকালচার সেন্টারে আবাদ শুরু হয়েছে। সামনের মৌসুমে আগ্রহী কৃষকদের মধ্যে ব্যাপকহারে চারা বিতরণ শুরু হবে।

শালিখার শতথালি গ্রামের আম চাষি আতিয়ার রহমান জানালেন, গতবার রোপণ করা গাছে এবার আম ধরেছে। আম দেখতে লোকজন ভিড় করছে। এবার গাছের সংখ্যা আরও বাড়াবেন বলে জানান তিনি।

 

 

রাইজিংবিডি/মাগুরা/২০ মে ২০১৭/মো. আনোয়ার হোসেন শাহীন/টিপু

Walton
 
   
Marcel