ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ ভাদ্র ১৪২৪, ২৪ আগস্ট ২০১৭
Risingbd
শোকাবহ অগাস্ট
সর্বশেষ:

বরিশালে কিডনির রক্তনালীতে রিং স্থাপন

জে.খান স্বপন : রাইজিংবিডি ডট কম
প্রকাশ: ২০১৭-০৭-২৬ ৫:৩২:৩১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৭-২৬ ৫:৩২:৩১ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল : বরিশালের শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৫০ বছর বয়সী এক ব্যক্তির দুটি কিডনির রক্তনালীতে সফলভাবে রিং স্থাপন করা হয়েছে।

আজ বুধবার হাসপাতালে প্রথমবারের মতো রিং সংযোজনে সার্জন ফি বাবদ রোগীর খরচ হয়েছে মাত্র দুই হাজার টাকা। রিং স্থাপনের পর সুস্থ আছেন বাবুগঞ্জ উপজেলার মাদবপাশা ইউনিয়নের ফুলতলা গ্রামের জয়নাল আবেদীন।

কিডনির রক্তনালীতে রিং স্থাপনের সফল এ অস্ত্রোপচারটি করেছেন হাসপাতালের একমাত্র ইন্টারভেশনাল কার্ডিওলজিস্ট ডা. এম সালেহ উদ্দীন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, রোগী জয়নাল আবেদীন দীর্ঘ দিন ধরে উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের জন্য তিনি সর্বোচ্চমাত্রার ওষুধ সেবন করেছেন। কিন্তু কিছুতেই উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে আনতে পারছিলেন না। এই অবস্থায় তিনি শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন।

ডা. এম সালেহ উদ্দীন পরীক্ষা করে দেখতে পান রোগীর ডান কিডনির রক্তনালী ৯০ ভাগ এবং বাম কিডনির রক্তনালী ৯৫ ভাগ ব্লক। এ অবস্থায় তিনি রোগীর দুটি কিডনির রক্তনালীতে রিং বসানোর উদ্যোগ নেন।

শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অত্যাধুনিক মেশিনের সাহায্যে জয়নাল আবেদীনের দুটি কিডনির রক্তনালীতে সফলভাবে রিং স্থাপন করা হয়েছে। এতে রোগীর স্বজনদের দুটি রিং ক্রয়ের জন্য খরচ হয়েছে ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা। আর হাসপাতালে ফি জমা দিতে হয়েছে মাত্র দুই হাজার টাকা।

রোগীর স্ত্রী ফাতেমা বেগম জানান, ঢাকার একটি ক্লিনিকে এ অস্ত্রোপচারের জন্য সাড়ে ৩ লাখ টাকা চেয়েছিল। এখানে কম খরচে করতে পেরেছেন। ঋণ করে তারা এই টাকা সংগ্রহ করেছেন।

অপারেশনের নেতৃত্ব দেওয়া সহকারী অধ্যাপক এম সালেহ উদ্দীন জানান, জয়নাল আবেদীনের কিডনির রক্তনালীতে জরুরি ভিত্তিতে রিং স্থাপন করা না হলে তার কিডনি দুটি নষ্ট হয়ে যেত। রোগীকে অজ্ঞান না করিয়ে ৩০ মিনিটের মধ্যে এই অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। রোগী সুস্থ আছেন।

তিনি বলেন, প্রতিনিয়ত বরিশালে এই অপারেশন করতে প্রয়োজন শুধু জনবল।

৩০ মিনিটের এই সফল অস্ত্রোপচারের টিমে ছিলেন ডা. রোহান খান, ডা. মাহফুজুর রহমান. ডা. সাইদুর রহমান, সিনিয়র স্টাফ নার্স শামীমা ইয়াসমিন, সাদিয়া পারভিন, সুরভী এবং একমাত্র মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট মো. গোলাম মোস্তফা।



রাইজিংবিডি/বরিশাল/২৬ জুলাই ২০১৭/জে. খান স্বপন/বকুল

Walton Laptop