ঢাকা, শনিবার, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৮ নভেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

মালয়েশিয়ার ‘আয়রনম্যান’ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশি আরাফাত

হাসান মাহামুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১১-০২ ৫:২৯:২৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১১-০২ ৫:২৯:২৫ পিএম
মালয়েশিয়ার ‘আয়রনম্যান’ প্রতিযোগিতার একটি ব্যানার

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশের টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া ১ হাজার ৪ কিলোমিটার পথ। এই দীর্ঘ পথ দৌড়ে পাড়ি দেওয়া একমাত্র দৌড়বিদ মুহাম্মদ সামছুজ্জামান আরাফাত।

তার স্বপ্ন এখন বিশ্বের কঠিনতম এক দিনের রেসে বাংলাদেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করা। এবার সত্যি হতে যাচ্ছে সেই স্বপ্ন। মুহাম্মদ সামছুজ্জামান আরাফাত অংশ নিতে যাচ্ছেন মালয়েশিয়ার ‘আয়রনম্যান’ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধি হয়ে।

আগামী ১১ নভেম্বর মালয়শিয়ার ল্যাংকাওয়েতে অনুষ্ঠিতব্য আয়রনম্যান ইভেন্টে বাংলাদেশের পতাকা উঠবে এই ট্রাই-অ্যাথলেটের হাতে। এই ইভেন্টে বাংলাদেশের হয়ে এককভাবে প্রতিনিধিত্ব করবেন আরাফাত। বাংলাদেশের পতাকাকে তুলে ধরবেন বিশ্বের সামনে।

প্রসঙ্গত, আয়রনম্যান ইভেন্টটি বিশ্বের কঠিন খেলাগুলোর একটি। এতে প্রতিটি প্রতিযোগীকে প্রথমে ৩.৮ কিলোমিটার সাঁতরাতে হয়। তারপর ১৮০ কিলোমিটার সাইকেলে পাড়ি দিতে হয়। শেষ ধাপে হয় একটি ফুল ম্যারাথন। এই ম্যারাথনে পাড়ি দিতে হয় ৪২.২ কিলোমিটার পথ। দীর্ঘ এই পথ যেতে হয় ১৭ ঘণ্টার মধ্যে।

বিশ্বের অনেক বাঘা বাঘা অ্যাথলেট এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া থেকে বিরত থাকেন। কারণ, এই প্রতিযোগিতায় প্রচুর পরিশ্রম করতে হয় এবং একটানা রেসে থাকতে হয়।

‘আয়রনম্যান’ ইভেন্টে অংশ নিতে আগামী শনিবার (৪ নভেম্বর) মালয়েশিয়ার উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন আরাফাত।

এ উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার একটি সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে।

 


বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে দৌড়বিদ আরাফাতের হাতে পিকেএসএফের পক্ষ থেকে পতাকা তুলে দেওয়া হচ্ছে

 

অনুষ্ঠানে পল্লী কর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) চেয়ারম্যান ড. কাজী খলিকুজ্জমান আহমদ এবং উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ফজলুল কাদের, ইউল্যাবের সহকারী অধ্যাপক নিয়াজ পাটোয়ারী, ১২ বার বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেওয়া লিপটন সরকার, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষক শাশিশ শামী কামাল, ম্যানিলা খীসা ও জাহিদুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে মুহাম্মদ সামছুজ্জামান আরাফাতের হাতে বাংলাদেশের পতাকা অর্পণ করেন পিকেএসএফের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ। অনুষ্ঠানে পিকেএসএফের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ফজলুল কাদের পিকেএসএফের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক কর্মসূচিতে সামছুজ্জামান আরফাতকে আইকন হিসেবে অন্তর্ভূক্ত করার ঘোষণা দেন। সামসুজ্জামান আরাফাতের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে পিকেএসএফের সভাপতি পিকেএসএফের পক্ষ থেকে ১ লাখ টাকা দেওয়ার ঘোষণা দেন।

সুস্থ বাংলাদেশের স্বপ্ন নিয়ে মুহাম্মদ সামছুজ্জামান আরাফাত টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া দৌড়ে একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

‘আয়রনম্যান’ প্রতিযোগিতার প্রস্তুতি ও অন্যান্য বিষয়ে সামছুজ্জামান আরাফাত জানান, এই আয়রনম্যান অভিযানের লক্ষ্যে তিনি প্রায় তিন বছর কঠিন অনুশীলন করেছেন। প্রাথমিকভাবে ১৭ ঘণ্টার এই প্রতিযোগিতা ১২ ঘণ্টার মধ্যে অতিক্রম করার লক্ষ্যে তিনি প্রস্তুতি চালিয়ে যাচ্ছেন।

গত ২৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিত ঢাকা চ্যালেঞ্জের ট্রায়াথনে তিনি বাংলাদেশি প্রতিযোগীদের মধ্যে প্রথম ও সামগ্রিকভাবে দ্বিতীয় হয়েছেন। এছাড়া আরাফাত তিন বার বাংলা চ্যানেল (টেকনাফ থেকে সেন্ট মার্টিন) সাঁতরে অতিক্রম করেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২ নভেম্বর ২০১৭/হাসান/রফিক

Walton
 
   
Marcel