ঢাকা, বুধবার, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

চট্টগ্রামে চার স্বপ্নবাজ তরুণের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

রেজাউল করিম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১১-২৭ ৩:৩৪:৫১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১১-২৭ ৩:৪০:৪২ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম : চার তরুণের স্বপ্নের নাম ‘মিল সিটি’। চাকরি নয়, স্বাধীনভাবে কাজ করে নিজের পায়ে দাঁড়ানোর প্রত্যয়ে চার বন্ধু মিলে গড়ে তুলেছেন এই ‘মিল সিটি’।

চট্টগ্রামের এই চার তরুণই গ্র্যাজুয়েট। ইফতেখার হোসাইন গ্র্যাজুয়েশন করেছেন ঢাকার নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে, ফারহান ইসলাম গ্র্যাজুয়েশন করেছেন চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে, এস এম মুশফিকুর রহমান গ্র্যাজুয়েশন করেছেন প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এবং মোদাচ্ছের জাকারিয়া গ্র্যাজুয়েশন করেছেন চট্টগ্রামের ইউএসটিসি থেকে।

‘মিল সিটি’ একটি ব্যতিক্রমধর্মী রেস্টুরেন্ট। চট্টগ্রাম শহরে নতুন কিছু। পরস্পর বন্ধু এই চার তরুনের স্বপ্ন এই রেস্টুরেন্টকে ঘিরে। নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করার স্বপ্ন দেখেছেন তারা নিজেদের মতো করে। পারিবারিক ঐতিহ্য এবং প্রভাব প্রতিপত্তি থাকলেও নিজেরা কিছু করে দেখাতে চেয়েছেন নিজেদের পরিবারকে।



চট্টগ্রাম নগরীর বাণিজ্যিক প্রাণকেন্দ্র জিইসি মোড়ের বিলাসবহুল বহুতল ভবন ইকুইটি সেন্ট্রিয়ামের ৫ম তলায় শুক্রবার গ্র্যান্ড ওপেনিং-এর মাধ্যমে যাত্রা শুরু হয়েছে ‘মিলসিটি’র।

এই স্বপ্ন সম্পর্কে এস এম মুশফিকুর রহমান বলেন, ‘চার বন্ধু ভিন্ন ভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা করলেও আমরা দীর্ঘদিনের বন্ধু। পড়ালেখা করতে করতেই আমাদের স্বপ্ন, আমরা নিজেরা কিছু করবো। ‘মিলসিটি’ই আমাদের সেই স্বপ্নিল প্রয়াস। আমরা গতানুগতিকতার বাইরে কিছু করার চেষ্টা করেছি। ’

এই রেস্টুরেন্টে রয়েছে পৃথক একটি লাউঞ্জ। ৫/৬ জন কিংবা ১০ জন মিলে একান্তে বসে আড্ডা ও খাওয়া-দাওয়া এক সঙ্গেই চলবে। বহুল পরিচিত ফ্রেন্ডস টিভি’র ‘সেন্ট্রাল পার্ক’-এর স্টুডিওর পুরো আবহ নিয়ে তৈরি হয়েছে এই লাউঞ্জ। নামও দেয়া হয়েছে সেন্ট্রাল পার্ক। আগাম বুকিং দিয়ে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত এই সেন্ট্রাল পার্কে বসে খাওয়া-দাওয়া আর আড্ডা দিতে পারবেন যে কেউ-ই। এ জন্য দিতে হবে না কোন আলাদা চার্জ।



ইফতেখার হোসাইন জানালেন, মিল সিটি মূলত একটি মাল্টি কুজিন রেস্টুরেন্ট। বাংলা খাবার ছাড়া আন্তর্জাতিক মানের কন্টিনেন্টাল সব ফুডের সংমিশ্রন রয়েছে এই রেস্টুরেন্টে। এখানে যে কোন ভোজন বিলাসী মানুষ একই সাথে একই প্লেটে ইন্ডিয়ান, মেক্সিকান, থাই, চাইনিজ সব রকম খাবারের স্বাদ নিতে পারবেন। তাদের সিগনেচার ফুড হিসেবে রাখা হয়েছে ২৬০ টাকায় ‘দম বিরিয়ানি’।

ইফতেখার জানান, মিল সিটি’র মেনুতে বেশ কিছু দামি খাবার থাকলেও ২৬০ টাকা থেকে ৪০০ টাকার মধ্যে আন্তর্জাতিক মানের খাবারের স্বাদ গ্রহন করতে পারবেন এই রেস্টুরেন্টে। খাবারের নির্দিষ্ট দামের বাইরে কোন ভ্যাট কিংবা সার্ভিস চার্জ দিতে হবে না।

শুক্রবার থেকে মিল সিটি অতিথিদের জন্য উন্মুক্ত হয়েছে। চট্টগ্রামের সব বয়সী মানুষকে স্বপ্নের মিল সিটি ঘুরে দেখার আমন্ত্রন জানালেন এই স্বপ্নবাজ তরুনরা।




রাইজিংবিডি/চট্টগ্রাম/২৭ নভেম্বর ২০১৭/রেজাউল/টিপু

Walton
 
   
Marcel