ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৪, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

রাতে ঘেমে যাওয়ার ৭ কারণ

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৭-১৫ ১২:১৩:২৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৭-১৫ ১২:১৫:০৭ পিএম
প্রতীকী ছবি

এস এম গল্প ইকবাল : বিরক্তিকর ও অস্বস্তিকর অনুভূতিগুলোর একটি হচ্ছে, রাতে ঘুমের মধ্যে শরীর গরম ও ঘেমে যাওয়ার কারণে জেগে ওঠা। ঘুমের মধ্যে শরীর তীব্র গরম হয়ে যাওয়াটা আপনার আরামের ঘুমে ব্যাঘাত ঘটাবে এবং পরেরদিন আপনি আলসেমিতে ভুগবেন।

তাই রাতে ঘেমে যাওয়ার কারণ কি হতে পারে, তা বুঝা এ সমস্যার চিকিৎসার প্রাথমিক ধাপ। এ প্রতিবেদনে রাতে ঘুমের মধ্যে ঘেমে যাওয়ার কিছু কমন কারণ তুলে ধরা হল।

এ কথা মনে রাখা প্রয়োজন যে, গরম আবহাওয়ার কারণে আপনি রাতে ঘেমে যেতে পারেন, স্বাভাবিকের তুলনায় শরীরে বেশি কাপড়, কম্বলের কারণে ঘামতে পারেন এমনকি বিছানার কারণেও আপনার শরীরে তাপমাত্রা বৃদ্ধি হতে পারে। কিন্তু এসব যদি প্রকৃত কারণ না হয়ে থাকে, তাহলে নিচে উল্লেখিত ৭টি কারণের মধ্যে যেকোনোটি আপনার রাতে ঘেমে যাওয়ার কারণ হতে পারে।

মেনোপজ
রাতে ঘেমে যাওয়ার কারণ হতে পারে মেনোপজ। মেডিসিন নেট-এর এক ব্যাখ্যায় বলা হয়েছে, যেসব মহিলারা মেনোপজের আগের স্টেজে রয়েছেন, তারা প্রায়ই ‘হট ফ্লাশ’ অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হতে পারেন, হঠাৎ করেই মনে হতে থাকবে শরীরের বিভিন্ন অংশ থেকে গরম তাপ বেরোচ্ছে। যা তাদেরকে মধ্যরাতে গরম ঘামে জাগিয়ে তুলতে পারে।

ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া
কিছু কিছু ওষুধ আপনাকে ঘামে জাগিয়ে তুলতে পারে। ওয়েবএমডি’র তথ্যানুসারে, বিষণ্নতা প্রতিরোধী কিছু ওষুধ, মানসিক রোগের ওষুধ কিংবা অ্যাসপিরিন রাতে ঘাম সৃষ্টি করতে পারে। ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলে জেনে নিন, আপনার ওষুধ রাতে ঘামের কারণ হবে কিনা।

ক্যানসার
রাতের ঘাম ক্যানসারের (যেমন- লিম্ফোমা) প্রাথমিক লক্ষণ হতে পারে। ওয়েবএমডি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, রাতে ঘাম সৃষ্টি করা ছাড়াও আরো কিছু উপসর্গ রয়েছে, যেমন ওজন কমে যাওয়া ও জ্বর আসা।

ইনফেকশন
মেডিসিন নেট জানিয়েছেন, ইনফেকশনের কারণে রাতে ঘাম হতে পারে। ইনফেকশনের মধ্যে যক্ষ্মা, ফোড়া, এন্ডোকার্ডাইটিস (হার্ট ভালভের প্রদাহ), অস্টিওমাইয়িলিটিস (অস্থির প্রদাহ) ইত্যাদি উল্লখযোগ্য। অন্যান্য মারাত্মক ইনফেকশনের (যেমন- এইডস) কারণেও ঘাম হতে পারে।

উদ্বিগ্নতা
স্ট্রেস ও উদ্বিগ্নতার কারণে আপনি রাতে ঘামতে পারেন। মায়ো ক্লিনিক জানায়, উদ্বিগ্নতার অন্যান্য উপসর্গ হল স্নায়ুবিক দুর্বলতা, দুশ্চিন্তা ও ঘুমের সমস্যা।

ঘুমে সমস্যা
ঘুমের মধ্যে শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা বা অন্যান্য ঘুমের ব্যাধির কারণে আপনি রাতে ঘামতে পারেন।

রক্তে শর্করার অভাব
মেডিসিন নেট এর মতে, লো ব্লাড সুগার লেভেল (রক্তে শর্করার পরিমাণ অতিমাত্রায় কমে যাওয়া) ঘাম সৃষ্টি করতে পারে। হাইপোগ্লিসিমিয়ার (রক্তে শর্করার অভাব) কারণে ডায়াবেটিস রোগীরা রাতে ঘামতে পারে।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৫ জুলাই ২০১৭/ফিরোজ

Walton Laptop