ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ আষাঢ় ১৪২৫, ২৬ জুন ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

রমজানের ৭ বিস্ময়কর স্বাস্থ্য উপকারিতা

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০৫-২০ ৯:৪৮:২৯ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৫-২০ ১১:৫০:৪৯ এএম
প্রতীকী ছবি

এস এম গল্প ইকবাল : এক হাজার বছরেরও বেশি সময় ধরে বিশ্বের লাখ লাখ লোক রমজানের আত্মিক শুদ্ধতা সফলতার সঙ্গে উপলব্ধি করেছে, তবুও কিছু লোক এখনো ভয় পায় যে এরকম দীর্ঘসময় রোজা রাখার ফলে তাদের স্বাস্থ্যে ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে। যদি আপনার মনেও এ ধরনের ভীতি কাজ করে, তাহলে রমজানের সাতটি বিস্ময়কর স্বাস্থ্য উপকারিতা জেনে নিন।

১. রমজান ও খেজুর
ধর্মীয় কারণে রমজানের সময় প্রতিদিন ইফতারের শুরুতে তিনটি খেজুর খাওয়া হয়, কিন্তু খেজুর খাওয়ার বিভিন্ন স্বাস্থ্য উপকারিতাও রয়েছে। সারাদিন উপবাস থাকার ফলে আমাদের শক্তি কমে যায়। খেজুর আমাদের শরীরে তাৎক্ষণিক শক্তি যোগায়। খেজুর ফাইবারেরও ভালো উৎস, যা রমজান জুড়ে হজমের উন্নয়ন ঘটাতে সাহায্য করে। খেজুরে উচ্চমাত্রায় পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং ভিটামিন বি রয়েছে। সর্বাধিক স্বাস্থ্যকর ফলগুলোর একটি হচ্ছে খেজুর।

২. মস্তিষ্কের উন্নতিসাধন করে
রমজানে মস্তিষ্ক-বিকাশ ক্ষমতা আপনার ধারণার চেয়েও বেশি হতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকদের দ্বারা পরিচালিত একটি গবেষণায় পাওয়া যায়, রমজানের সময় অর্জিত মানসিক ফোকাস মস্তিষ্ক-উদ্ভুত নিউরোট্রফিক ফ্যাক্টরের মাত্রা বৃদ্ধি করে, যা শরীরকে অধিক মস্তিষ্ক-কোষ উৎপাদনে প্রভাবিত করে এবং এভাবে মস্তিষ্কের কার্যক্রমের উন্নয়ন সাধন হয়। এছাড়া অ্যাড্রিনাল গ্রন্থি দ্বারা উৎপন্ন হরমোন করটিসলের মাত্রাও কমে যায়, যার মানে হচ্ছে- রমজানের সময় ও রমজানের পরে স্ট্রেসের মাত্রা হ্রাস পায়।

৩. বদ অভ্যাস দূর করে
যেহেতু আপনি দিনে উপবাস থাকেন, তাই রমজান হচ্ছে বদ অভ্যাস চিরতরে দূর করার উপযুক্ত সময়। রমজানের সময় ধূমপান ও চিনিযুক্ত খাবার ভোজনের মতো বদ অভ্যাসগুলোকে প্রশ্রয় দেওয়া উচিত নয় এবং আপনি এসব থেকে বিরত থাকলে আপনার শরীর ধীরে ধীরে এদের অনুপস্থিতি মেনে নিতে সক্ষম হবে ও একসময় আপনার আসক্তি চিরতরে দূর হয়ে যাবে। আপনাকে বদ অভ্যাস থেকে দূরে রাখতে রোজার ক্ষমতার তাৎপর্য এতই যে যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস ধূমপান ত্যাগের জন্য একে আদর্শ সময় হিসেবে রিকমেন্ড করছে।

৪. কোলেস্টেরল হ্রাস করে
আমরা জানি যে রমজানের সময় রোজার একটি সম্ভাব্য ফলাফল হচ্ছে ওজন হ্রাস, কিন্তু রোজার অন্তরালে স্বাস্থ্যসম্মত পরিবর্তনও রয়েছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের কার্ডিওলজিস্টের একটি দল আবিষ্কার করেছেন যে, যেসব লোক রোজা রেখেছে তাদের লিপিড প্রোফাইলের ওপর ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে, যার মানে হচ্ছে রক্তে কোলেস্টেরল হ্রাস পেয়েছিল। নিম্ন কোলেস্টেরল কার্ডিওভাস্কুলার স্বাস্থ্য বৃদ্ধি করে এবং হৃদরোগ, হার্ট অ্যাটাক অথবা স্ট্রোকের ঝুঁকি হ্রাস করে। যদি আপনি রমজানের পর স্বাস্থ্যসম্মত ডায়েট অনুসরণ করেন, তাহলে এই নতুন নিম্ন কোলেস্টেরল মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা সহজ হবে।

৫. ক্ষুধা হ্রাস করে
চরম ফ্যাড ডায়েটের একটি অসুবিধা হলো, এ ডায়েট বন্ধ করলে ওজন দ্রুত ফিরে আসে, এমনকি সামান্য অতিরিক্ত কিছু খেলেও। রমজানের ক্ষেত্রে সাধারণত এমনটা ঘটে না। রোজার মাস জুড়ে খাবার খাওয়ার পরিমাণ কমানোর ফলে আপনার পাকস্থলী ধীরে ধীরে সংকুচিত হয়, যার মানে হচ্ছে- কম খেয়ে আপনার পেট ভরাতে পারবেন। যদি আপনি স্বাস্থ্যসম্মত ভোজনের অভ্যাস করতে চান, তাহলে তা শুরু করার জন্য রমজান হচ্ছে ভালো সময়। যখন রমজান শেষ হবে, আপনার ক্ষুধা পূর্বের চেয়ে কমে যাবে এবং অতিরিক্ত খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকা সহজ হবে।

৬. টক্সিন দূর করে
রোজা শুধুমাত্র আত্মার শুদ্ধতা নয়, শরীর থেকে বিষাক্ত বা অস্বাস্থ্যকর পদার্থ দূর করার জন্যও গুরুত্বপূর্ণ। রোজা শরীরের চমৎকার ডিটক্স হিসেবে কাজ করে। দিনে না খাওয়া বা পান না করার মাধ্যমে আপনার শরীর রমজান মাস জুড়ে আপনার ডাইজেস্টিভ সিস্টেমকে ডিটক্সিফাই করার বিরল সুযোগ পায়। যখন আপনার শরীর শক্তি সৃষ্টির জন্য সংরক্ষিত চর্বি খেতে শুরু করে, তখন এটি জমাকৃত চর্বির মধ্যে উপস্থিত থাকা যেকোনো ক্ষতিকর টক্সিনকেও পুড়িয়ে ফেলে। সুস্থ জীবনযাপনের জন্য শরীর থেকে টক্সিন বা বিষাক্ত পদার্থ দূর হওয়া গুরুত্বপূর্ণ।

৭. পুষ্টি শোষণ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে
রমজান মাসে না খাওয়ার দ্বারা আপনার মেটাবলিজম বা বিপাক আরো কার্যকরী হয়ে ওঠবে, যার মানে হচ্ছে- খাবার থেকে পুষ্টি শোষণ ক্ষমতা বেড়ে যাবে। এটি অ্যাডিপোনেকটিন নামক হরমোন বৃদ্ধির কারণে হয়ে থাকে। উপবাস এবং শেষ রাতে খাওয়ার সমন্বয়ে এ হরমোন উৎপাদন হয়, যা আপনার পেশীকে অধিক পুষ্টি শোষণের জন্য প্রভাবিত করে। এর ফলে সারা শরীর স্বাস্থ্য উপকারিতার আওতায় আসে। শরীরের বিভিন্ন অংশ ভালোভাবে পুষ্টি শোষণ করতে পারে বলে তারা প্রয়োজনীয় কার্যক্রমের সময় পুষ্টি ব্যবহার করতে পারে।

তথ্যসূত্র : রিয়েলবাজ



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ মে ২০১৮/ফিরোজ

Walton Laptop
 
   
Walton AC