ঢাকা, রবিবার, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১৮ নভেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

স্পার্ম কাউন্ট বাড়ানোর ৬ উপায়

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৬-২৪ ১:৫০:৪৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৬-২৪ ২:০০:০১ পিএম
প্রতীকী ছবি

এস এম গল্প ইকবাল : কোনো দম্পতির পরিবার শুরু করার প্রচেষ্টায় একটি কমন প্রতিবন্ধকতা হতে পারে পুরুষের বন্ধ্যাত্ব। প্রকৃতপক্ষে, যেসব দম্পতির কনসিভ করতে সমস্যা হয় তাদের মধ্যে এক-তৃতীয়াংশের সমস্যার প্রত্যক্ষ কারণ হচ্ছে, পুরুষের বন্ধ্যাত্ব।

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে এ সমস্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। ২০১৭ সালে হিউম্যান রিপ্রোডাকশন আপডেট জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণা অনুসারে, বিগত ৪০ বছরে পশ্চিমা দেশগুলোতে পুরুষের স্পার্ম কাউন্ট বা শুক্রাণু সংখ্যা ৫০ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। গবেষণা সহ-লেখক হ্যাগাই লেভিন বলেন, ‘যদি এই প্রবণতা চলতেই থাকে, তাহলে মানব জাতি একদিন বিলুপ্ত হয়ে যেতে পারে।’

স্পার্ম কাউন্ট বা শুক্রাণুর সংখ্যা হ্রাসের সঠিক কারণ নির্ণয় করা কঠিন হলেও বিজ্ঞানীরা ধারণা করছেন যে, অলস জীবনযাপন, স্থূলতা সমস্যা ও মদ্যপানের অভ্যাস এ সমস্যায় অবদান রাখতে পারে।

আপনি মনে করতে পারেন যে স্পার্ম কাউন্ট হচ্ছে পুরুষের উর্বরতার সর্বাধিক নির্ভরযোগ্য নির্দেশক, কিন্তু এটিই একমাত্র ফ্যাক্টর নয়। অন্য যা কিছু আপনার স্পার্ম বা শুক্রাণু শক্তিশালী ও স্বাস্থ্যবান কিনা নির্দেশ করে, তা হচ্ছে-

* কোয়ান্টিটি- আপনার বীর্যে কি পরিমাণে স্পার্ম আছে। যেসব পুরুষের প্রতি মিলিলিটার বীর্যে ১৫ মিলিয়নের কম স্পার্ম আছে তা লো স্পার্ম কাউন্ট বলে বিবেচিত হয়।

* মোটিলিটি বা শুক্রাণুর গতি- আপনার স্পার্ম ডিম্বকে ইমপ্লান্ট করার জন্য কত ভালোভাবে চলতে পারে।

* মরফোলজি- আপনার স্পার্মের আকার ও আকৃতি। স্বাভাবিক আকারের স্পার্মে ডিম্বাকৃতির মাথা ও লম্বা লেজ থাকে, যেখানে অস্বাভাবিক স্পার্মে বিকৃত মাথা ও বাঁকা লেজ বা অনেক লেজ থাকতে পারে।

আপনার স্পার্মের সার্বিক স্বাস্থ্যের উন্নয়ন ও গতি দ্রুত করতে বিজ্ঞান-সমর্থিত ৬টি পরামর্শ দেওয়া হলো।

* সঠিক খাবার খান
ফল ও শাকসবজি খাওয়ার অন্যতম কারণ হচ্ছে: যেসব পুরুষ অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট সমৃদ্ধ কৃষিজাত খাবার খায়, তাদের স্পার্মের ঘনত্ব উচ্চ হয়। ইউরোলজিস্ট আলী দাবাজা ম্যান’স হেলথ ডটকমকে বলেন, ‘স্পার্ম কোয়ালিটির ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে এমন একটি ফ্যাক্টর হচ্ছে অক্সিডেটিভ স্ট্রেস।’ অক্সিডেটিভ স্ট্রেস তখনই হয় যখন আমাদের শরীরে ফ্রি র‍্যাডিকেল নামক আনস্টেবল অ্যাটম বেশি হয়ে যায়। অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট এসব ক্ষতিকর পদার্থকে দমন করতে সাহায্য করে। ডা. দাবাজা দিনে কয়েকবার অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট সমৃদ্ধ খাবার খেতে পরামর্শ দিচ্ছেন, যেমন- বেরি ফল। আপনার ব্রেকফাস্টে ব্লুবেরি ফল রাখুন, কারণ এককাপ ব্লুবেরিতে ৯০১৯ অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট থাকে। অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টের অন্যান্য ভালো উৎস হচ্ছে আলুবোখারা, ব্ল্যাকবেরি ও আঙুর। ডা. দাবাজা পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন ই গ্রহণেরও পরামর্শ দিচ্ছেন। গবেষণায় পাওয়া গেছে যে, ভিটামিন সি এবং ইও স্পার্মের গঠন উন্নত করতে পারে। ভিটামিন ই গ্রহণের জন্য পরামর্শকৃত অ্যাডাল্ট ডোজ হচ্ছে দিনে ১৫ মিলিগ্রাম।

* অ্যালকোহল সেবন সীমিত করুন
হ্যাপি আওয়ার ও ডিনারে অ্যালকোহল সেবন করবেন কিনা পুনরায় বিবেচনা করুন। ডা. দাবাজা বলেন, ‘অ্যালকোহল স্পার্মের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে।’ কতটুকু অ্যালকোহল অত্যধিক হবে? ডা. দাবাজার মতে, সপ্তাহে ১০-১৫ ড্রিংকের বেশি। তিনি বলেন, পুরুষদের স্পার্ম কাউন্ট বুস্টিং প্রচেষ্টার ক্ষেত্রে সপ্তাহে তিন থেকে পাঁচ ড্রিংকের বেশি অ্যালকোহল সেবন করা উচিত নয়।

* ওজন নিয়ন্ত্রণ করুন
গতবছর প্রকাশিত একটি গবেষণায় পাওয়া যায়, অতিরিক্ত ওজন বা স্থূল পুরুষদের নিম্ন বিএমআই (বডি মাস ইনডেক্স) থাকা পুরুষদের তুলনায় স্পার্ম কাউন্ট ও মোটিলিটি কম ছিল। ডা. দাবাজা জোর দিয়ে বলেন, ‘যদি আপনার শরীরে প্রচুর চর্বি থাকে, তাহলে আপনার শরীরে প্রচুর অক্সিডেটিভ স্ট্রেস হবে।’ তিনি রোগীদেরকে স্লিম থাকার জন্য নিয়মিত ব্যায়াম করতে পরামর্শ দেন।

* হট বাথ পরিহার করুন
ডা. দাবাজা সতর্ক করেন, ‘হট টাবের উচ্চ তাপমাত্রা আপনার অণ্ডকোষের তাপমাত্রা বৃদ্ধি করতে পারে, যা স্পার্ম হ্রাস করতে পারে।’ ২০১৩ সালের একটি গবেষণায় পাওয়া যায়, যারা সপ্তাহে দুইবার হট টাব ব্যবহার করেছে তাদের স্পার্ম কাউন্ট ও মোটিলিটি হ্রাস পেয়েছে।

* টাইট অন্তর্বাস বর্জন করুন
টাইট অন্তর্বাস ও প্যান্ট পরিধান আপনার অণ্ডকোষকে অতিরিক্ত উত্তপ্ত করতে পারে। ডা. দাবাজা বলেন, ‘যদি আপনি এমন অন্তর্বাস পরেন যা আপনার অণ্ডকোষকে শরীরের সঙ্গে চেপে রাখে, তাহলে আপনার অণ্ডকোষীয় তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাবে।’ লুজ বক্সার অথবা ময়েশ্চার-উইকিং কিংবা বক্সার ব্রিফ বেছে নিতে পারেন।

* আকুপাংচার করুন
স্পার্ম কোয়ালিটির ওপর আকুপাংচারের প্রত্যক্ষ প্রভাব নেই; কিন্তু গবেষণায় পাওয়া গেছে যে এটি স্ট্রেস বা মানসিক চাপ হ্রাস করে, যা স্পার্ম কাউন্টের জন্য সহায়ক। ২০১৭ সালে গবেষকরা আবিষ্কার করেছেন যে, উচ্চ স্ট্রেস লেভেলের পুরুষদের নিম্ন স্ট্রেস লেভেলের পুরুষদের তুলনায় স্পার্ম কাউন্ট ও মোটিলিটি কম ছিল। ডা. দাবাজার মতে, ‘সুস্থ শরীর=সুস্থ স্পার্ম।’

তথ্যসূত্র : ম্যান’স হেলথ



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৪ জুন ২০১৮/ফিরোজ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC