ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ আশ্বিন ১৪২৫, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

যেসব স্কুলসামগ্রী শিশুকে অসুস্থ করতে পারে

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৯-১০ ৭:৫৮:০০ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৯-১০ ১১:৪৩:০৫ এএম
প্রতীকী ছবি

এস এম গল্প ইকবাল : ভালো উদ্দেশ্যে আপনি আপনার বাচ্চার স্কুল ব্যাগে প্রয়োজনীয় নানা কিছু দিয়ে থাকেন। সেই সেগুলো ক্ষতিকর বা ঝুঁকিপূর্ণ কিনা সে সম্পর্কে কি আপনি সচেতন? এ প্রতিবেদনে পিতামাতাদের স্কুল জিনিসপত্র সম্পর্কে যা জানা উচিত তা দেওয়া হলো।

* বাচ্চার প্রোডাক্টের ভালোমন্দ সম্পর্কে জানুন
পিতা বা মাতা হিসেবে আপনি ধারণা করেন যে, বাচ্চাদের জন্য তৈরিকৃত স্কুল সাপ্লাই তাদের ব্যবহারের জন্য নিরাপদ। কিন্তু ইউ.এস. পাবলিক ইন্টারেস্ট রিসার্চ গ্রুপ (ইউ. এস. পিআইআরজি) অন্যকিছু ইঙ্গিত দিচ্ছে। কনজ্যুমারস সেফটি ডট অর্গের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা ইনভেস্টিগেটর মর্গান স্ট্যাট বলেন, ‘আমরা আমাদের সন্তানকে স্কুলের জন্য যেসব প্রোডাক্ট দিই তাদের অনেক প্রোডাক্টে ক্ষতিকর কেমিক্যাল (যেমন- প্যাথালেটস, অ্যাসবেস্টস, বেনজিন ও সিসা) থাকে বলে গবেষণায় পাওয়া গেছে।’ তিনি বলেন, ‘এসব ঝুঁকিপূর্ণ প্রোডাক্টের দীর্ঘমেয়াদী ব্যবহার বিভিন্ন অসুস্থতার (যেমন- ক্যানসার, বিকাশগত সমস্যা ও নিউরোটক্সিসিটি) দিকে নিয়ে যাবে।’ এমনকি এসব জিনিসের স্বল্পমেয়াদী ব্যবহারে মাথাব্যথা, পাকস্থলির ক্র্যাম্প ও মাংসপেশী ব্যথা হতে পারে।

তাই বাচ্চাদের জন্য কোনো জিনিস কেনার পূর্বে রিসার্চ করে কেনা গুরুত্বপূর্ণ।

* ব্যাকপ্যাক
ব্রাঞ্চ বেসিকস অ্যান্ড ডায়েটারি অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল কনসালটেন্টের সহ-প্রতিষ্ঠাতা এবং মেটারিয়াল বিশেষজ্ঞ মেরিলি নেলসন ব্যাকপ্যাক প্রসঙ্গে পিতামাতাদেরকে পরামর্শ দেন যে, ভিনাইল অথবা পলিভিনাইল ক্লোরাই বা পিভিসি (কিংবা রিসাইকেল নম্বর ৩) আছে এমন ব্যাকপ্যাক কেনা থেকে বিরত থাকা উচিত। তিনি বলেন, ‘চকচকে ব্যাকপ্যাক সাধারণত ভিনাইল দিয়ে তৈরি করা হয় এবং এতে পিভিসি, লিড ও উচ্চমাত্রায় প্যাথালেটস থাকতে পারে।’ প্যাথালেটস অ্যাজমা, ডায়াবেটিস ও ওবেসিটির মতো মেটাবলিক ডিসঅর্ডার, এন্ডোক্রাইন সমস্যা এবং আরো কিছুর সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। ব্যাকপ্যাক কেনার ক্ষেত্রে তিনি প্রাকৃতিক তন্তু (যেমন- কটন, লিনেন, হেম্প বা ক্যানভাস) দিয়ে তৈরিকৃত ব্যাকপ্যাপ কিনতে পরামর্শ দিচ্ছেন।

* প্লাস্টিকের টিফিন বক্স
অনেক প্লাস্টিক টিফিন বক্স (এমনকি শিশুদের স্পেশাল টিফিন বক্সও) ভিনাইল প্লাস্টিক দিয়ে তৈরি করা হয়, যেখানে প্যাথালেটস থাকে। এই গ্রুপের কেমিক্যাল উৎপাদনের সুবিধার্থে প্লাস্টিকের নমনীয়তা বৃদ্ধি করে, কিন্তু এটির সঙ্গে অনেক স্বাস্থ্য ঝুঁকির সম্পর্ক আছে যেমন- অ্যাজমা, লো আইকিউ, অল্টারড রিপ্রোডাক্টিভ ডেভেলপমেন্ট ও ডায়াবেটিস, বলেন স্ট্যাট। শিশুরা যখন প্যাথালেটস সমৃদ্ধ টিফিন বক্সে রাখা খাবার খায় কিংবা পানীয় পান করে, তখন প্যাথালেটস শরীরে প্রবেশ করতে পারে।

* থ্রি-রিং বাইন্ডার্স
অনেক থ্রি-রিং বাইন্ডার্স খাতা তৈরি করতে প্যাথালেটস ব্যবহার করা হয়। স্ট্যাট সতর্ক করেন, ‘প্যাথালেট কণাযুক্ত ডাস্ট শ্বসনে প্যাথালেট এক্সপোজ হতে পারে, শিশুরা বিশেষ ঝুঁকিতে থাকে- কারণ হচ্ছে তাদের হ্যান্ড-টু-মাউথ অভ্যাস (মুখে হাত দেওয়ার অভ্যাস)।’ স্ট্যাট অধিক টেকসই মেটারিয়াল (যেমন- হার্ভেস্টেড উড, ক্লথ ও রিসাইকেলড কাবার্ড) দিয়ে তৈরিকৃত খাতা বেছে নিতে বলছেন। যদি আপনি কোনো প্রোডাক্টে প্যাথালেটস আছে কিনা তা সম্পর্কে নিশ্চিত না থাকেন তাহলে প্রোডাক্টের ভেতরে ইউনিভার্সাল রিসাইক্লিং সিম্বল ‘৩’ বা ‘ভি’ আছে কিনা দেখুন, এটি নির্দেশ করে যে প্রোডাক্টটি পিভিসি দিয়ে তৈরি।

* পেপার ও নোটবুক
নেলসন যথাসম্ভব ক্লোরিন-ব্লিচড পেপার প্রোডাক্টস পরিহার করতে পরামর্শ দিচ্ছেন। তিনি বলেন, ‘এটি পরিবেশগত বিষয়- পেপার মিল ক্লোরিন ব্যবহার করে এবং ট্রিলিয়ন ট্রিলিয়ন গ্যালন ওয়াস্টওয়াটার রিলিজ করে বায়ু, পানি ও পরিবেশকে দূষিত করে। যদি সম্ভব হয় আনব্লিচড, প্রসেসড ক্লোরিন ফ্রি (পিসিএফ) এবং পোস্ট-কনজ্যুমার ওয়াস্ট রিসাইকেলড কন্টেন্টের পেপার প্রোডাক্টস বেছে নিন।’

* রঙ পেন্সিল
স্ট্যাট বলেন, ‘ইউ. এস. পিআইআরজি সম্প্রতি এটা নিশ্চিত করেছে যে কিছু রঙ পেন্সিল ব্র্যান্ডে অ্যাসবেস্টস থাকে, একটি ফাইব্রাস মিনারেল- যা এক্সপোজের সঙ্গে মেসোথেলিয়োমা এবং ফুসফুস ক্যানসারের সংযোগ রয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘রঙ পেন্সিল তৈরিতে অ্যাসবেস্টস ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হলেও বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে এই টক্সিনের সঙ্গে শিশুদের এক্সপোজ করা অপ্রয়োজনীয়।’ লেবেলে ‘এপি’ চেক করে প্রোডাক্ট কিনুন, এপি’র মানে হচ্ছে প্রোডাক্টটি নন-টক্সিক। এটি না দেখলে প্রোডাক্টে ‘চিলড্রেন’স প্রোডাক্ট সার্টিফিকেট’ আছে কিনা দেখুন, এর মানে হচ্ছে প্রোডাক্টটি নিরাপত্তার জন্য থার্ড-পার্টি টেস্টিং হয়েছে।

* মার্কার
মার্কেটে বিক্রয় হওয়া অনেক মার্কারে সম্ভাব্য কার্সিনোজেন বেনজিন থাকে, যার সঙ্গে লিউকেমিয়া এবং কিডনি ও যকৃত ড্যামেজের সম্পর্ক পাওয়া গেছে। ইউ. এস. পিআইআরজি গবেষণায় পেয়েছে যে, মার্কারে উপস্থিত বেনজিন বিপজ্জনক। স্বল্পমেয়াদী ব্যবহারের সম্ভাব্য উপসর্গ হচ্ছে মাথাঘোরা, মাথাব্যথা এবং নিদ্রালুতা। রঙ পেন্সিলের মতো মার্কারের ক্ষেত্রেও ‘এপি’ লেবেল চেক করুন অথবা ‘চিলড্রেন’স প্রোডাক্ট সার্টিফিকেট’ আছে কিনা দেখুন।

* পানির বোতল
প্লাস্টিকের পানির বোতলে ক্ষতিকর সিসা থাকে- সিসার সম্ভাব্য ঝুঁকি হচ্ছে শিশুর বিকাশগত সমস্যা, রক্তস্বল্পতা এবং কার্ডিওভাস্কুলার সমস্যা। স্ট্যাট পিতামাতাদেরকে প্যাথালেটস অথবা বিসফেনল-এ (বিপিএ) আছে এমন পুনর্ব্যবহারযোগ্য পানির বোতল কেনা থেকেও বিরত থাকতে পরামর্শ দিচ্ছেন, কারণ এসবের সঙ্গেও স্বাস্থ্য ঝুঁকি সম্পর্কযুক্ত।

* ড্রয়িং সামগ্রী
আঁকাআঁকির জিনিসপত্রেও ক্ষতিকর কেমিক্যাল থাকে। নেলসন ‘সিএল’ (কশনারি লেবেল) থাকা প্রোডাক্টও পরিহার করতে বলছেন- সিএল নির্দেশ করে যে প্রোডাক্টে ক্ষতিকর উপাদান আছে। তিনি এর পরিবর্তে ‘এপি’ (অ্যাপ্রোভড প্রোডাক্ট), সিপি (সার্টিফায়েড প্রোডাক্ট) অথবা এইচএল (হেলথ লেবেল) থাকা প্রোডাক্ট বেছে নিতে পরামর্শ দিচ্ছেন। কিন্তু এসব লেবেল এই গ্যারান্টি দেয় না যে প্রোডাক্টটি সম্পূর্ণরূপে ক্ষতিকর কেমিক্যালমুক্ত।

তথ্যসূ্ত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮/ফিরোজ

Walton Laptop
 
     
Walton