ঢাকা, সোমবার, ১১ আষাঢ় ১৪২৫, ২৫ জুন ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

সুন্দরবনে অপহরণ ও মুক্তিপণ আদায়ের ঘটনা বেড়েছে

এম.শাহীন গোলদার : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০৫-১৬ ১২:০৪:৩৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৫-১৬ ১২:০৪:৩৫ পিএম

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা: সুন্দরবনে ফের অপহরণ ও মুক্তিপণ আদায়ের ঘটনা বেড়েছে। সুন্দবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জে দুইদিনের ব্যবধানে ১৩ জেলে অপহৃত হয়েছে।

অপরদিকে মুক্তিপণ দিয়ে ফিরে এসেছে আগের অপহৃত হওয়া দুইজন। এরা হলেন, মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের চুনকুড়ি গ্রামের অছির উদ্দীন গাজীর ছেলে রবিউল ইসলাম ও  দক্ষিণ কদমতলা গ্রামের নুর ইসলাম মোল্যার ছেলে আব্দুল্লাহ।

সর্বশেষ গত সোমবার সুন্দবনের চালতেবাড়িয়া খালে কাঁকড়া শিকারের সময় বনদস্যু কাজল বাহিনীর সদস্যরা ৬ জেলেকে অপহরণ করে।

অপহৃত জেলেরা হলেন, শ্যামনগর উপজেলার মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের সিংহরতলী গ্রামের হোসেন গাজীর ছেলে আব্দুল মজিদ গাজী (৩৩), একই গ্রামের মৃত এন্তাজ গাজীর ছেলে সৈয়দ আলী গাজী (৪০), অনিল ভাঙীর ছেলে বাসুরাম ভাঙী (৩৯), দায়ুত গাজীর ছেলে লিয়াকত গাজী (৪৫), মফিজুল ইসলাম (৩৫) ও ফজলু গাজীর ছেলে সোহাগ হোসেন (২৫)।  কাজল বাহিনী তাদের থেকে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

এর আগের দিন রোববার বনদস্যু কাজল বাহিনীর সদস্যরা সাতক্ষীরা রেঞ্জের মালঞ্চ নদী সংলগ্ন আড়েরদুন খাল থেকে কাঁকড়া শিকার কালে ৭ জেলেকে অপহরণ করে। তাদের কাছে জনপ্রতি ৫০ হাজার টাকা করে মুক্তিপণ চাওয়া হয়।

অপহৃত জেলেরা হলেন-শ্যামনগর উপজেলার মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের মথুরাপুর গ্রামের মোন্তেজ গাজীর ছেলে রাশেদুল ইসলাম(২৮), একই গ্রামের দেবেন সানার ছেলে বিশ্বনাথ সানা (২৮), মনোরঞ্জন মন্ডলের ছেলে বিশ্ব মন্ডল (২০), সুজীর মন্ডলের ছেলে জয়দেব মন্ডল (২৫), ফকির মন্ডলের ছেলে পরিতোষ মন্ডল (২৪), মেহের আলী গাজীর ছেলে মাছুম গাজী (২৩) ও দক্ষিণ কদমতলা এলাকার ফনিন্দ্র নাথ মন্ডলের ছেলে রমেশ মন্ডল (২০)।

উল্লেখ্য, এ বছরের শুরুতে ১৯ জানুয়ারি সাতক্ষীরা রেঞ্জের পাকড়াতলা খাল থেকে  বনদস্যু ডন বাহিনীর সদস্যরা তিন লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবিতে চার জেলেকে অপহরণ করে ।৫ ফেব্রুয়ারি ডন বাহিনী । সাতক্ষীরা রেঞ্জের কালিরচর এলাকা থেকে মাথাপিছু ৩০ হাজার টাকা করে মুক্তিপণ দাবিতে ছয় জেলেকে অপহরণ করে। ৩০ এপ্রিল সাতক্ষীরা রেঞ্জের চুনকুড়ি খাল থেকে আড়াই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবিতে ৪ জেলেকে অপহরণ করে বনদস্যু জাকির বাহিনী।




রাইজিংবিডি/সাতক্ষীরা/১৬ মে ২০১৮/এম.শাহীন গোলদার/টিপু

Walton Laptop
 
   
Walton AC