ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ কার্তিক ১৪২৪, ১৭ অক্টোবর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

প্রযুক্তি বিষয়ক স্টার্টআপের খোঁজে সিডস্টারস ওয়ার্ল্ড

মনিরুল হক ফিরোজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৯-১৯ ৫:২৫:১৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৯-১৯ ৫:৩১:১০ পিএম

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : সিডস্টারসের রিজিওনাল ও গ্লোবাল সামিটে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করার পাশাপাশি, মূলধন বিনিয়োগ হিসেবে সর্বোচ্চ ১০ লাখ মার্কিন ডলার জিতে নিতে আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর গ্রামীণফোন অ্যাকসেলেরেটরের পৃষ্ঠপোষকতায় ধারণা উপস্থাপন অনুষ্ঠানে দেশের সবচেয়ে প্রতিশ্রুতিশীল সিড স্টেজ স্টার্টআপগুলো নিজেদের ব্যবসায়িক ধারণা নিয়ে প্রতিযোগিতা করবে।

আজ রাজধানীর কাওরান বাজারের জনতা টাওয়ারে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিশ্বজুড়ে উদীয়মান বাজার এবং স্টার্টআপ সম্প্রসারণে বৈশ্বিক সিড স্টেজ স্টার্টআপ প্রতিযোগিতা সিডস্টারস ওয়ার্ল্ডের বাংলাদেশ অংশ সিডস্টারস ঢাকার ঘোষণা করা হয়েছে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব সুশান্ত কুমার সাহা সংবাদ সম্মেলন সভাপতিত্ব করেন। অনুষ্ঠানে সিডস্টারস ওয়ার্ল্ড থেকে উপস্থিত ছিলেন আদ্রিয়ানা কলিনি এবং ওজি কেলা, গ্রামীণফোন লিমিটেড থেকে উপস্থিত ছিলেন কাজী মাহবুব হাসান, লঙ্কা বাংলা ফাইন্যান্স থেকে উপস্থিত ছিলেন খুরশেদ আলম, সিভিসিএফএল থেকে উপস্থিত ছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান, জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেড থেকে উপস্থিত ছিলেন প্রিন্স মজুমদার এবং সোচিয়ান লিমিটেড থেকে উপস্থিত ছিলেন তানভীর সৌরভ।

সিডস্টারস ঢাকার পৃষ্ঠপোষকতায় রয়েছে জিপি অ্যাকসেলেরেটর এবং এর মূল স্পন্সর হিসেবে আছে লঙ্কা বাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড। এ আয়োজনের সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং সিডস্টারসের সিলভার স্পন্সর হিসেবে রয়েছে জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেড। এছাড়াও, সিডস্টারস ওয়ার্ল্ড এর লোকাল অ্যাম্বাসেডর সোচিয়ানের তানভীর সৌরভ কাজ করছেন। এ আয়োজনে আরো সহায়তা দিচ্ছে আমরা টেকনোলজিস, ইএমকে সেন্টার ও বেটারস্টোরিজ লিমিটেড।

সিডস্টারস ওয়ার্ল্ডের ধারণা উপস্থাপনকারী অনুষ্ঠানটি গ্রামীণফোনের প্রধান কার্যালয় জিপি হাউজে আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে।

সিডস্টারস ওয়ার্ল্ড, এর মিশনের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে দেশের সেরা সিড-স্টেজ উদ্যোক্তাদের খুঁজে পেতে, তাদেরকে সর্বোচ্চ ১০ লাখ মার্কিন ডলার পর্যন্ত জিতে নেয়ার সুযোগ করে দিতে পাশাপাশি, তাদের সঙ্গে সারাবিশ্বের বিনিয়োগকারী প্রশিক্ষকদের সঙ্গে নেটওয়ার্ক স্থাপনে এ বছর ৭৫টির বেশি দেশে কাজ করছে। সিডস্টারসের পূর্ববর্তী অংশগ্রহণকারীরা যৌথভাবে ৬১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ পেয়েছে এবং এর মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে ৯শ’ মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ হয়েছে। 

২ বছরের কম বয়সি প্রতিষ্ঠান যারা এখন পর্যন্ত ৫০ হাজার মার্কিন ডলারের কম আর্থিক অনুদান জোগাড় করতে পেরেছে এবং যাদের নিজেদের সেবা রয়েছে, সেসব প্রতিষ্ঠানই ‘সিডস্টারস ঢাকা ২০১৭’ – এ নিজেদের ধারণা উপস্থাপনের জন্য নির্বাচিত হবে। এক্ষেত্রে, সিডস্টারস ওয়ার্ল্ড টিমের আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক পর্যায়ে স্টার্টআপগুলোর নিজেদের মানানসই করে তোলার বিশেষ মানদণ্ড রয়েছে।

সিডস্টারস ওয়ার্ল্ডের এশিয়ার রিজিওনাল অ্যাসোসিয়েট আদ্রিয়ানা কলিনি বলেন, ‘সিডস্টারস ওয়ার্ল্ড নতুন প্রজন্মের উদ্যোক্তাদের সঙ্গে বিনিয়োগকারীদের সংযোগ স্থাপনের প্ল্যাটফর্ম। এটা সিলিকন ভ্যালি ও পশ্চিম ইউরোপের স্পটলাইটকে এখানে নিয়ে আসছে। আমরা ধারাবাহিকভাবে লক্ষ্য করেছি, বাংলাদেশ থেকে উদ্ভাবনী সব স্টার্টআপ উঠে আসছে। এ বছর এখানকার ইকোসিস্টেমে আমরা যৌথভাবে কি করতে পারি, এটা নিয়ে আমরা রোমাঞ্চিত।’

সিডস্টারস ঢাকাকে স্বাগত জানিয়ে গ্রামীণফোনের হেড অব ট্রান্সফরমেশন কাজী মাহবুব হাসান বলেন, ‘সিডস্টারস ঢাকা ২০১৭ পৃষ্ঠপোষকতা করতে পেরে জিপি অ্যাকসেলেরেটর রোমাঞ্চিত। যুগান্তকারী ও প্রেক্ষাপট পরিবর্তন করতে পারে এমন সব ধারণা নিয়ে বাংলাদেশ থেকে প্রতিভাবান সব উদ্যোক্তা উঠে আসছে। এ বছর বাংলাদেশের একটি স্টার্টআপের সিডস্টারস গ্লোবালে বিজয়ী হওয়া নিয়ে আমরা আশাবাদী।’

বাংলাদেশের স্টার্টআপ ইকোসিস্টেমের ক্ষমতায়ন নিয়ে লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্সের হেড অব পার্সোনাল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস খুরশেদ আলম বলেন, ‘বাংলাদেশে প্রতিশ্রুতিশীল সব তরুণ রয়েছে। তাদের সক্ষমতা রয়েছে নতুন সব ধারণা দিয়ে সমাজ ও অর্থনীতিতে দীর্ঘস্থায়ী এবং ইতিবাচক প্রভাব ফেলার। গত কয়েক বছরে এটা আমরা প্রত্যক্ষ করেছি।’

সিডস্টারর্সের বাংলাদেশ পর্বে নিজেদের ধারণা উপস্থানের জন্য আটটি স্টার্টআপকে নির্বাচিত করা হবে। এর মধ্যে বিজয়ী স্টার্টআপ ব্যাংককে অনুষ্ঠিতব্য সিডস্টার এশিয়ার রিজিওনাল সামিট এবং সুইজারল্যান্ডে সিডস্টারের গ্লোবাল সামিটে সকল ব্যয়ভারসহ অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে। বৈশ্বিক এ সামিটে ৭৫টির বেশি দেশ থেকে অংশগ্রহণকারী স্টার্টআপগুলো আন্তর্জাতিক বিনিয়োগকারী ও প্রশিক্ষকদের সঙ্গে সাক্ষাতের সুযোগ পাবেন। পাশাপাশি, বৈশ্বিক এ প্ল্যাটফর্মে নিজেদের ব্যবসায়িক ধারণার উপস্থাপনের মাধ্যমে তাদের সুযোগ থাকছে মূলধন বিনিয়োগ হিসেবে সর্বোচ্চ ১০ লাখ মার্কিন ডলারসহ আরো অনেক পুরস্কার জিতে নেয়ার।

যেসব স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠাতারা ২৩ সেপ্টেম্বরে নিজেদের ব্যবসায়িক ধারণার উপস্থাপন করতে আগ্রহী তাদেরকে ২০ সেপ্টেম্বরের আগে সিডস্টার ঢাকার ওয়েবসাইট seedsta.rs/Dhaka2017 এ গিয়ে আবেদন করতে হবে। নির্বাচিত আটটি স্টার্টআপ স্থানীয়ভাবে শীর্ষ পর্যায়ের বিষয় সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞদের সামনে ইংরেজিতে পাঁচ মিনিটে নিজেদের ব্যবসায়িক ধারণার উপস্থাপন করবেন। যে কারো সুযোগ রয়েছে এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার। তবে সেক্ষেত্রেও, সিডস্টারস ঢাকার ওয়েবসাইটে গিয়ে নিবন্ধন করে নিতে হবে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭/ফিরোজ

Walton
 
   
Marcel