ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

দেশের শীর্ষ মিউজিক অ্যাপ ‘ইয়োন্ডার মিউজিক’

মনিরুল হক ফিরোজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১১-২২ ৪:৪৩:১৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১১-২২ ৪:৪৩:১৭ পিএম

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : অ্যাপ র‌্যাংকিং সাইট ‘অ্যাপ অ্যানি’ বাংলাদেশের মিউজিক্যাল অ্যাপ রবি-এয়ারটেল ‘ইয়োন্ডার মিউজিক’কে বাংলাদেশের অনলাইন মিউজিক অ্যাপের মধ্যে ১ নম্বর স্থানে রেখেছে।

সাবস্ক্রাইবার ও ভিউজের ভিত্তিতে এই র‌্যাংকিং সম্পন্ন হয়েছে। ৭৫০০০০ সাবস্ক্রাইবার এবং ১০ কোটি মিউজিক স্ট্রিম নিয়ে ইয়োন্ডার মিউজিক তার ১ নম্বার স্থান ধরে রেখেছে।

এই মর্যাদাপূর্ণ স্বীকৃতির জন্য ইয়োন্ডার মিউজিক অ্যাপ তাদের নতুন ক্যাম্পেইন ‘নো মানি ফর মিউজিক’ এর ঘোষণা দিয়েছে। এই ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে শ্রোতারা এখন ইন্টারনেট চার্জ ছাড়াই গান শুনতে পারবেন।

ইয়োন্ডার মিউজিক অ্যাপের মাধ্যমে স্থানীয় শিল্পীদের সর্বশেষ গানের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক শিল্পীদের সর্বশেষ গান স্ট্রিম করা যায়। আশি নব্বই দশকের শ্রুতিমধুর গান থেকে শুরু করে ইযোন্ডার মিউজিক সর্বশেষ এবং ট্রেন্ডি স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক গানের খবর পরিবেশন করে।

২০ মিলিয়নের বেশি সংগীতের অনন্য এই প্ল্যাটফর্মে প্রবেশের সুযোগ করে দেয় ইয়োন্ডার মিউজিক তাদের সাবস্ক্রাইবার বা গ্রাহকদের জন্য। এই অ্যাপের সবচেয়ে ভালো বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, ডাটা চার্জ ও সাবস্ক্রিপশন বিনামূল্যে উপভোগ করা যায়।

এই গৌরব অর্জন সম্পর্কে রবির বিজনেস অপারেশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাহবুবুল আলম ভূঁইয়া বলেন,    ‘আন্তর্জাতিক ভাবে প্রশংসিত অ্যাপ অ্যানি বাংলাদেশের অনলাইন মিউজিক অ্যাপের মধ্যে ইয়োন্ডার মিউজিককে এক নম্বর স্থানে ঘোষণা করা, অত্যন্ত গর্বের একটি বিষয়। পরবর্তী প্রজন্মের জন্য ডিজিটাল কোম্পানিতে পরিণত হওয়ার অন্যতম ধাপের মধ্যে এটি অন্যতম চালিকাশক্তি হিসেবে কাজ করবে। চার কোটির বেশি রবি ও এয়ারটেল ব্র্যান্ডের সাবস্ক্রাইবারদের সঙ্গে আমরা এই আনন্দ ভাগাভাগি করে নেওয়ার উদ্দেশ্যে এই মিউজিক অ্যাপে সংগীতের আনন্দ বিনামূল্যে সরবরাহ করে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। অর্থাৎ, রবি ও এয়ারটেল গ্রাহকরা বিনামূল্যে ইয়োন্ডার মিউজিক উপভোগ করতে পারবেন।’ 

ইয়োন্ডার মিউজিকের কান্ট্রি ম্যানেজার নভেরা নূর বলেন, ‘ইয়োন্ডার মিউজিকের উদ্দেশ্য হচ্ছে, সবার কাছে মানসম্পন্ন বিনোদন পৌঁছে দেওয়া এবং রবি ও এয়ারটেলের সঙ্গে আমাদের এই অংশীদারিত্ব আমাদের লক্ষ্যে পৌঁছানোতে সহযোগিতা করেছে। আমাদের সাবস্ক্রাইবারদের জন্য সংগীত প্রযোজনা ও প্রকাশ করা ছাড়াও আমরা শিল্পী, প্রযোজক ও চ্যানেলদের সাফল্য অর্জনে এবং আরো মানসম্পন্ন সংগীত প্রযোজনা করতে সহযোগিতা করতে পারি। আমাদের ডিজিটাল অর্থনীতিতে স্ট্রিমিং প্রভাব বিস্তার করা শুরু করেছে এবং অতি শিগগির গান শোনার আগের নিয়ম বদলে যাবে।’



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২২ নভেম্বর ২০১৭/ফিরোজ

Walton
 
   
Marcel