ঢাকা, সোমবার, ৬ কার্তিক ১৪২৫, ২২ অক্টোবর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

শুরু হচ্ছে নাসা স্পেস অ্যাপস প্রতিযোগিতা

মনিরুল হক ফিরোজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-১০-০৯ ৮:২৫:১০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১০-০৯ ৮:২৫:১০ পিএম

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান নাসা আয়োজিত বিশ্বের অন্যতম হ্যাকাথন প্রতিযোগিতা ‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’। বিশ্বের ২৫০টি শহরে এ প্রতিযোগিতা হবে। বাংলাদেশেও এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশে নাসার এই প্রতিযোগিতার আয়োজক হিসেবে কাজ করছে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস)। বেসিস স্টুডেন্টস ফোরামের সহযোগিতায় বাংলাদেশে বেসিস টানা চতুর্থবারের মতো এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে যাচ্ছে।

দেশের ৯টি শহরে (ঢাকা, চট্রগ্রাম সিলেট, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, রংপুর, ময়মনসিংহ এবং কুমিল্লা) এ প্রতিযোগিতা আয়োজিত হবে। নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জে এবার ৫০ লাখ শিক্ষার্থীদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যুক্ত করার পাশাপাশি ১ লাখ শিক্ষার্থীদের সরাসরি এ প্রতিযোগিতায় যুক্ত করার পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে।

নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৮ সম্পর্কে বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর বলেন, ‘টেকনোলজিস্ট, বৈজ্ঞানিক, ডিজাইনার, আর্টিস্ট, এডুকেটর, উদ্যোক্তা সহ সবার অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার মাধ্যমে পৃথিবীর বিভিন্ন বৈশ্বিক সমস্যা সমাধানে ইনোভেটিভ সমাধান খুঁজে বের করাই হল এর মূল লক্ষ্য। যে কেউ বাংলাদেশ থেকে এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। নাসা কর্তৃক প্রদত্ত নিয়ম অনুসরণের মাধ্যমে বাছাই প্রক্রিয়া পরিচালিত হবে।’

নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৮ এর আহবায়ক দিদারুল আলম বলেন, ‘গত বছর বাংলাদেশকে মোট ৮টি জোনে বিভক্ত করে ৪৫৩টি আবেদন গ্রহণ করা হয় যার মধ্য থেকে ১৩১টি প্রকল্প বাছাইয়ের জন্য মনোনীত করা হয়। প্রতিযোগিতায় সারা বাংলাদেশ থেকে ৫০টি দলের হ্যাকাথনের মধ্য দিয়ে সর্বমোট ১১টি সেরা প্রজেক্টকে নাসা’র নিয়মানুযায়ী মনোনীত করা হয়। এর মধ্যে ২টি প্রকল্প Global People's Choice Finalists হিসেবে সম্মান অর্জন করে। এবার আমরা আরো বেশি কিছু অর্জন করার জন্য প্রস্তুত।’

নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ এর যুগ্ম আহবায়ক আরিফুল হাসান অপু বলেন, ‘মহাকাশ এর বিভিন্ন সমস্যার বাইরে জলবায়ু, আগ্নেয়গিরি, মঙ্গলগ্রহ সহ ৬টি ক্যাটাগরির অধীনে মোট ২০টি সাব ক্যাটাগরিতে এবার হ্যাকাথন অনুষ্ঠিত হবে। ক্যাটাগরি ভিত্তিক এসব সমস্যা সমাধানে কাজ করবে আমাদের তরুণ বিজ্ঞানীরা। গত ৪ বছরের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের অবস্থান এখন অনেক ভালো, আশা করছি ২০১৮ তে আমাদের অবস্থান আরো সুদৃঢ় হবে।’

নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৮-তে অংশগ্রহণের জন্যে রেজিস্ট্রেশন চলছে।

রেজিস্ট্রেশনের জন্য ভিজিট: http://bit.ly/NASA_Space_Apps_Challenge_2018_BD



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৯ অক্টোবর ২০১৮/ফিরোজ

Walton Laptop
 
     
Walton