ঢাকা, সোমবার, ৪ আষাঢ় ১৪২৬, ১৭ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

লাইভ ভিডিও প্রাধান্য দিয়ে স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি এ সিরিজ

মনিরুল হক ফিরোজ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৪-২০ ৮:২৫:৪৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৪-২০ ৮:২৫:৪৮ পিএম
Walton AC 10% Discount

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : প্রযুক্তির পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে এর ব্যবহারের পরিবর্তনও লক্ষ্যনীয়। এটি সবচেয়ে বেশি দেখা যায় স্মার্টফোন ব্যবহারের ক্ষেত্রে। আগে মানুষ স্মার্টফোনে ছবি তোলা যায় এটি নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতো। প্রতিনিয়ত তা পরিবর্তিত হয়ে কখনও গান শোনা, কখনও গেম খেলা, কখনও ভিডিও ক্যাপচার করা, কখনও ভিডিও স্ট্রিমিংয়ে পছন্দের শো দেখা এবং সর্বশেষ সেলফি তোলা। এতোগুলো কাজের বাইরেও কিন্তু স্মার্টফোন ব্যবহারের বৈচিত্রতা অনেক।

সাম্প্রতিক সময়ে দ্রুতগতির ৪জি নেটওয়ার্কের বিস্তার ও মোবাইল ইন্টারনেটের সহজলভ্যতার কারণে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমের ব্যবহার হয় অনেক বেশি। এরই ধারাবাহিকতায় আজকাল স্মার্টফোনে সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হয় ভিডিও স্ট্রিমিং ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমের অ্যাপ্লিকেশনগুলো যেমন- ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, স্ন্যাপচ্যাট, ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপ, স্কাইপ, টুইটার, লিংকডইন, ইউটিউব, বায়োস্কোপ, নেটফ্লিক্স ইত্যাদি। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে ব্যবহারকারীরা যা বেশি শেয়ার করে তা হচ্ছে, ছবি ও ভিডিও। আর তাই স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো স্মার্টফোনের ক্যামেরার প্রতি বিশেষভাবে নজর দিয়ে থাকে।

আগেই বলা হয়েছে প্রযুক্তির পরিবর্তনের সঙ্গে এর ব্যবহারের পরিবর্তন হয়। সে সূত্র ধরেই বলা যায়, আগে ছবি তোলার বিষয়টি গুরুত্ব পেলেও বর্তমানের চিত্র কিন্তু ভিন্ন। এখন ট্রেন্ড হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে লাইভে আসা। ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, টিকটক ইত্যাদি অ্যাপ্লিকেশনগুলোর মাধ্যমে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা প্রতিনিয়ত লাইভে আসছেন। কেউবা ই-কর্মাস ব্যবসায় বিক্রয়যোগ্য পণ্য প্রদর্শনের জন্য, কেউবা দূরবর্তী কোনো জায়গায় বসে লাইভ ক্লাস নিতে আর কেউবা বিনোদনের জন্য লাইভে এসে থাকেন। মূল কথা হচ্ছে লাইভে আসা। স্মার্টফোনটি দিয়ে যেন সহজেই এবং ঝামেলা ছাড়া লাইভে আসা যায় সেটিই এখন চাহিদা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর এই চাহিদা পূরণে স্যামসাং বাজারে নিয়ে এসেছে গ্যালাক্সি এ সিরিজের দুর্দান্ত সব স্মার্টফোন। প্রশ্ন হচ্ছে কেন গ্যালাক্সি এ সিরিজ?

বিনোদনের জন্য লাইভে আসা কিংবা ছোট কিংবা মাঝারি আকারের ইভেন্ট বা অনুষ্ঠানের লাইভ ভিডিও করার বিষয়টি এখন নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। কিন্তু লাইভে আসার কাজটি তখনই ঝামেলামুক্ত হয় যখন স্মার্টফোনটি উপযুক্ত হয়। এক্ষেত্রে গ্যালাক্সি এ সিরিজের স্মার্টফোনগুলোতে যুগোপযোগী ফিচারগুলোর চমৎকার সমন্বয় করেছে স্যামসাং। লাইভের জন্য ডিভাইসগুলোর ক্যামেরা যেমন উপযুক্ত তেমনটি সেগুলোর প্রসেসর ও র‌্যামের কার্যকারিতাও অসাধারণ। গ্যালাক্সি এ সিরিজের ১২৩ ডিগ্রি আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্সে ভিডিও ক্যাপচার, সুপার স্লো-মোশন ও হাইপারল্যাপস হবে অনায়াসে। এছাড়া কোনো ধরনের ল্যাগিং ছাড়াই লাইভে আসা, অ্যাপসের মাধ্যমে পছন্দের ভিডিও তৈরি কিংবা মানসম্মত ভিডিও স্ট্রিমিং করা যাবে।

পরিবর্তনের ছোঁয়া স্মার্টফোনের প্রযুক্তিতে পড়বে সেটিই স্বাভাবিক। তবে তা যেন কার্যকর হয় সেটিই হচ্ছে মূল বিষয়। স্মার্টফোন মানুষের জীবনে অনেক পরিবর্তন নিয়ে এসেছে। শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্যামসাং সবসময় চেষ্টা করে স্মার্টফোনের পরিবর্তন যেন ব্যবহারকারীর চাহিদা পুরোপুরিভাবে পূরণ করতে পারে। সে লক্ষেই ভিডিও এবং লাইভ স্ট্রিমিংয়ের চাহিদা পূরণে নতুন গ্যালাক্সি এ সিরিজ এনেছে স্যামসাং।
 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ এপ্রিল ২০১৯/ফিরোজ       

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge