ঢাকা, সোমবার, ৯ মাঘ ১৪২৪, ২২ জানুয়ারি ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

স্মিথের ব্যাটে অস্ট্রেলিয়ার জবাব

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১২-১৫ ৫:১৫:০৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১২-১৫ ৫:৪২:৫১ পিএম
৯২ রানে অপরাজিত থেকে দিন শেষ করেছেন স্টিভ স্মিথ

ক্রীড়া ডেস্ক : দুর্দান্ত বোলিংয়ে ইংল্যান্ডের লোয়ার অর্ডার গুঁড়িয়ে দিলেন অস্ট্রেলিয়ার বোলাররা। অসাধারণ ব্যাটিংয়ে আরেকটি সেঞ্চুরি অপেক্ষায় স্টিভ স্মিথ। ব্যাট-বলের দারুণ প্রদর্শনী মেলে ধরে পার্থ টেস্টের দ্বিতীয় দিনটা নিজেদের করে নিল অস্ট্রেলিয়া।

শুক্রবার দ্বিতীয় দিনে জনি বেয়ারস্টো পেয়েছেন সেঞ্চুরি। আগের দিনই সেঞ্চুরি করা ডেভিড মালান করেছেন ১৪০। তবে মাত্র ৩৫ রান ও ৫১ বলে শেষ ৬ উইকেট হারিয়ে প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ড অলআউট হয়েছে ৪০৩ রানে।

জবাবে অধিনায়ক স্মিথের অপরাজিত ৯২ রানের সুবাদে অস্ট্রেলিয়া দিন শেষ করেছে ৩ উইকেটে ২০৩ রানে। ৭ উইকেট হাতে নিয়ে অস্ট্রেলিয়া পিছিয়ে আছে আর ২০০ রানে। স্মিথের সঙ্গে ৭ রানে অপরাজিত আছেন শন মার্শ।



ওয়াকায় ইংল্যান্ড দিন শুরু করেছিল ৪ উইকেটে ৩০৫ রান নিয়ে। দিনের শুরুটা ভালোই করছিলেন মালান ও বেয়ারস্টো। ৭৫ রান নিয়ে দিন শুরু করা বেয়ারস্টো প্রথম ঘণ্টায় তুলে নেন ক্যারিয়ারের চতুর্থ টেস্ট সেঞ্চুরি। ১৮ মাস আর ৩৭ ইনিংস পর সেঞ্চুরি পেলেন বেয়ারস্টো। প্রথম তিনটি সেঞ্চুরিই করেছিলেন ২০১৬ সালে। এ বছরের শুরুতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে অবশ্য ৯৯ রানে আউট হয়েছিলেন।

ড্রিংস বিরতির পরপরই মালানকে ফিরিয়ে ২৩৭ রানের রেকর্ড জুটি ভাঙেন অস্ট্রেলিয়ান স্পিনার নাথান লায়ন। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্টে পঞ্চম উইকেটে ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ রানের জুটি এটিই। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এর আগে মাত্র একবারই পঞ্চম উইকেটে দুইশ রানের জুটি পেয়েছিল ইংল্যান্ড। ১৯৩৮ সালে ট্রেন্ট ব্রিজে ডেনিস কম্পটন ও এডি পেইন্টারের সেই জুটিটা ছিল ২০৬ রানের।

২৩৭ বলে ১৯ চার ও এক ছক্কায় মালান ১৪০ রান করে ফেরার পরই তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে ইংল্যান্ডের ব্যাটিং। প্যাট কামিন্সের বলে স্মিথকে ক্যাচ দেওয়া মঈন আলী মারেন ডাক। ক্রিস ওকস (৮) ও ক্রেইগ ওভারটনকে (২) ফিরিয়ে দেন জশ হ্যাজেলউড।



তবে সবচেয়ে বড় উইকেট, মানে বেয়ারস্টোকে বোল্ড করেন মিচেল স্টার্ক। স্টুয়ার্ট ব্রডকে ফিরিয়ে লাঞ্চের আগে ইংল্যান্ডের ইনিংসের ইতিও টানেন বাঁহাতি এই পেসার। ২১৫ বলে ১৮টি চারের সাহায্যে ১১৯ রান করেন বেয়ারস্টো।

৯১ রানে ৪ উইকেট নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সেরা বোলার স্টার্ক। তার চেয়ে এক রান বেশি দিয়ে ৩ উইকেট নিয়েছেন হ্যাজেলউড। কামিন্স দুটি ও লায়ন পেয়েছেন একটি উইকেট।

লাঞ্চের পর ব্যাটিংয়ে নেমে অস্ট্রেলিয়ার শুরুটা হয়েছিল ভালোই। ৪৪ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়ে ফেলেছিলেন ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন ব্যানক্রফট। এরপরই নিজের মাত্র তিন ওভারের মধ্যে দুই ওপেনারকেই ফিরিয়ে দেন ইংলিশ পেসার ওভারটন।



উইকেটকিপার বেয়ারস্টোর হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে ওয়ার্নার করেছেন ২২ রান। ২৫ রান করা ব্যানক্রফট হয়েছেন এলবিডব্লিউ। মাঠের আম্পায়ার মারাইস এরাসমাস এলবিডব্লিউয়ের আবেদনে সাড়া না দেওয়ায় রিভিউ নিয়েছিলেন জো রুট। তাতে সফল হন ইংলিশ অধিনায়ক। অস্ট্রেলিয়ার স্কোর তখন ২ উইকেটে ৫৫।

এরপরই তৃতীয় উইকেটে উসমান খাজাকে সঙ্গে নিয়ে ১২৪ রানের বড় জুটি গড়েন স্মিথ। দুজনই তুলে নেন ফিফটি। খাজা ফিফটির আগেই অবশ্য দুবার জীবন পান। ফিফটির পর ইনিংস বড় করতে পারেননি। ঠিক ৫০ রান করে এলবিডব্লিউ হন ওকসের বলে। মার্শকে সঙ্গে নিয়ে দিনের বাকিটা সময় নিরাপদে পার করে দেন ২২তম সেঞ্চুরি অপেক্ষায় থাকা স্মিথ।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৫ ডিসেম্বর ২০১৭/পরাগ 

Walton
 
   
Marcel