ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪২৫, ২৬ এপ্রিল ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

‘অ্যাটাক ইজ দ্য বেস্ট ডিফেন্স’

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০২-১০ ৫:৫৮:১০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-১৭ ১০:৫৬:৫৬ এএম

ক্রীড়া প্রতিবেদক : প্রচলিত কথা, ‘অ্যাটাক ইজ দ্য বেস্ট ডিফেন্স’। কখনো-কখনো এটি দেয় ভালো ফল। আবার কখনো-কখনো এটি হয়ে যায় হিতে বিপরীত। যেমনটা আজ বিপরীত হলো বাংলাদেশের সাথে। শ্রীলঙ্কার বোলারদের আক্রমণ করতে গিয়ে নিজেদের উইকেট বিলিয়ে এসেছেন ব্যাটসম্যানরা। যেই সময়ে উইকেটে থিতু হওয়া প্রয়োজন ছিল সেই সময়ে ব্যাটসম্যানরা দেখিয়েছেন আগ্রাসন। আক্রমণে গিয়ে বাংলাদেশ টপাটপ হারিয়েছে উইকেট।

তবে মিরপুরের এ উইকেটে কিছুই করার ছিল না ব্যাটসম্যান। তাই, ‘অ্যাটাক ইজ দ্য বেস্ট ডিফেন্স’। ঢাকা টেস্ট হারের পর দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসে এমনটাই ধারণা দিলেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। 

‘আপনি এ উইকেটে রক্ষণাত্মক ব্যাটিং করতে পারবেন না, আমার তাই মনে হয়। আমার যা জ্ঞান, আমার যা অভিজ্ঞতা আমার মনে হয় না যে এই ধরণের উইকেটে আপনি জমাট ব্যাটিং করতে পারবেন।’

 



‘বোলার ছয়টা বল করবে। ধারাবাহিকভাবে সাত নম্বর বলে আপনাকে সুন্দর মতো সিলিতে অথবা স্লিপে নিয়ে যাবে। তখন আপনাকে স্ট্রোক খেলতেই হবে। কিন্তু ওই সময়টায় নিশ্চিত করতে হবে কোন বলটা আপনি মারতে পারবেন। ওই আত্মবিশ্বাস এবং ওভাবেই খেলার মনস্থির করতে হবে। যদি নিশ্চিত না হয়ে খেলেন তাহলে আপনি উইকেট হারাবেন।’- মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

আক্রমণাত্মক কিংবা রক্ষণাত্মক যেভাবেই ব্যাটিং করুক না কেনো পরপর দুই ইনিংসের ব্যাটিং ধস কোনো দূর্ঘটনা নয়! প্রথম ইনিংসে ১১০, দ্বিতীয় ইনিংসে ১২৩। ভয়াবহ এ ব্যাটিংয়ের ব্যাখ্যাও নেই বাংলাদেশের অধিনায়কের কাছে।

‘জবাব দেওয়া আসলে কঠিন। এ ধরণের ব্যাটিং খুব হতাশাজনক। যেখানে আমরা জানি, স্পিন সহায়ক উইকেট। প্রথম ইনিংসেই আমাদের ভালো করা উচিত ছিল। আমার মনে হয় এই জিনিসটায় আমরা পিছিয়ে গেছি। প্রথম ইনিংসে যদি আমরা ২০০ বা তার বেশি করতে পারতাম তাহলে হয়তো আমাদের আরেকটু ভালো সুযোগ ছিল। কারণ এই উইকেটে হয়তোবা ৩৪০, চেজ করা অবশ্যই অতিরিক্ত চাপের ছিল।’-যোগ করেন মাহমুদউল্লাহ।

 



পরপর দুই ইনিংসেই ব্যাটসম্যানদের আউটের ধরণ ও ব্যাটিং দেখে ধারণা করা যাচ্ছে, ব্যাটসম্যানরা হারার আগেই হেরে গেছে! বিশেষ করে শেষ ৫ উইকেটে গড়তে পারেনি কোনো প্রতিরোধ। প্রথম ইনিংসে ৩ রানে ৫ উইকেট এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ২৩ রানে ৫ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিংয়ের ধরণ ও শারীরিক ভাষা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই। মাহমুদউল্লাহর কন্ঠেও একই সুর।

‘ওরা প্রথম ইনিংসে ১২০ রানের মতো লিডে ছিল। এ ধরণের উইকেটে যদি আপনি নিজে মনস্থির না করেন কিংবা আপনি ইতিবাচক না থাকেন তাহলে আপনি বিপদে পড়বেন। পাশাপাশি আপনি যদি বোলারকে সুযোগ দেন স্থায়ী হওয়ার তাহলেও বিপদে পড়বেন। আপনাকে বল নির্বাচন ঠিকমতো করতে হবে। আপনি কোনটা শট খেলবেন, কোনটা ডিফেন্ড করবেন সেগুলো ঠিক থাকতে হবে।’



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/ইয়াসিন/আমিনুল

Walton Laptop
 
   
Walton AC