ঢাকা, সোমবার, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

একই ম্যাচে সেঞ্চুরি ও হ্যাটট্রিক রাসেলের

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১১ ১০:৩৮:০৮ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৮-১১ ৫:১১:৩৪ পিএম
আন্দ্রে রাসেলের সেঞ্চুরি উদযাপন

ক্রীড়া ডেস্ক : ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) আন্দ্রে রাসেলের অধিনায়কত্বের অভিষেকটা এর চেয়ে স্মরণীয় আর হতে পারত না! প্রথমে বল হাতে করলেন হ্যাটট্রিক, এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে ৪০ বলে হাঁকালেন সেঞ্চুরি!

জ্যামাইকা তালাওয়াস অধিনায়ক রাসেল পোর্ট অব স্পেনে আজ ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে ৪৯ বলে অপরাজিত ১২১ রানের বিস্ফোরক এক ইনিংস খেলেছেন। তার খুনে ব্যাটিংয়ে ২২৪ রানের বড় লক্ষ্যও জ্যামাইকা পেরিয়ে গেছে অনায়াসেই। ৩ বল বাকি থাকতে ম্যাচ জিতেছে ৪ উইকেটে। 

সিপিএলে এটিই সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড। মজার বিষয় হলো, আগের রেকর্ডটাও ছিল জ্যামাইকার, এই ত্রিনবাগোর বিপক্ষে এবং একই মাঠে! দুই বছর আগে সে ম্যাচে জ্যামাইকা ১৯২ রান তাড়ায় জিতেছিল ৭ উইকেটে। 

মাত্র দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে একই টি-টোয়েন্টি ম্যাচে সেঞ্চুরি ও হ্যাটট্রিকের কীর্তি গড়লেন রাসেল। গত মাসে ওভালে ইংল্যান্ডের টি-টোয়েন্টি কাপে কেন্টের হয়ে সারের বিপক্ষে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে এই কীর্তি গড়েছিলেন জো ডেনলি।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ব্রেন্ডন ম্যাককালামের ২৭ বলে ৫৬, কলিন মানরোর ৪২ বলে ৬১ ও ক্রিস লিনের ২৮ বলে ৪৬ রানের সুবাদে দুইশ ছাড়ানো পুঁজি পেয়েছিল ত্রিনবাগো।

শেষ ওভারে পরপর তিন বলে তিন উইকেট নিয়ে হ্যাটট্রিক করেন রাসেল। নিজের প্রথম দুই ওভারে ২৭ রান দিয়ে উইকেটশূন্য থাকা রাসেল শেষ ওভারে ১১ রানে দিয়ে নেন ওই ৩ উইকেট। তার শিকার ম্যাককালাম, ড্যারেন ব্রাভো ও দিনেশ রামদিন। সিপিএলে সবশেষ হ্যাটট্রিক করেছিলেন রশিদ খান, গত মৌসুমে।

লক্ষ্য তাড়ায় সাত ওভারের মধ্যে ৪১ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছিল জ্যামাইকা। ত্রিনবাগো তখন বড় জয়ের স্বপ্নই দেখছিল। তখনো কে জানত, তাদের সেই স্বপ্ন রাসেল একাই গুঁড়িয়ে দেবেন!

যদিও মুখোমুখি প্রথম বলেই আউট হতে পারতেন রাসেল। ফাওয়াদ আলমের বলে স্লগ সুইপ করেছিলেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান, টপ-এজ হয়ে বল উঠে যায় আকাশে। ডিপ ব্যাকওয়ার্ড স্কয়ার লেগ থেকে দৌড়ে এসেছিলেন আলী খান, কিন্তু বল তালুবন্দি করতে ব্যর্থ হন।

শূন্য রানে জীবন পেয়েই রাসেলের তাণ্ডব শুরু। সুনীল নারিনকে ছক্কা হাঁকিয়ে ফিফটি পূর্ণ করেন ২২ বলে। পরের পঞ্চাশ করতে লেগেছে ১৮ বল! ৮৮ থেকে ব্রাভোকে টানা দুই ছক্কা হাঁকিয়ে ৪০ বলে পূর্ণ করেন সেঞ্চুরি, যা সিপিএলের দ্রুততম।

দলকে জিতিয়ে ৪৯ বলে ১৩ ছক্কা ও ৬ চারে ১২১ রানে অপরাজিত থাকেন রাসেল। তার খুনে ব্যাটিংয়ে চাপা পড়েছে এভিন লুইসের ৩৫ বলে ৫১ রানের ইনিংস।

ষষ্ঠ উইকেটে রাসেল ও লুইস গড়েন ১৬১ রানের জুটি, যা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ষষ্ঠ উইকেটে বিশ্ব রেকর্ড, সিপিএলে যেকোনো উইকেটে যৌথভাবে সর্বোচ্চ। টি-টোয়েন্টিতে ষষ্ঠ উইকেট জুটির আগের রেকর্ড ছিল ১২৬ রান, ২০১৪ সালে ইংল্যান্ডের টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টে ক্যালাম ম্যাকলিয়ড ও জন হাস্টিংয়ের।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ আগস্ট ২০১৮/পরাগ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC