ঢাকা, সোমবার, ১০ আষাঢ় ১৪২৬, ২৪ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

জয়ে চোখ রেখে দুপুরে মাঠে নামছে বাংলাদেশ

শামীম হোসেন পাটোয়ারি : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-১২-১৭ ৯:৪৮:২৩ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১২-১৭ ১২:০৬:৪৮ পিএম
Walton AC 10% Discount

ক্রীড়া ডেস্ক: টেস্টে হোয়াইটওয়াশ করে ওয়ানডে সিরিজটাও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ। সেই তরতাজা স্মৃতি নিয়ে এবার টি-টোয়েন্টি সিরিজে ক্যারিবীয়দের মুখোমুখি বাংলাদেশ দল। তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টির প্রথম ম্যাচে আজ দুপুরে টি-টোয়েন্টির রাজাদের বিপক্ষে নামছে সাকিব আল হাসানের দল।

সিলেটে বাংলাদেশ সময় আজ দুপুর সাড়ে ১২টায় শুরু হবে ম্যাচটি। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বরাবরই শক্তিশালী ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এই ফরম্যাটে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে আজ নিজেদের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চাইবে লাল-সবুজের বাংলাদেশ।

ফুটবলে ট্রেবল শিরোপা কথাটা খুবই পরিচিত শব্দ। টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। এবার টি-টোয়েন্টিতে সিরিজ জিততে পারলে সেটা ট্রেবল শিরোপা জয়ের মতোই হবে টাইগারদের।

এর আগেও শিরোপাত্রয়ী জেতার সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। ২০০৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে সব জিতলেও টি-টোয়েন্টি সিরিজটা জেতা হয়নি। ২০১৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের ট্রফি জিতলেও টেস্টের ট্রফিটা হারাতে হয় ১-০ ব্যবধানে। এ বছর জুলাইয়ে বাংলাদেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে টেস্ট সিরিজ হেরে গেলেও পরে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি জিতে আসে। তবে এবার ঘরের মাঠে সেই কাঙ্খিত শিরোপা জয়ের সুযোগ বাংলাদেশের সামনে। নিজেদের আঙ্গিনায় ষোল কলা পূরণের সুযোগ মাশরাফি-সাকিবদের।

শক্তিশালী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের শক্তির জায়গা দলের ব্যালেন্স ও শেষ দুটি সিরিজ জয়ের আত্মবিশ্বাস। সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ আর লিটন দাসের মতো দলে একঝাঁক ইন-ফর্ম খেলায়াড় আছেন যা দলকে শক্তিমত্তায় এগিয়ে রাখছে। এছাড়া দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল দলে ফিরে ফর্মের কথা জানান দেওয়ায় ভরসার জায়গা বাড়ছে বাংলাদেশের। এছাড়া বোলিংয়ে মুস্তাফিজ, মিরাজ ও নাজমুল ইসলামদের বোলিংয়ে ক্যারিবীয় বধের ছক কষছে বাংলাদেশ।



টি-টোয়েন্টিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অতীত সাফল্যের থলে ভরপুর হলেও শেষ পাঁচ ম্যাচের মুখোমুখি পরিসংখ্যানের দিকে তাকলে ভরসা পেতে পারে বাংলাদেশের সমর্থকরা। শেষ ৫ টি-টোয়েন্টি ম্যাচের দিকে দেখলে অবশ্য দুই দলকেই সমান অবস্থানে দেখা যাবে। দুই দলই দুটি করে ম্যাচ জিতেছে, একটিতে কোনো ফল আসেনি। তবে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজে এই উইন্ডিজকেই ২-১ ব্যবধানে হারানোর অভিজ্ঞতা আছে টাইগারদের। এটা সাকিবদের অনুপ্রেরণা যোগাবে।

তারপরও ভয়টা থেকে যাচ্ছে টি-টোয়েন্টির রাজা উইন্ডিজকে নিয়ে। ইতিমধ্যেই সীমিত ওভারের এ দলে ফিরেছেন বিশ্বসেরা ওপেনার এভিন লুইস। এছাড়া শেষ দুই ম্যাচে অপরাজিত সেঞ্চুরি করা সাই হোপকেও খেলানো নিয়ে আশাবাদী উইন্ডিজ। এছাড়া শিমরন হেটমায়ের, দিনেশ রামদিন কিংবা অধিনায়ক কার্লোস ব্রাফেট নিজেদের দিনে জ্বলে উঠলে যে কোনো বোলারের জন্যই তা বিপদজনক হয়ে উঠতে পারে। বোলিং বিভাগে কেসরিক উইলিয়ামস, শেলডন কট্রোল কিংবা কিমো পলদের পেস আক্রমণও বেশ সতর্কতার সঙ্গে মোকাবিলা করতে হবে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৭ ডিসেম্বর ২০১৮/শামীম

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge