ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ফাল্গুন ১৪২৫, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বৃষ্টি নয়, সূর্যের কারণে খেলা বন্ধ!

আমিনুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-২৩ ৪:৫৯:৫৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-২৩ ৭:০৬:১৯ পিএম

ক্রীড়া ডেস্ক : বৃষ্টি কিংবা বৈরি আবহাওয়ার কারণে এ পর্যন্ত কত ক্রিকেট ম্যাচ যে পণ্ড হয়েছে তার কোনো ইয়ত্তা নেই। কত শত ম্যাচের শত শত ওভার বৃষ্টির পেটে গিয়েছে, সেটা পরিসংখ্যানের খেড়োখাতায় লেখা আছে। সেখানে অস্তগামী সূর্যের কারণে খেলা বন্ধ হওয়ারও অল্প-বিস্তর ঘটনা লেখা আছে। আবারো ঘটেছে এই ব্যতিক্রম ঘটনা। আজ বুধবার নেপিয়ারে নিউজিল্যান্ড ও ভারতের প্রথম ওয়ানডের আধাঘণ্টা খেলা বন্ধ ছিল অস্তগামী সূর্যের কারণে।

নিউজিল্যান্ডের ছুড়ে দেওয়া ১৫৮ রানের জয়ের লক্ষ্যে ভারত ব্যাট করতে নেমে ১০ ওভার ভালোই ব্যাট করে। কিন্তু এরপর দেখা দেয় বিপত্তি। নেপিয়ারের অস্তগামী সূর্যের রশ্মি এমন তীর্যকভাবে বিরাট কোহলি ও শিখর ধাওয়ানের চোখে লাগছিল যে ব্যাট করতেই পারছিলেন না। শেষ পর্যন্ত রোদের এমন অপ্রত্যাশিত আচরণে আধাঘণ্টা (৭টা ২১ মিনিট থেকে ৭টা ৫৭ মিনিট) খেলা বন্ধ রাখেন আম্পায়াররা। তাতে ভারতের রান তাড়ার সময় ১০ ওভার ও নৈশভোজের বিরতির পর ১ ওভার খেলা বন্ধ থাকে।

তবে নেপিয়ারে সূর্যের আলোর প্রখরতার কারণে খেলা বন্ধ হওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম নয়। দুই বছর আগে বাংলাদেশের সঙ্গেও ঘটেছিল এমন ঘটনা। সেবার বাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ চলাকালিন নিউজিল্যান্ড মুখোমুখি হয়েছিল এমন ঘটনার। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসের ১৯ তারিখও সুপার স্ম্যাশ ক্রিকেট ম্যাচও সূর্যের তীর্যক রশ্মির কারণে বন্ধ ছিল কিছুক্ষণ।

তবে রোদের এমন আচরণের পেছনে নেপিয়ারের ম্যাকলিন পার্কের পিচের অবস্থানও কিছুটা দায়ী। এই মাঠের পিচের অবস্থান পূর্ব-পশ্চিম সমতলতায়। অধিকাংশ ক্রিকেট মাঠের পিচ থাকে উত্তর-দক্ষিণ সমতলতায়।

 



আজকের এমন ঘটনার পর হার্শা ভোগলে টুইট করে জানিয়েছেন এমন অভিজ্ঞতা তার জন্যও প্রথম, ‘এটা আমার জন্য প্রথম অভিজ্ঞতা। অস্তগামী সূর্যের কারণে খেলা বন্ধ! সূর্যের তীর্যক রশ্মি সরাসরি ব্যাটসম্যানদের চাখে লাগছিল। নিশ্চিতভাবেই পিচটি উত্তর-দক্ষিণ দিকে হওয়া উচিত ছিল।’

দক্ষিণ আফ্রিকার আম্পায়ার শন জর্জ জানিয়েছেন তিনি তার ১৪ বছরের আম্পায়ারিং ক্যারিয়ারে এমন ঘটনা দেখেননি, ‘অস্তগামী সূর্যের রশ্মি তীর্যকভাবে খেলোয়াড়দের চোখে লাগছে। আসলে আমাদেরকে খেলোয়াড় ও আম্পায়ারদের নিরাপত্তার বিষয়টি ভাবতে হবে। অবশ্য এই বিষয়ে খেলোয়াড়দের আগেই বলা হয়েছিল। তারা আমাদের কাছে আবেদন করলেই খেলা বন্ধ হয়ে যেত। তবে স্বস্ত্বির বিষয় হচ্ছে যে এই ম্যাচের জন্য আধা-ঘণ্টা রিজার্ভ ছিল। সুতরাং আধা-ঘণ্টা পর আমরা ফিরতে পারব এবং যথারীতি খেলা ৫০ ওভারেই হবে।’

যদিও নৈশভোজের বিরতির পর ১ ওভার খেলা বন্ধ থাকায় ভারতের টার্গেট ডার্কওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিতে ৪৯ ওভারে ১৫৬ রান হয়েছিল। আর সেই রান ভারত ৩৪.৫ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে তুলে নিয়েছে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৩ জানুয়ারি ২০১৯/আমিনুল

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC