ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৭ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বিশ্বকাপেও ‘এমন’ মোসাদ্দেককে চায় বাংলাদেশ

শামীম হোসেন পাটোয়ারি : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৫-১৯ ৯:০১:২৩ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৫-২১ ২:০২:৩৯ পিএম
Walton AC 10% Discount

ওদের হাতে বিশ্বকাপ মশাল। ওদের কাছে ১৬ কোটির প্রত্যাশা। ওরাই স্বপ্নের ধারক। ওরা বাংলার টাইগার। ওরা বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্বপ্নসারথি। ওদেরই একজন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ১৫ খেলোয়াড়কে নিয়ে প্রতিদিন লিখা প্রকাশ করছে রাইজিংবিডি’র ক্রীড়া বিভাগ। আজ পড়ুন মোহাম্মদ মোসাদ্দেকের গল্প, লিখেছেন শামীম হোসেন পাটোয়ারি।

অপার সম্ভাবনা নিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আবির্ভূত হয়েছিলেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। তবে বাংলাদেশের জার্সিতে ব্যাটিংয়ে বহুদিন ধরেই খুব একটা ভরসা দিতে পারছিলেন না। ক্যারিয়ারে একমাত্র ফিফটির বয়স সেটাও আড়াই বছর পেরিয়ে যাচ্ছিল। এবার বিশ্বকাপ শুরুর ঠিক আগেই জ্বলে উঠে নির্বাচকদের নতুন ভাবনায় ফেলেছেন তরুণ এ অলরাউন্ডার।

সদ্য সমাপ্ত ত্রিদেশীয় সিরিজের আগে ইংলিশ কন্ডিশনে বাংলাদেশের ব্যাটিং কেমন হবে তা নিয়ে অনেকেই সংশয় পোষণ করতেন। বিশেষ করে তরুণ ব্যাটসম্যানদের অনেকের দলে অন্তর্ভুক্তি নিয়েও অনেকের অভিযোগ ছিল। কিন্তু সিরিজ শুরুর পর যেন ভোজবাজির মতো পাল্টে যেতে লাগলো। শেষ পর্যন্ত সেই তরুণদের হাত ধরেই এলো প্রথমবারের মতো কোনো বহুজাতিক টুর্নামেন্টের শিরোপা। আলো ছড়ানো টাইগার তরুণদের মধ্যে মোসাদ্দেক একজন।

ওয়ানডেতে বাংলাদেশের পক্ষে দ্রুততম ফিফটির রেকর্ড এখন মোসাদ্দেকের। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৫ উইকেটে হারিয়ে প্রথমবারের মতো ওয়ানডেতে ফাইনাল জিতল বাংলাদেশ। আর বাংলাদেশের এ কাব্যিক জয়ের শেষের নায়ক মোসাদ্দেক হোসেন।

এর আগের ২৫ ওয়ানডেতে মাত্র ১ ফিফটির দেখা পাওয়া মোসাদ্দেক বিশ্বকাপ শুরুর আগে যেন ঘুম ভেঙে জেগে উঠলেন। দলের ৭ নম্বর পজিশনটা এখন তার হাতে স্থায়ী হওয়ার জন্য অপেক্ষা করছে। আগামী ২ জুন বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচে ওই পজিশনেই তার খেলার সম্ভাবনা বেশি!
 


ত্রিদেশীয় সিরিজে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচে আহামরি কোনো পারফরম্যান্স দেখাতে পারেননি। তবে সাকিব আল হাসানের ইনজুরিতে ফাইনালে উইন্ডিজের বিপক্ষেও তার ওপর আস্থা রাখে টিম ম্যানেজম্যান্ট। দলের সেই আস্থার প্রতিদান ব্যাট হাতে দিয়েছেন মোসাদ্দেক। কঠিন চাপের মুখে থেকে দায়িত্ব নিয়ে দলকে কিভাবে জেতাতে হয় তা করে দেখিয়েছেন।

শক্তিশালী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপেক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে দাপুটে পারফরম্যান্সের পর এখন সবার মুখে মোসাদ্দেক বন্দনা। ক্যারিবীয় বোলারদের দাপটের দিনে মোসাদ্দেক যখন ব্যাটিং করতে যান, তখনও বাংলাদেশের জিততে ৫০ বলে ৬৭ রানের প্রয়োজন ছিল। দলের এমন গুরুত্বপূর্ণ সময়ে সপ্তম উইকেটে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে জুটি বাঁধেন মোসাদ্দেক। দুজনে মিলে গড়েন অবিচ্ছিন্ন ৭০ রানের জুটি। এই জুটি গড়ার পথে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় হাফ সেঞ্চুরির স্বাদ পান ২৩ বছর বয়সী মোসাদ্দেক। আর তার রেকর্ড হাফ সেঞ্চুরির দিন বাংলাদেশ জিতে ওয়ানডেতে প্রথম কোনো ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা।

বাংলাদেশ দলের অভিজ্ঞ পঞ্চ পান্ডবের সঙ্গে বিশ্বকাপের আগে আশা দেখাচ্ছেন তরুণ ক্রিকেটাররা। আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধ কন্ডিশনেও সিরিজে বাকি দুই প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড পাত্তাই পেল না টাইগারদের দাপটের সামনে। আর এতে মূল ভূমিকা রাখলেন কিন্তু ওই তরুণ ব্যাটসম্যানরাই। সৌম্য সরকারের তিন ম্যাচে তিন ফিফটি, এক ম্যাচে সুযোগ পেয়ে লিটন দাসের বাজিমাত আর শেষ ম্যাচে মোসাদ্দেকের রেকর্ড।

তরুণ ব্যাটসম্যান হিসেবে সৌম্য কিংবা লিটনের সামর্থ্যের কথা অজানা নয়। কিন্তু উইন্ডিজদের বিপক্ষে সবশেষ ম্যাচে মোসাদ্দেক যেন সত্যিকার অর্থেই কাঁপিয়ে দিলেন। মাত্র ২০ বলে ফিফটি করে মোহাম্মদ আশরাফুলকে টপকে বাংলাদেশের হয়ে ওয়ানডেতে দ্রুততম ফিফটির মালিক এখন এই অলরাউন্ডার।

২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডেতে অভিষেক হয় মোসাদ্দেকের। ২৬ ওয়ানডেতে ৩৩.৯১ গড়ে তার মোট রান ৪০৭। ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ৪.৯৩ ইকোনমিতে এ সময় ১১টি উইকেট নিয়েছেন। ঘরোয়া লিগগুলোতে সাধারণত রানের ফোয়ারা দেখা যায় মোসাদ্দেকের ব্যাটে। সবশেষ ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালেও তার ব্যাটিং ঝলক দেখেছে ভক্তরা। তাই বিশ্বকাপের মতো বড় টুর্নামেন্টে দলের অভিজ্ঞদের সঙ্গে এ অলারাউন্ডারের ওপর বাড়তি প্রত্যাশা থাকবে বাংলাদেশের।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৯ মে ২০১৯/শামীম/ইয়াসিন

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge