ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৭ আষাঢ় ১৪২৫, ২১ জুন ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

প্রথম ১ লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পেলেন নাটোরের সঞ্জয়

অগাস্টিন সুজন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১০-০৩ ২:১৫:৩৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৩-০৫ ৪:৩৬:৩৪ পিএম
ওয়ালটন ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের প্রথম ১ লক্ষ টাকার ক্যাশ ভাউচার নিচ্ছেন নাটোরের সঞ্জয় ঘোষ (বাঁয়ে)

নিজস্ব প্রতিবেদক : শুরু হয়েছে ওয়ালটন ডিজিটাল ক্যাম্পেইন। ওয়ালটন পণ্য ক্রয়ের পর ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করে প্রতিদিন ক্রেতারা পাচ্ছেন লাখ লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার। ক্যাম্পেইন শুরুর প্রথম দিন সোমবার ১ লক্ষ টাকার ক্যাশ ভাউচার পেয়েছেন নাটোরের সঞ্জয় ঘোষ।

ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ জানায়, ক্রেতাদের দোরগোড়ায় অনলাইনে আরো দ্রুত ও উত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা পৌঁছে দিতে চালু করা হয় ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম। এই কার্যক্রমে ক্রেতার অংশগ্রহণকে উদ্বুদ্ধ করতে চলছে ডিজিটাল ক্যাম্পেইন। এর আওতায় ক্রেতাদের জন্য থাকছে নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার সুযোগ। ওয়ালটন প্লাজা এবং পরিবেশক শোরুম থেকে দশ হাজার টাকা বা তার চেয়ে বেশি মূল্যের পণ্য কিনে প্রতিবার সর্বনিম্ন ২০০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১ লক্ষ টাকার ক্যাশ ভাউচার পাচ্ছেন ক্রেতারা।

২ অক্টোবর এই কার্যক্রম চালু হওয়ার পর সারাদেশে ক্রেতাদের কাছ থেকে মিলছে ইতিবাচক সাড়া। ওয়ালটন প্লাজা এবং পরিবেশক শোরুমগুলোয় ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশনে দেখা গেছে ক্রেতাদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ। পণ্য কিনতে এসে অপ্রত্যাশিত পুরস্কার পেয়ে অনেক ক্রেতাই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

সোমবার প্রথম ১ লক্ষ টাকার ক্যাশ ভাউচার পেয়ে দারুণ খুশি সঞ্জয় ঘোষ। নাটোরের মির্জাপুরে ছোট একটি মিষ্টির দোকান চালান তিনি। বাবা-মা এবং এক ভাই ও এক বোন নিয়ে তার ৫ জনের সংসার। পরিবারের জন্য একটি ২৮ ইঞ্চি এলইডি টেলিভিশন কিনতে তাহেরপুরে শিমুল এন্টারপ্রাইজে গিয়েছিলেন তিনি। টিভি কিনে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করার সাথে সাথে ১ লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার মেসেজ যায় তার মোবাইল ফোনে। অপ্রত্যাশিত এই পুরস্কার পেয়ে অভিভূত হয়ে পড়েন সঞ্জয়।

তিনি বলেন, ‘১৮ হাজার ৫০০ টাকা দিয়ে টিভি কিনে যখন জানলাম ১ লাখ টাকার পুরস্কার পেয়েছি, তখন বিশ্বাসই করতে পারছিলাম না। কত যে খুশি হয়েছি তা বলে বোঝাতে পারব না। এই টাকা দিয়ে এখন দোকানের জন্য একটি এবং বাড়ির জন্য আরেকটি ফ্রিজ কিনতে পারবো। এছাড়া পরিবারের অন্য সদস্যদের জন্য মোবাইল ফোন, রাইস কুকার ও ঘরের জন্য অন্যান্য ইলেকট্রনিক্স পণ্য কিনবো।’

তিনি আরো বলেন, ‘ওয়ালটন দেশীয় ব্র্যান্ড। দেশেই তারা তৈরি করে টিভি, ফ্রিজ, এসিসহ বিশ্বমানের ইলেকট্রনিক্স, ইলেকট্রিক্যাল ও গৃহস্থালী পণ্য। প্রতিবেশির টেলিভিশন দেখে এসব জেনেছি। সেই বিশ্বাস নিয়েই কষ্ট করে জমানো টাকায় একটি এলইডি টিভি কিনতে ওয়ালটন শোরুমে যাই। তাছাড়া এর আগে ওয়ালটনের একটি স্মার্টফোন ব্যবহার করেছি। অল্প দামে ভালো মানের জিনিস দেয় তারা। ওয়ালটনের টিভি কিনেই খুশি ছিলাম। যখন জানলাম আরো ১ লাখ টাকার পণ্য পেয়েছি, তখন আমার খুশি যেন হাজারগুণ বেড়ে গেছে।’

ওয়ালটনের ডেপুটি ডিরেক্টর রাকিবুল হোসেন আহমেদ জানান, ক্যাম্পেইনের প্রথম দিন থেকেই দেশব্যাপী ক্রেতাদের কাছ থেকে ভালো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। বিভিন্ন ধরনের পণ্য কিনে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশনে ওয়ালটন প্লাজা এবং পরিবেশক শোরুমগুলোয় বিরাজ করছে উৎসবমুখর পরিবেশ। প্রথম দিনেই সঞ্জয় ঘোষের মতো সারা দেশে হাজার হাজার ক্রেতা বিভিন্ন অংকের ক্যাশ ভাউচার পেয়েছেন।

ওয়ালটন সূত্রে জানা গেছে, ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার সুযোগ। এর আওতায় প্রতিদিন ২০ লাখ টাকা বা এর কমবেশি পর্যন্ত নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার দেওয়া হবে। তিন মাসে ক্রেতারা পাবেন ১৫ কোটি থেকে ২০ কোটি টাকার ক্যাশ ভাউচার।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩ অক্টোবর ২০১৭/সুজন/শাহনেওয়াজ

Walton Laptop
 
   
Walton AC