ঢাকা, বুধবার, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

‘জীবনে যা কিনতে পারতাম না, তাই পেয়েছি ওয়ালটন থেকে’

জাকির হুসাইন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০১-২১ ৩:২৭:০৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-২১ ৬:৫১:৪৩ পিএম
গিয়াস উদ্দিনের হাতে লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার এবং অন্যান্য ওয়ালটন পণ্য তুলে দেওয়া হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : ‘অনেক দুঃখ-কষ্টের সংসার আমাদের। টিভি ফ্রিজ ব্যবহার করতে পারিনি। এমনকি জীবনে কোনোদিন এসব পণ্য কিনে ব্যবহার করতে পারতাম কি না জানি না। কিন্ত এই অসম্ভব কাজকে সহজেই সম্ভব করে দিয়েছে আমাদের দেশীয় ওয়ালটন কোম্পানি। ওয়ালটনের ছোট একটি ফ্রিজ কিনে পেয়েছি এক লাখ টাকা। আর তা দিয়ে এমন সব পণ্য কিনেছি, যা আমার জীবনে কোনো দিন হয়তো নিজের টাকায় কেনা সম্ভব হতো না।’

কথাগুলো মো. গিয়াস উদ্দিনের। গত ১০ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জের ওয়ালটনের শোরুম স্কাই ইলেকট্রনিক্স থেকে ২৪ হাজার টাকা দিয়ে একটি ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পেয়েছেন তিনি।

মো. গিয়াস উদ্দিনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে। তবে গত ২০ বছর ধরে নারায়ণগঞ্জ থাকেন। আগে শ্রমিক হিসেবে কাজ করলেও কয়েক বছর ধরে স্বল্প পরিসরে ব্যবসা করছেন। কয়েকজন বন্ধু মিলে মেয়েদের ব্যাগ তৈরি করে নিজেরাই বিক্রি করেন।

গিয়াস উদ্দিন জানান, ৪ ভাই ও ২ বোনের মধ্যে তিনি মেঝো। বড় পরিবারে অভাব-অনটন সব সময় লেগেই থাকতো। তাই সংসারের হাল ধরতে লেখাপড়া করতে পারেননি। বেশ ছোট থাকতেই ঢাকায় চলে আসেন। বছর তিনেক আগে বিয়ে করেছেন। ঘর আলো করে একটি মেয়ে সন্তান এসেছে। তার সামান্য একমাত্র মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে ছোট সংসার মোটামুটি চলে যায়। কিন্তু টিভি-ফ্রিজ বা এই জাতীয় কোনো ইলেকট্রনিক্স পণ্য না থাকায় তার স্ত্রীর মনে বেশ কষ্ট ছিল।

তিনি বলেন, ‘বিয়ের পর থেকে প্রায় দিনই একটা টিভি ও একটা ফ্রিজ কেনার কথা বলতো আমার স্ত্রী। কিন্তু টাকা না থাকায় আমি ছিলাম অসহায়। তারপরেও স্ত্রীর মুখে হাসি ফোটাতে অন্তত একটা ফ্রিজ কেনার কথা চিন্তা করি। সে অনুযায়ী টাকা যোগাড় করতে থাকি।’

গিয়াস উদ্দিন বলেন, ‘আগেই ঠিক করে রেখেছিলাম টিভি-ফ্রিজ কিনলে ওয়ালটন থেকে কিনবো। কারণ ওয়ালটন কোম্পানি এবং এর পণ্য সম্পর্কে আগে থেকেই ভালো ধারণা রয়েছে। ওয়ালটন পণ্য মানে ভালো, একই সাথে দামে কম। শুনেছি ওয়ালটনের পণ্য বিদেশেও যায়। তাছাড়া আশপাশের অনেকেই ওয়ালটন ফ্রিজ কেনার ব্যাপারে পরামর্শ দেন।’

তিনি বলেন, ‘পরিকল্পনা অনুযায়ী আমার স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে গত ১০ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জে ওয়ালটনের শোরুম স্কাই ইলেকট্রনিক্সে যাই। সেখান থেকে দেখে শুনে ১১ সিএফটির ফ্রিজটি পছন্দ করি। যার দাম ২৪ হাজার টাকা। ওয়ালটন পণ্য কিনে উপহার পাওয়া যাবে তা আগে থেকে জানতাম না। ফ্রিজ কেনার সময় দোকানের লোকেরা আমাকে জানান ওয়ালটন পণ্য কিনলে ২০০ টাকা থেকে এক লাখ টাকা পর্যন্ত উপহার পাওয়া যাবে। তারপর নিয়ম অনুযায়ী আমার মোবাইল নাম্বার দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে দেন।’

গিয়াস উদ্দিন বলেন, ‘এর ৫ থেকে ৭ মিনিট পর আমার হাতের মোবাইল বেজে উঠে। দোকানের কর্মকর্তারা বলেন মোবাইলে দেখেন এসএমএস এসেছে। কিন্তু আমি ইংরেজি পড়তে জানি না। তারাই আমার মোবাইল নিয়ে এসএমএস পড়ে সবাই হাসতে থাকেন। বিষয়টি কি জানতে চাইলে তারা আমাকে বলেন যে, আপনি সৌভাগ্যবান। আপনার কপাল খুলে গেছে। আপনি পেয়েছেন ওয়ালটন অফারের সবচেয়ে বড় মানের উপহার এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার।’

তিনি বলেন, ‘এটা আমার পক্ষে বিশ্বাস করার মতো ছিল না। কারণ আমি ২০ বছর ঢাকায় থাকছি। কিন্তু এতদিন ধরে একটা ফ্রিজ পর্যন্ত কিনতে পারি নাই। সব সময় অভাব-অনটনের মধ্যে ছিলাম। সেই আমিই কি-না পেয়েছি এক লাখ টাকা। বলে কী! এটা কি করে সম্ভব হতে পারে! কিন্তু এই অসম্ভবকেই সম্ভব করেছে ওয়ালটন।’

গিয়াস উদ্দিন বলেন, ‘আমার মতো গরিব মানুষ এক লাখ টাকার পুরস্কার পাবো এটা ভাবতেও আমার মনে ভয় লাগছে। এক লাখ টাকার পণ্য বুঝে পাওয়ার পরেও আমার মন থেকে ভয় কাটছে না। তিনি বলেন, এটা আমার জীবনের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি। আমার সব আত্মীয়-স্বজন খুব খুশি। বেশি খুশি আমার স্ত্রী। কারণ তার দাবিতেই ফ্রিজ কিনতে যাওয়া।’

তিনি জানান, লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার দিয়ে আরো দুটি ফ্রিজ কিনেছেন। এর একটি দেবেন তার বাবা-মাকে। অন্যটি শ্বশুর-শাশুড়িকে। এছাড়া নিজেদের ব্যবহারের জন একটি ৩২ ইঞ্চি একটি এলইডি টিভি, ৩টি ফ্যান, একটি রাইস কুকার, একটি আয়রন ও একটি ব্লেন্ডার কিনেছেন।

উল্লেখ্য, ক্রেতাদের দোরগোড়ায় অনলাইনে দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম চালু করেছে ওয়ালটন। এই কার্যক্রমে ক্রেতাদের অংশগ্রহণকে উদ্বুদ্ধ করতে প্রতিদিন দেওয়া হচ্ছে নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার। ওয়ালটন প্লাজা এবং পরিবেশক শোরুম থেকে ১০ হাজার টাকা বা তার বেশি মূল্যের পণ্য কিনে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করে সর্বনিম্ন ২০০ থেকে সর্বোচ্চ এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পাচ্ছেন ক্রেতারা। ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার এই সুযোগ থাকবে আগামী ২৮ জানুয়ারি পর্যন্ত।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২১ জানুয়ারি ২০১৮/অগাস্টিন সুজন/সাইফ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC