ঢাকা     শুক্রবার   ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ১০ ১৪২৭ ||  ০৭ সফর ১৪৪২

বৈদেশিক ঋণে অনুদানের হার কমালো

বিশেষ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:২৮, ২ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
বৈদেশিক ঋণে অনুদানের হার কমালো

বৈদেশিক ঋণে অনুদানের পরিমাণ কমালো সরকার। আগে বৈদেশিক যে কোন ঋণে ৩৫ শতাংশ অনুদান পাওয়া যেতো। এখন থেকে ২৫ শতাংশ অনুদান পাওয়া যাবে।

বুধবার সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ সম্মেলন কক্ষে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এমন একটি প্রস্তাবে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এখন আমাদের আর্থিক অবস্থা ভালো হয়ে গেছে। আগে নিম্ন আয়ের দেশ ছিলাম, এখন উঁচু জায়গায় পৌঁছেছি। ঋণের মধ্যে অনুদান ৩৫ শতাংশ থাকলে, আমরা অনেক সুযোগ-সুবিধা পেতাম না। যেহেতু এখন আমাদের অর্থনীতি এখন অগ্রসরমান। তাই অনমনীয় ঋণের ক্ষেত্রে ৩৫ শতাংশ অনুদানের জায়গায় ২৫ শতাংশ করছি।

অনুদানটা ৩৫ শতাংশ থাকলে ঋণ পাওয়ায় কোনো সমস্যা হতো কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ঋণ পাওয়ার জন্য কোনো সমস্যা নেই। তবে আমাদের নিজস্ব বিবেচনার জন্য এ কাজটি আমরা করেছি। বিশ্বব্যাংক, আইএমএফসহ অন্যারাও এটা চায়, যেহেতু আমাদের অবস্থা ভালো হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আগে আমরা অনুদানের পরিমাণটা দেখেই ঋণ নেয়ার বিষয়টি চিন্তা করতাম। কিন্তু এখন আমরা এটা ৩৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২৫ শতাংশ করলাম। আর্থিক সক্ষমতা বাড়ার কারণে এ হার কমাতে হয়েছে।’

অর্থ মন্ত্রণালয় সুত্রে জানা গেছে, যে সমস্ত ঋণে অনুদানের পরিমাণ ৩৫ শতাংশ, সে সকল ঋণ অনমনীয় ঋণ হিসেবে বিবেচিত হয়। কিন্তু বাংলাদেশ নিম্ন আয়ের দেশ হতে উত্তরণের ফলে বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা ও দেশ বাংলাদেশকে দেয়া ঋণের সুদহার বৃদ্ধি করেছে। তারপরও ৩৫ শতাংশ অনুদানের ফলে ঋণসমূহ অনমনীয় হয়ে যাচ্ছে এবং চুক্তি স্বাক্ষরের আগে ‘অনমনীয় ঋণ বিষয়ক স্থায়ী কমিটি’র অণুমোদন প্রয়োজন হচ্ছে। ফলে সার্বিকভাবে বৈদেশিক ঋণ আহরণের পরিমাণ শ্লথ হওয়ার আশংকা দেখা দিচ্ছে।


ঢাকা/হাসনাত/সাজেদ

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়