RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৯ নভেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৭ ||  ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

এক পায়ে পর্বত জয়

শাহিদুল ইসলাম || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৮:১৭, ২০ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
এক পায়ে পর্বত জয়

মাউন্ট কিলিমাঞ্জারো। উচ্চতার দিক দিয়ে পৃথিবীর চতুর্থ পর্বতশৃঙ্গ। শত শত মানুষ এই পর্বতমালা জয়ের চেষ্টা করেন। কেউ জয় করেন, আবার অনেকে ব্যর্থ হন। ভারতের নিরাজ জর্জ সম্প্রতি এই পর্বতমালা জয় করে হইচই ফেলে দিয়েছেন।

কিন্তু এখন পর্যন্ত যেখানে শত শত মানুষ এই পর্বতশৃঙ্গে আরোহণ করেছেন সেখানে নিরাজকে নিয়ে এত মাতামাতি কেন? কারণ সুস্থ-স্বাভাবিক মানুষ যেখানে এমন সাহস করে না, সেখানে নিরাজ এক পা দিয়েই প্রায় ছয় হাজার ফুট উচ্চতার আফ্রিকার সর্বোচ্চ এই পর্বত জয় করেছেন। এজন্য তিনি সময় নিয়েছেন মাত্র বারো দিন। প্রচণ্ড ইচ্ছাশক্তি, পরিশ্রমের মানসিকতা এবং দৃঢ় মনোবল থাকলে জগতের অনেক অসাধ্যই যে সাধন করা যায়, তারই উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত ভারতের কেরালার বত্রিশ বছর বয়সি এই যুবক।

জন্ম থেকে আর দশটা স্বাভাবিক শিশুর মতোই ছিল নিরাজের জীবন। কিন্তু নয় বছর বয়সে তার জীবনে নেমে আসে ঘোর আঁধার। বাম পায়ে টিউমার ধরা পড়ে। চিকিৎসকের পরামর্শে কেটে ফেলতে হয় পায়ের হাঁটু অবধি।

কিন্তু তাতে কি? হেরে যাবার জন্য তো জন্মাননি নিরাজ। বেছে বেছে এমন সব কাজ করা শুরু করলেন যেখানে দুই পা অপরিহার্য। প্রথমেই ব্যাডমিন্টন খেলা শুরু করলেন। প্রথমদিকে অসুবিধা হলেও তীব্র ইচ্ছা শক্তির ওপর ভর করে কিছুদিনের মধ্যে নিরাজ পাকা খেলোয়াড় হয়ে উঠলেন। সুযোগ পেয়ে গেলেন ভারতের প্যারা ব্যাডমিন্টন দলে। দেশের সীমানা জয় করে একাধিক আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতাতেও অংশ গ্রহণ করেছেন তিনি।

এরপর ২০০৭ সালে নিরাজ পড়তে যান স্কটল্যান্ড। সেখানে থাকাকালীন তার মাথায় পর্বত আরোহণের ভূত চাপে। যোগ দেন কেরালা পর্বত আরোহীদের দলে। একটু একটু করে নিজেকে প্রস্তুত করতে থাকেন। কিলিমাঞ্জারো আরোহণের পূর্বে তিনি চেম্বারা পিক, পাকশিপাথালাম, পোনমুদির মতো বেশ কিছু বিপজ্জনক পাহাড়ি এলাকায় ট্রেকিং করেছেন। সর্বশেষ জয় করলেন কিলিমাঞ্জারো।

বর্তমানে কেরালা অ্যাডভোকেট জেনারেলের অফিসে কর্মরত নিরাজ গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের নানা ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন। ভবিষ্যতে একটি প্যারা ব্যাডমিন্টন ইনস্টিটিউট খোলার ইচ্ছা আছে তার।


ঢাকা/মারুফ/তারা

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়