ঢাকা, বুধবার, ৫ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ আগস্ট ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

কুড়িগ্রামে সাড়ে ৭ লাখ মানুষ দুর্ভোগে

বাদশাহ সৈকত : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৭-১৯ ৯:৪৩:০৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৭-২০ ৩:৫৭:৫৮ পিএম
কুড়িগ্রামে সাড়ে ৭ লাখ মানুষ দুর্ভোগে
Walton E-plaza

কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা : ১০ দিনেরও বেশি সময় ধরে ব্রহ্মপুত্র, ধরলা, দুধকুমর, জিঞ্জিরামসহ বেশির ভাগ নদ-নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় কুড়িগ্রামে সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে।

স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ড জানায়, ব্রহ্মপুত্রের পানি চিলমারী পয়েন্টে বিপদসীমার ১১৫ সেন্টিমিটার, নুনখাওয়া পয়েন্টে ৮৯ সেন্টিমিটার ও ধরলা নদীর পানি সেতু পয়েন্টে বিপদসীমার ৯১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

শহর রক্ষা বাঁধ ভেঙে পানি ঢুকে পড়েছে রৌমারী, রাজিবপুর ও চিলমারী উপজেলা শহরে। জেলার ৯ উপজেলায় প্রায় সাড়ে ৭ লাখ মানুষ দীর্ঘ সময় ধরে পানিবন্দি থাকায় তাদের মাঝে শুকনো খাবার ও বিশুদ্ধ পানির সংকট তীব্র আকার দেখা দিয়েছে। নিজেদের খাদ্যের পাশাপাশি গো-খাদ্যের সংকটে দিশেহারা হয়ে পড়েছে বানভাসী মানুষ। নৌকা দেখলেই ছুটছেন ত্রাণের আশায়।

কুড়িগ্রাম-ভুরুঙ্গামারী সড়কে পানি উঠায় জেলা সদরের সঙ্গে নাগেশ্বরী, ভুরুঙ্গামারী ও ফুলবাড়ী উপজেলার সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। চিলমারী সড়কেও পানি উঠায় কুড়িগ্রামের সঙ্গে চিলমারীর সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।

বন্যাকবলিত সাড়ে ৭ লাখ মানুষের জন্য সরকারিভাবে ৫০০ মেট্রিক টন চাল ও ১৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ৪৫০টি তাবু বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। যা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল।

বেসরকারিভাবে এবং ব্যাক্তি উদ্যোগে সামান্য পরিসরে ত্রাণ তৎপরতা শুরু হলেও বিপুল সংখ্যক বানভাসী মানুষের ভাগ্যে তা জুটছে না।


রাইজিংবিডি/কুড়িগ্রাম/১৯ জুলাই ২০১৯/বাদশাহ সৈকত/বকুল

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge