Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ১৮ ১৪২৮ ||  ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

‘কেবল আফসোস করছি আমি সেই বোকাটিকে মুখে মারিনি’

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:৩৪, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০  
‘কেবল আফসোস করছি আমি সেই বোকাটিকে মুখে মারিনি’

মৌসুমের শুরুটা ভালো হলো না নেইমারের। প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের জার্সিতে মাঠে নেমে প্রথম ম্যাচে পরাজয়ের তিক্ত স্বাদ পেয়েছেন। পাশাপাশি ম্যাচের শেষ প্রান্তে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন ব্রাজিলের সুপারস্টার। 

নেইমারের অভিযোগ, বর্ণবাদের প্রতিবাদ করে মাঠে মার্শেইয়ের আলভারো গঞ্জালেজকে মাথার পেছনে আঘাত করেছেন। এজন্য লাল কার্ড দেখলেও আফসোস নেই তার। বরং নেইমারের আফসোস ‘বোকাটির’ মুখে মারতে পারেননি বলে। 

ম্যাচের শেষ প্রান্তে নেইমার ও আলভারোর বাকযুদ্ধ চলতে থাকে। বোঝার উপায় ছিল না দুইজন কী নিয়ে কথা বলছিলেন। একটি বিতর্কিত ঘটনায় দুই দলের খেলোয়াড়েরা বাগ-বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েছিলেন। সেই সময়ে নেইমার আলভারের মাথার পেছনে চড় দেন। পরবর্তীতে ভিএআর সহযোগিতায় নেইমারকে লাল কার্ড দেন রেফারি।

ম্যাচ শেষে নেইমার পুরো ঘটনা উল্লেখ করে টুইট করেন। পোস্টে লিখেন, ‘সে বর্ণবাদী, এজন্যই আমি তাকে মেরেছি। আমার শুধু আফসোস হচ্ছে এই ভেবে যে, আমি সেই বোকাটিকে মুখে মারিনি।’ নেইমার আরো লিখেন, ‘ভিএআর আমার ‘‘অ্যাটাক’’ সহজেই ধরে ফেলেছে। এখন আমি সেই বর্ণবাদীর আসল রূপ প্রকাশ করবো। সে আমাকে ‘‘বানর’’ এবং ‘‘কুকুর ছানা’’ বলে গালি দিয়েছে।’
‘এরপর কি হলো? আমি তাকে আঘাত করলাম এবং আপনি আমাকে শাস্তি দিলেন। একটি চড় মারার অপরাধে আমার শাস্তি হলো। কিন্তু তাদের কী হবে? কখন তাদের শাস্তি হবে?’ – যোগ করেন নেইমার।

মাঠে মারামারির করার অপরাধে নেইমারের বড় শাস্তি হতেও পারে। তবে মাঠ ছাড়ার আগে নেইমার রেফারির কাছে একাধিকবার আলভারোর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। বিষয়টি লিখিতভাবে অভিযোগ করলে নেইমার বেঁচেও যেতে পারেন।

এদিকে ম্যাচ শেষে আলভারোও ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করে লিখেন, ‘আমার ক্যারিয়ার বিতর্কহীন। কোথাও বর্ণবাদের জায়গা নেই। অনেক সতীর্থর সঙ্গে খেলেছি, অনেক বন্ধুর সংস্পর্শে এসেছি। একটি বিষয় বলতে চাই, কখনো কখনো আপনাকে হার মেনে নিতে হবে, আপনাকে শিখতে হবে কীভাবে হারতে হয়।’

ঢাকা/ইয়াসিন

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়