ঢাকা, রবিবার, ২২ চৈত্র ১৪২৬, ০৫ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

ইনিংস ব্যবধানে জিতল বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০২-২৫ ৯:৩২:০৭ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০২-২৬ ৮:১৩:০৯ এএম

একমাত্র টেস্টে জিম্বাবুয়েকে ইনিংস ও ১০৬ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। যা বাংলাদেশের ১৪তম টেস্ট জয়। আর দ্বিতীয় ইনিংস ব্যবধানে জয়। 

মিরপুর শের-ই-বাংলায় জিম্বাবুয়ে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ক্রেইগ আরভিনের সেঞ্চুরিতে (১০৭)  ২৬৫ রান সংগ্রহ করে। জবাবে মুশফিকুর রহিমের ডাবল (২০৩) ও মুমিনুল হকের সেঞ্চুরিতে (১০২) ভর করে বাংলাদেশ ৬ উইকেট হারিয়ে ৫৬০ রান তুলে ইনিংস ছেড়ে দেয়।

২৯৫ রানে পিছিয়ে থেকে গতকাল সোমবার শেষ বিকেলে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে জিম্বাবুয়ে। নাঈম হাসানের বোলিং তোপে ৯ রান তুলতেই হারিয়ে বসে ২ উইকেট। সেখান থেকে আজ মঙ্গলবার আবার ব্যাট করতে নামে শেভরনরা। প্রথম সেশনে তারা ৩ উইকেট হারায়। আর দ্বিতীয় সেশন শেষ হওয়ার আগেই বাকি ৫টি উইকেট হারিয়ে ইনিংস ব্যবধানে হার মানে।

বল হাতে ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বারের মতো ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়েছেন নাঈম হাসান (২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নিয়েছিলেন প্রথম)। দুই ইনিংসে তিনি নিয়েছেন ৯ উইকেট। তাইজুল নিয়েছেন ৪টি। আগের ইনিংসে নিয়েছিলেন ২ উইকেট।

 

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

জিম্বাবুয়ে : ২৬৫/১০ ও ১৮৯/১০ (৫৭.৩ ওভারে)

বাংলাদেশ : ৫৬০/৬ ডিক্লে.।

ফল :  বাংলাদেশ ইনিংস ও ১০৬ রানে জয়ী।

ম্যাচসেরা : মুশফিকুর রহিম।

 

তাইজুল ফেরালেন টিসুমাকে, ৪৫২ দিন পর জিতল বাংলাদেশ

৫৮তম ওভারে তাইজুলের করা তৃতীয় বলটি চার্লটন টিসুমার পায়ে আঘাত হানে। জোরালো আবেদন সাড়া দেয় আম্পায়ার। রিভিউ নেন টিসুমা। তবে রিভিউ নিয়েও বাঁচতে পারেননি। আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত বহাল থাকে। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে ২৬ বল খেলে ৩ রান করে ফিরেন টিসুমা। তাতে তাইজুল পায় চতুর্থ উইকেট। আর ৪৫৩ দিন পর বাংলাদেশ পায় টেস্ট জয়। 

নাঈমের পাঁচে জয়ের দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ

২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে পেয়েছিলেন ক্যারিয়ারের প্রথম পাঁচ উইকেট। দুই বছর পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠে পেলেন দ্বিতীয় পাঁচ উইকেটের দেখা। তাতে জয়ের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গেছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ আর ১টি উইকেট নিতে পারলেই ইনিংস ব্যবধানে জয় পাবে। নাঈমের বলে মিড অফে তামিম ইকবালের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন তিমিসেন মারুমা। ৪১টি রান করেছেন তিনি।

নাঈমের চতুর্থ শিকার এনদোভু

নাঈম হাসান ও তাইজুল ইসলামে রীতিমতো দিশেহারা জিম্বাবুয়ে। এই দুই স্পিনার তুলে নিয়েছেন ৭ উইকেট। একটি এসেছে রান আউটের খাত থেকে। নাঈমের চতুর্থ শিকারে পরিণত হয়ে সাজঘরে ফিরেছেন আইন্সলে এনদোভু। ২ বল খেলে ৪ রান করে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন তিনি।

তাইজুলের তৃতীয় শিকার চাকাবা

তাইজুলের তৃতীয় শিকারে পরিণত হয়েছেন রেগিস চাকাবা। তার বলে মিড অনে তামিম ইকবালের হাতে ধরা পড়েন উইকেটরক্ষক এই ব্যাটসম্যান। ৪০ বল খেলে ২ চারে ১৮ রান করে যান তিনি। তার উইকেট পতনের মধ্য দিয়ে সপ্তম উইকেট হারাল জিম্বাবুয়ে। ইনিংসে ব্যবধানে হার এড়াতে তাদের এখনো প্রয়োজন ১৩০ রান। জিততে বাংলাদেশের প্রয়োজন ৩ উইকেট।

রাজাকে ফিরিয়ে জয় দেখছে বাংলাদেশ

মধ্যাহ্ন বিরতির পর পরই সিকান্দার রাজাকে ফিরিয়েছেন তাইজুল ইসলাম। তার বলে পুল শট খেলতে চেয়েছিলেন রাজা। মুশফিকের মাথার উপর দিয়ে পাঠিয়ে দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু মুশফিককে ফাঁকি দিতে পারেননি। মিডউইকেটে মুশফিকের তালুবন্দি হন ৭১ বলে ৩৭ রান করে।

প্রথম সেশনেই জিম্বাবুয়েকে কাঁপিয়ে দিল বাংলাদেশ

২ উইকেট হারিয়ে ৯ রান নিয়ে চতুর্থ দিন শুরু করে জিম্বাবুয়ে। প্রথম সেশনে তারা আরো তিনটি উইকেট হারিয়েছে। ৫ উইকেট হারিয়ে ১১৪ রান তুলে মধ্যাহ্ন বিরতিতে গিয়েছে। ইনিংস ব্যবধানে হার এড়াতে এখনো ১৮১ রান প্রয়োজন শেভরনদের। ক্রিজে আছেন সিকান্দার রাজা (৩৩) ও তিমিসেন মারুমা (৩)। আউট হয়েছেন কেভিন কাসুজা (১০), ব্রেন্ডান টেলর (১৭) ও ক্রেইগ আরভিন (৪৩)। দিনের শুরুতেই তাইজুল ফেরান কাসুজাকে। নাঈম হাসান ফেরান টেলরকে। আর তাইজুলের বলে মুমিনুলের ডিরেক্ট থ্রোতে রান আউট হয়ে ফিরেন আরভিন।

আরভিন-রাজার প্রতিরোধ ভাঙল রান আউটে

৪৪ রানেই ৪ উইকেট হারানোর পর প্রতিরোধ গড়েন ক্রেইগ আরভিন ও সিকান্দার রাজা। ১৩.১ ওভারে তারা গড়েন ৬০ রানের জুটি। তাতে দলীয় সংগ্রহ শতক ছাড়ায়। এরপর অবশ্য রান আউটে কাটা পড়েন আরভিন। মুমিনুলের ডিরেক্ট থ্রো পপিং ক্রিজে আরভিন পৌঁছানোর আগেই স্ট্যাম্পে আঘাত করে। ৪৯ বল খেলে ৬ চার ও ১ ছক্কায় ৪৩ রান করে যান প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান। 

নাঈমের তৃতীয় শিকার টেলর

গতকাল দুই উইকেট নিয়েছিলেন। আজ সোমবার প্রথম সেশনেই দেখা পেয়েছেন তৃতীয় উইকেটের। থিতু হওয়া অভিজ্ঞ ব্রেন্ডান টেলরকে ফিরিয়েছেন তিনি দলীয় ৪৪ রানের মাথায়। টেলর ডিপ মিডউইকেট দিয়ে খেলতে চেয়েছিলেন। কিন্তু যেভাবে খেলতে চেয়েছিলেন সেভাবে হয়নি। বল চলে যায় ডিপ ব্যাকওয়ার্ড স্কয়ারে, সেখানে বলটি তালুবন্দি করেন তাইজুল ইসলাম। ৪৭ বল খেলে ১ চার ও ১ ছক্কায় ১৭ রান করে যান তিনি।

তাইজুল ফেরালেন কাসুজাকে

দিনের শুরুতেই বাংলাদেশকে সাফল্য এনে দিয়েছেন তাইজুল ইসলাম। একাদশ ওভারে তার করা চতুর্থ বলটি বুঝে উঠতে পারেননি কেভিন কাসুজা। তার ব্যাট ছোঁয়া বল দ্বিতীয় স্লিপে মোহাম্মদ মিথুনের তালুবন্দি হয়। ৩৪ বল খেলে ১০ রান করে যান কাসুজা।

 

ঢাকা/আমিনুল