RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১৯ ১৪২৭ ||  ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২

নওগাঁয় হলুদ-সাদা প্রজাপতি কতটা ক্ষতিকর?

জাহিদ সাদেক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৫২, ২২ এপ্রিল ২০২০   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
নওগাঁয় হলুদ-সাদা প্রজাপতি কতটা ক্ষতিকর?

রাইজিংবিডি’র খবরে প্রকাশ, চলতি সপ্তাহের গত তিনদিন ধরে নওগাঁর ধামইরহাট সীমান্ত এলাকার খড়মপুর গ্রামে ভারত থেকে দল বেঁধে উড়ে আসছে এক ধরনের পতঙ্গ। স্থানীয় কৃষক ভাবছেন পঙ্গপাল। ফলে দুশ্চিন্তায় কপালে ভাঁজ পড়েছে তাদের।

তবে স্থানীয়ভাবে পরীক্ষা করে দেখা যায় সেগুলো পঙ্গপাল নয়, এক ধরনের প্রজাপতি। তবে সাদা ও হলুদে মেশানো এমন রঙের প্রজাপতি আগে কখনো দেখা যায়নি ওই এলাকায়। রাইজিংবিডি’র প্রতিবেদন অনুযায়ী একজন গ্রামবাসী বলেন, রোববার বিকেলে ফার্সিপাড়া গ্রামের কাছে কিছু লোককে আকাশের দিকে অবাক হয়ে তাকিয়ে থাকতে দেখি। ঝাঁক বেঁধে অসংখ্য পতঙ্গ উড়ে আসছে। সেগুলো দলবদ্ধভাবে ফার্সিপাড়া থেকে খড়মপুর বর্ডার পর্যন্ত প্রায় তিন কিলোমিটার রাস্তাজুড়ে উড়ে যাচ্ছিল। এ দৃশ্য দেখে অনেকে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

বিষয়টি প্রসঙ্গে ধামইরহাট উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার মো. আসাদুজ্জামান বলেন, এগুলো ‘লিটল ইয়ালো বাটারফ্লাই’। এরা লেপিডকটোরা বর্গের পাইরিডি পরিবারের সদস্য। ভয় পাওয়ার কিছু নেই।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ জানান, এগুলো  পরিণত বয়সের প্রজাপতি। এরা ‘স্ট্র’-এর মতো নলাকার শোষক দিয়ে ফুলের মিষ্টি রস বা পঁচনশীল ফলের রস সংগ্রহ করে। অন্যদিকে পঙ্গপাল হলো ঘাসফড়িং দলভূক্ত এক বা একাধিক প্রজাতি। পরিণত বয়সে পঙ্গপাল ঘাসের পাতা কিংবা দানাদার ফসল যেমন ধান, গম, ভুট্টা প্রভৃতির কঁচি কাণ্ড ও পাতা খায়। কখনো আমিষের জন্য এরা মৃত প্রাণির দেহও খেতে পারে।

অভয় দিয়ে তিনি বলেন, প্রজাপতি সাধারণত ফসলের ক্ষতি করে না। তবে এরা লার্ভা বা শুককীট অবস্থায় গাছের পাতা খেয়ে ফসলের ক্ষতি করতে পারে। সে হিসেবে এই প্রজাপতিগুলোর ফসলের ক্ষতি করার স্বাভাবিক কারণ নেই।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আব্দুল আলীম বলেন, বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত পঙ্গপালের কোনো ইতিহাস নেই। যে পতঙ্গের কথা বলা হচ্ছে, এগুলো মথ বা প্রজাপতি দুই-ই হতে পারে। যদি এরা কোনো গাছে বসার সময় দুই ডানা দুই পাশে ছড়িয়ে দিয়ে বসে তবে এরা প্রজাপতি। দুই ডানা একদিকে দিয়ে বসলে এরা মথ। এছাড়া এরা দিনের বেলা উড়ে বেড়ালে প্রজাপতি, রাতে উড়লে মথ।

তিনি প্রজাপতির দল বেঁধে ভারত থেকে বাংলাদেশে আসার কারণ হিসেবে বলেন, হয়তো ভারতে এদের আশ্রয় বা খাদ্যের অভাব হয়েছে। এজন্য আশ্রয় ও খাদ্যের খোঁজে বাংলাদেশে এসেছে কিন্তু বেশিদিন থাকবে না।




ঢাকা/তারা

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়