Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৩ এপ্রিল ২০২১ ||  চৈত্র ৩০ ১৪২৭ ||  ২৮ শা'বান ১৪৪২

পুলিশ বক্সে বিস্ফোরণে সার্জেন্টসহ আহত ৫

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৫২, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
পুলিশ বক্সে বিস্ফোরণে সার্জেন্টসহ আহত ৫

চট্টগ্রাম মহানগরীর পাঁচলাইশ থানাধীন দুই নম্বর গেইট এলাকায় প্রধান সড়কের পাশে ট্রাফিক পুলিশ বক্সে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে একজন ট্রাফিক সার্জেন্টসহ কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার রাত ৯টার দিকে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। তবে কিভাবে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে এবং নাশকতামুলকভাবে কেউ বিস্ফোরক দিয়ে এই বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে কি-না তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

বিস্ফোরনে আহতরা হলো দায়িত্বরত ট্রাফিক সার্জেন্ট মোহাম্মদ আরাফাত, পুলিশের এএসআই আতা উদ্দিন, ঘটনাস্থলে যানবাহনের জন্য অপেক্ষমান থাকা যাত্রী জাহিদ বিন জাহাঙ্গীর ও মো. সুমন এবং অজ্ঞাতনামা ১০/১২ বছর বয়সী এক শিশু।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার আমেনা বেগম বিস্ফোরণের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, কিভাবে এই বিস্ফোরণ ঘটেছে তা এখনো নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

প্রথমে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে বিস্ফোরণ ঘটেছে বলে ধারনা করা হলেও ঘটনাস্থল এবং বিস্ফোরণে ক্ষয়ক্ষতি দেখে কোন বিস্ফোরক থেকে এই বিস্ফোরণ ঘটে থাকতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এটি কোন পরিকল্পিত নাশকতার ঘটনা কি-না তা খতিয়ে দেখতে পুলিশের বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ ইউনিটকে ডাকা হয়েছে।

এদিকে এই বিস্ফোরণের পর পর পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট, গোয়েন্দা পুলিশ, পিবিআইসহ পুলিশের এশাধিক টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং বিস্ফোরণের কারন অনুসন্ধানের চেষ্ঠা করছে।
সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা গেছে বিস্ফোরণে ট্রাফিক বক্সটি রীতিমত উড়ে গেছে। বক্সে সব কাঁচ, ছাউনি, দরজা, আসবাবপত্র ভেঙে টুকরো হয়ে গেছে।

এই ঘটনায় আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


চট্টগ্রাম/রেজাউল/নাসিম 
 

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়

শিরোনাম

Bulletলকডাউন: ১৪-২১ এপ্রিল। যা যা চলবে: ১. বিমান, সমুদ্র, নৌ ও স্থল বন্দর এবং তৎসংশ্লিষ্ট অফিস। ২. পণ্য পরিবহন, উৎপাদন ব্যবস্থা ও জরুরি সেবাদানের ক্ষেত্রে এ আদেশ প্রযোজ্য হবে না ৩. শিল্প-কারখানা ৪. আইনশৃঙ্খলা এবং জরুরি পরিসেবা, যেমন, কৃষি উপকরণ (সার, বীজ, কীটনাশক, কৃষি যন্ত্রপাতি ইত্যাদি), খাদ্যশস্য ও খাদ্যদ্রব্য পরিবহন, ত্রাণ বিতরণ, স্বাস্থ্যসেবা, কোভিড-১৯ টিকা প্রদান, বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস/জ্বালানি, ফায়ার সার্ভিস, বন্দরগুলোর (স্থল, নদী ও সমুদ্রবন্দর) কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট (সরকারি-বেসরকারি), গণমাধ্যম (প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া), বেসরকারি নিরাপত্তা ব্যবস্থা, ডাক সেবাসহ অন্যান্য জরুরি ও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ও সেবার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অফিসসমূহ, তাদের কর্মচারী ও যানবাহন এ নিষেধাজ্ঞার আওতা বর্হিভূত থাকবে। ৫. ওষুধ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয়, চিকিৎসা সেবা, মৃতদেহ দাফন/সৎকার ৬. খাবারের দোকান ও হোটেল-রেস্তোরাঁয় দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা এবং রাত ১২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত কেবল খাদ্য বিক্রয়/সরবরাহ করা যাবে। ৭. কাঁচাবাজার এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সকাল ৯টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে || যা যা বন্ধ থাকবে: ১. সব সরকারি, আধাসরকারি, সায়ত্ত্বশাসিত ও বেসরকারি অফিস, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে ২. সব ধরনের পরিবহন (সড়ক, নৌ, অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট) বন্ধ থাকবে ৩. শপিংমলসহ অন্যান্য দোকান বন্ধ থাকবে