ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ডেঙ্গু জ্বরে ২ জনের মৃত্যু

জে. খান স্বপন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-২২ ১০:৫০:৫৪ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-২৪ ৮:২৩:৪২ এএম
ডেঙ্গু জ্বরে ২ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল : বরিশালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মনির হোসেন (৩৪) নামে এক ডেঙ্গু আক্রান্তের মৃত্য হয়েছে। তিনি বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

মনির হোসেন বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার রুকুনদি গ্রামের শাহজাহান মিয়ার ছেলে। বুধবার গভীর রাতে হাসপাতালে আইসিইউ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, গত ১৮ আগস্ট মনির হোসেন ডেঙ্গু জরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। ২১ আগস্ট সকালে তার শারিরিক অবস্থার অবনতি হলে আইসিইউতে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এ নিয়ে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন ৬ রোগী।

গত ১৬ জুলাই থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে এ হাসপাতালে ১ হাজার ৪৩০ রোগী ভর্তি হন। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরেছেন ১ হাজার ২৬৭ জন। বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১৬৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৯৩ জন, মহিলা ৩৯ ও শিশু ৩১ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ৫৭ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ও বিদায় নিয়েছেন ৪১ জন।

এদিকে বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় রোগী পরিদর্শন শেষে হাসপাতাল পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন জানান, আজকের (বৃহস্পতিবার) মধ্যে প্রায় অর্ধশতাধিক রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে যেতে পারবেন।

তিনি আরো জানান, প্রকৃতপক্ষে বরিশালে এডিস মশার উপদ্রব নেই। শেবাচিম হাসপাতালে যেসব রোগী ভর্তি হয়েছে তারাই সবাই কোন না কোনভাবে ঢাকায় আসা যাওয়া করেছেন। তবে বরিশাল নগরীর বাইরে অন্য জেলার কিছু রোগী পাওয়া যাচ্ছে যারা নিজ এলাকায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন।

পরিচালক বলেন, ‘ঈদে ঢাকা থেকে মানুষ বরিশালে আসে। এ কারণে ঈদের দুয়েকদিন পূর্বে থেকে ঈদ পরবর্তী কয়েকদিন শেবাচিম হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীর চাপ বেশি ছিল। বর্তমানে তা কমতে শুরু করেছে।’

যারা ইতোমধ্যে মারা গেছেন তারা খুবই খারাপ অবস্থা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সাতক্ষীরায় মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু
সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত এক মাদ্রাসা ছাত্র মারা গেছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে খুলনার শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। সাতক্ষীরায় ডেঙ্গু জ্বরে এটি প্রথম মৃত্যু।

মৃত আলমগীর গাজী (১৪) কালীগঞ্জ উপজেলার শ্রীকলা গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে। সে যশোরের একটি কওমিয়া মাদ্রাসায় হাফেজি পড়তো।

তার ভাই সুজন গাজী জানান, গত সোমবার আলমগীর জ্বরে আক্রান্ত হলে তাকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে পরীক্ষায় তার ডেঙ্গু ধরা পড়ে। এরপর চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় আজ সকালে প্রথমে তাকে সাতক্ষীরায় সদর হাসপাতালে আনা হয়। সেখান থেকে চিকিৎসকরা তাকে খুলনায় রেফার করেন। এরপর খুলনার গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শেখ তৈয়েবুর রহমান জানান, ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আলমগীর কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন ছিল। সকালে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে সাতক্ষীরায় রেফার করা হয়।

সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. আবু শাহিন জানান, সাতক্ষীরায় ২৯২ জন ডেঙ্গু রোগীকে শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে বিভিন্ন হাসপাতালে ৫২ জন ভর্তি রয়েছে।

 

রাইজিংবিডি/বরিশাল/২২ আগস্ট ২০১৯/জে. খান স্বপন/শাহীন/সনি/বকুল 

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন