ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বিমান ছিনতাইচেষ্টা: চিত্রনায়িকা সিমলাকে জিজ্ঞাসাবাদ

রেজাউল করিম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৯-১২ ৬:০৫:৫৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৯-১৩ ৩:৪২:২৪ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের উড়োজাহাজ ‘ময়ূরপঙ্খী’ ছিনতাইচেষ্টা মামলায় চিত্রনায়িকা শামসুন নাহার সিমলাকে তিন ঘণ্টার বেশি সময় জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট।

সিমলা মুম্বাই থেকে চট্টগ্রামে ফিরে নগরীর দামপাড়া পুলিশ লাইনে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের কার্যালয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তার মুখোমুখি হন। সিমলা উড়োজাহাজে কমান্ডো অপারেশনে নিহত বিমান ছিনতাইকারী  পলাশ আহমেদের সাবেক স্ত্রী।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর প্রায় দেড়টা পর্যন্ত তদন্ত কর্মকর্তা চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের পরিদর্শক রাজেশ বড়ুয়া তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

বিষযটি নিশ্চিত করে রাজেশ বড়ুয়া জানান, এই মামলায় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে নিহত পলাশের সাবেক স্ত্রী সিমলার নাম আলোচনায় ছিল। ঘটনার সময় তিনি মুম্বাই থাকায় তার সঙ্গে যোগাযোগ করেও জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারেননি। সিমলা বারবার শ্যুটিংয়ের সিডিউলের কথা বলে সময় নিয়েছেন। অবশেষে আজ তিনি অফিসে এসেছেন।

তিনি বলেন, সিমলাকে তদন্তের স্বার্থে যা যা প্রশ্ন করার, তা করা হয়েছে। উনিও পলাশের সঙ্গে সম্পর্কের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সব বলেছেন। তাকে তদন্তের স্বার্থে আবার ডাকা হলে আসার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

আলোচিত এই মামলায় ১৮ জনের সাক্ষ্য নেয়ার পর তদন্তে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে চিত্রনায়িকা সিমলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। তবে জিজ্ঞাসাবাদে নতুন তথ্য পাওয়া যায়নি বলে পুলিশ জানিয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বেরিয়ে উপস্থিত সাংবাদিকদের সিমলা বলেন, পলাশ কেন বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেন, তা তিনিই জানেন।

‘‘আমাদের ডিভোর্স হয়ে গিয়েছিল। বিয়ের পর মনে হয়েছিল ওর মানসিক সমস্যা আছে। তাই তিক্ত হয়ে ডিভোর্স দিই।”

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম হয়ে দুবাইগামী বোয়িং-৭৩৭ উড়োজাহাজ মাঝআকাশে ছিনতাইয়ের চেষ্টা হয়। প্রায় দুই ঘণ্টা টানটান উত্তেজনার পর চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমানবন্দরে কমান্ডো অভিযানে নিহত হন পিস্তলধারী পলাশ।

তার দ্বিতীয় স্ত্রী ছিলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী সামসুর নাহার সিমলা। ওই ঘটনার মাস তিনেক আগে তাদের বিচ্ছেদ হয়।

ঘটনার দিন অভিযান পরিচালনাকারীরা জানিয়েছিলেন, পলাশ দ্বিতীয় স্ত্রীর বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছিলেন। পরে তদন্তে প্রমাণ হয় তার হাতের অস্ত্রটি খেলনা পিস্তল।

ওই ঘটনায় পলাশসহ কয়েকজনকে আসামি করে চট্টগ্রামের পতেঙ্গা থানায় ২৫ ফেব্রুয়ারি মামলা করে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।


রাইজিংবিডি/চট্টগ্রাম/১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯/রেজাউল করিম/বকুল 

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন