Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ২১ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ৭ ১৪২৮ ||  ০৯ জিলক্বদ ১৪৪২

বিশেষজ্ঞদের রিপোর্টের পর খুলবে সিলেটের ৬টি মার্কেট

  নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৫৯, ১১ জুন ২০২১  
বিশেষজ্ঞদের রিপোর্টের পর খুলবে সিলেটের ৬টি মার্কেট

সিলেট নগরে কয়েক দফা ভূমিকম্পের পর ১০ দিনের জন্য বন্ধ রাখা হয় ঝুঁকিপূর্ণ ৬টি মার্কেট। নির্ধারিত দিন শেষ হলেও সহসাই খুলছে না বন্ধ থাকা এসব মার্কেট। 

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) দুটি বিশেষজ্ঞ টিম বৃহস্পতিবার (১০ জুন) বিকেল থেকে এ সব মার্কেটভবনে জরিপ শুরু করেছেন। তাদের পর্যবেক্ষণের পর দেওয়া প্রতিবেদনের ওপর নির্ভর করছে ঝুঁকিতে থাকা এ সব মার্কেটের ভাগ্য। 

বন্ধ থাকা মার্কেটগুলোর মধ্যে রয়েছে, নগরের জিন্দাবাজারের পুস্তক মার্কেটখ্যাত রাজা ম্যানশন, মিতালি ম্যানশন, বন্দরবাজারের মধুবন সুপার মার্কেট, সিটি সুপার মার্কেট, সমবায় ভবন এবং সুরমা পয়েন্টের সুরমা মার্কেট। বিশেষজ্ঞ দুই দল এ সব মার্কেটসহ ঝুঁকিপূর্ণ চিহ্নিত কয়েকটি ভবন পর্যবেক্ষণ করেন।

পর্যবেক্ষণের পর শাবিপ্রবির স্কুল অব অ্যাপ্লাইড সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের ডিন প্রফেসর ড. মোশতাক আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, বন্ধ থাকা ৬টি মার্কেটের গুরুত্ব বিবেচনায় এগুলোতে তারা প্রাথমিক পর্যবেক্ষণ কার্যক্রম শুরু করেছেন। আরও বিভিন্ন বিষয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর ভবনগুলোর সক্ষমতা নিয়ে প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে বলে জানান তিনি। 

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী জানান, সিলেট নগরে ভূমিকম্পের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ ভবন নির্ণয়ে একসঙ্গে কাজ করবে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশন (সিসিক)। এ নিয়ে বুধবার (৯ জুন) বৈঠক হয়েছে। এরপর আজ (বৃহস্পতিবার) থেকে বিশেষজ্ঞরা নগরীর বন্ধ করে দেওয়া ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে সার্ভে (জরিপ) শুরু করেছেন। পর্যায়ক্রমে তারা নগরীর বাকি সব ভবন সার্ভে করবেন। 
 
শাবিপ্রবির কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘সিলেটের সাম্প্রতিক ভূমিকম্প নিয়ে জনমনে কিছুটা আতংক বিরাজ করছে। এ অবস্থায় নগরীর ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের তালিকা তৈরি করতে আমাদের সহযোগিতা চেয়েছে সিসিক। আমাদের সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ (সিইই) ও পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষকরা সরেজমিন জরিপ কাজ শুরু করেছেন।’

সিসিকের প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান জানান, শাবিপ্রবির বিশেষজ্ঞ দল আজ বিকেলে ঝুঁকিপূর্ণ কয়েকটি মার্কেট পরিদর্শন করেছেন। তাদের নির্দেশনা পেলে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে বন্ধ থাকা মার্কেট বা ভবন খুলে দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি। 

গত ২৯ মে চার দফা, ৩০ মে এক দফা এবং ০৭ জুন এক মিনিটের ব্যবধানে দুই দফায় ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠে সিলেট নগর। ৩০ মে ভূমিকম্পের পর নগরের ৬টি মার্কেট, একটি দোকান ও একটি আবাসিক ভবন ১০ দিনের জন্য বন্ধের নির্দেশনা দেয় সিসিক। পাশাপাশি নগরের ২৪টি ভবনকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবেও চিহ্নিত করা হয় তখন। 

সবশেষ গত ০৭ জুন ভূমিকম্পে নগরের রাজা জিসি হাইস্কুলের একটি দ্বিতল ভবনে ফাটল দেখা দেওয়ায় ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর। ঘন ঘন ভূমিকম্পের কারণে টনক নড়ে নগর কর্তৃপক্ষের। ঝুঁকিপূর্ণ ভবন চিহ্নিত করতে শাবিপ্রবির বিশেষজ্ঞদের দিয়ে ভবন জরিপের উদ্যোগ নেওয়া হয়। এ নিয়ে বুধবার (০৯ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ে বৈঠক হয়েছে। এরপর বিশেষজ্ঞরা ভবন জরিপের কাজ শুরু করেছেন। 

নোমান/বকুল 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়