ঢাকা, বুধবার, ২৮ কার্তিক ১৪২৬, ১৩ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

যুবলীগের বয়সসীমা ৫৫

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-২০ ৯:৩৯:৪১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-২২ ৮:৩২:১৭ এএম

৪১ বছর পর আবারো যুবলীগের রাজনীতি করার ক্ষেত্রে বয়সের সীমারেখা নির্ধারণ করা হয়েছে। সর্বোচ্চ ৫৫ বছর বয়স পর্যন্ত যুবলীগ করা যাবে। এর বেশি বয়সের কেউ যুবলীগে সম্পৃক্ত হতে পারবেন না।

রোববার রাতে যুবলীগের সপ্তম কংগ্রেস উপলক্ষ্যে গণভবনে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে সংগঠনটির শীর্ষ নেতাদের বৈঠকে বয়সের এই সীমারেখা রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বৈঠকের পর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গণমাধ্যমকর্মীদের এই তথ্য জানিয়েছেন।

ক্যাসিনো কর্মকাণ্ডে একে একে যুবলীগের শীর্ষ নেতাদের নাম উঠে আসার পর সংগঠনের বয়সের সীমারেখার বিষয়টি আলোচনায় উঠে আসে। অবশেষে যুবলীগ করার ক্ষেত্রে বয়সের সীমানা দেয়া হলো।

১৯৭৪ সালের প্রথম জাতীয় কংগ্রেসে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক শেখ ফজলুল হক মনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ওই সময় তার বয়স ছিল মাত্র ৩২ বছর। তখন যুবলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ৪০ বছরের একটি বয়সসীমার বিধান ছিল। তবে ১৯৭৮ সালে অনুষ্ঠিত সংগঠনটির দ্বিতীয় জাতীয় কংগ্রেসে ওই বিধানটি বিলুপ্ত করা হয়।

এরপর অনুষ্ঠিত কংগ্রেসে ৩৮ বছর বয়সী আমির হোসেন আমু চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ১৯৮৬ সালের তৃতীয় কংগ্রেসে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন মোস্তফা মহসীন মন্টু। ওই সময় তার বয়স ছিল ৩৭ বছর। এর পর ১৯৯৩ সালে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেন নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন। ১৯৯৬ সালের চতুর্থ জাতীয় কংগ্রেসে ৪৭ বছর বয়সে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন শেখ ফজলুল করিম সেলিম।

২০০৩ সালের পঞ্চম জাতীয় কংগ্রেসে ৪৯ বছর বয়সে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন জাহাঙ্গীর কবির নানক। এ কমিটি ২০০৯ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করে। ২০০৮ থেকে ২০১২ পর্যন্ত ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন যুবলীগের তৎকালীণ প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী।

সর্বশেষ ২০১২ সালে অনুষ্ঠিত হয় সংগঠনটির ষষ্ঠ জাতীয় কংগ্রেস। এ কংগ্রেসে ৬৪ বছর বয়সে ভারপ্রাপ্ত থেকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী। ওমর ফারুক শেখ সেলিমের বোনের জামাই।


ঢাকা/পারভেজ/সনি/নাসিম

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন