ঢাকা     রোববার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ৫ ১৪২৭ ||  ০১ সফর ১৪৪২

লাল মরিচে লাল বগুড়ার চাষিরা

একে আজাদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৩:৩৫, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
লাল মরিচে লাল বগুড়ার চাষিরা

মরিচ শুকাচ্ছেন এক নারী

বগুড়া প্রতিনিধি : আবহাওয়া অনুকূল থাকায় বগুড়ায় এবার মরিচের ফলন ভাল হয়েছে। আর ভাল দাম পেয়ে খুশি এ অঞ্চলেরা চাষিরা। 

এ বছর পূর্ব বগুড়া গাবতলী, সোনাতলা, সারিয়াকান্দি এবং ধুনটে মরিচ চাষ বেড়েছে। আর ভাল  ফলন হয়েছে সোনাতলা, সারিয়াকান্দি ও ধুনটে যমুনা নদীর চরাঞ্চলে। এ  সব মরিচ শুকিয়ে বিক্রি করে ভাল দাম পাচ্ছেন চাষিরা।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, বগুড়ায় এবার মরিচ চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ৭ হাজার ৫৮০ হেক্টর। তবে চাষ হয়েছে ৭ হাজার হেক্টরে। ফলনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল প্রতি হেক্টরে ১ দশমিক ৫৮ মেট্রিকটন। আর ফলন হয়েছে প্রতি হেক্টরে ২ মেট্রিকটন। বগুড়া অন্যতম মরিচ উৎপাদনকারী এলাকা হিসেবে পরিচিত যমুনা চরাঞ্চলে এবার মরিচের ভাল ফলন হয়েছে।

সারিয়াকান্দি উপজেলার চর চালুয়াবাড়ির বাসিন্দা আবু সায়েম মণ্ডল জানান, গত বছর প্রায় দুই বিঘা জমিতে মরিচ উৎপাদন হয়েছিল প্রায় ১৮ মণ। এবার একই পরিমাণ জমিতে প্রায় ২০ মণ মরিচ উৎপাদন হবে।

গাবতলী উপজেলার জালশুকা গ্রামের ফজলুল করিম এ বছর ১ হেক্টর জমিতে মরিচ চাষ করেছেন। তার ধারণা উৎপাদন হবে প্রায় আড়াই মেট্রিকটন।

ফজলুল করিম জানান, গত বছর তিনি প্রতি কেজি শুকনা মরিচ বিক্রি করেছেন ১০৫ টাকায়। আর এবার এখনই মরিচের কেজি ১১৮ টাকা।

বগুড়া কৃষি অধিদপ্তরের উপপরিচালক প্রতুল চন্দ্র সরকার রাইজিংবিডিকে জানান, অনুকূল আবহাওয়ায় বগুড়ার সব এলাকাতেই মরিচের উৎপাদন বেড়েছে। আর এ অঞ্চলের মরিচের মানও অনেক ভাল। এবার মরিচ চাষিরা ভাল দাম  পাচ্ছেন।


রাইজিংবিডি/বগুড়া/২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭/একে আজাদ/উজ্জল

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়