Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ১৩ জুন ২০২১ ||  জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪২৮ ||  ০১ জিলক্বদ ১৪৪২

৯৯৯ ও স্কুলছাত্রীর ন্যায়বিচার প্রাপ্তি

শাহরিয়ার সিফাত || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৯:৫১, ২৪ এপ্রিল ২০২০   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
৯৯৯ ও স্কুলছাত্রীর ন্যায়বিচার প্রাপ্তি

ছোট ভাই অসুস্থ। তাকে নিয়ে ক'দিন ধরে হাসপাতালে আছেন মা। বাড়িতে আর কোনো লোক না থাকায় টাঙ্গাইলের ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী নিরাপদ আশ্রয় হিসেবে বেছে নিয়েছিলো নানার বাড়ি। কিন্তু বিধিবাম!

যেখানে বাঘের ভয়, সেখানেই সন্ধ্যা হয় প্রবাদের মতো নিরাপদ আশ্রয় সেই নানার বাড়িতেই ওই কিশোরীকে পেতে হয় কুপ্রস্তাব। আর সেই প্রস্তাব প্রদানকারী অন্য কেউ নন, তার আপন মামা রাজিবুল (২৮)।

নানার বাড়িতে থাকার সুবাদে মামা রাজিবুল ওই কিশোরীকে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতো, দিতো নানান কুপ্রস্তাব। আপন মামার কাছ থেকে এমন কুপ্রস্তাবে অতিষ্ঠ হয়ে ওঠে ওই কিশোরী।

বাধ্য হয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে তার মায়ের কাছে মামার বিরুদ্ধে অভিযোগ করে সে। আপন ভাইয়ের দ্বারা নিজ সন্তানের এমন সম্মানহানি মেনে নেননি ওই মা। হাসপাতালে বসেই তিনি ফোন করেন জাতীয় জরুরী সেবা নম্বর ৯৯৯-এ। সেখান থেকে টাঙ্গাইল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আতিকুল ইসলামকে সংযুক্ত করা হয়।

ভুক্তভোগীর মুখে ঘটনা শুনে ওই যুবকের বাড়ি গিয়ে হাজির হন ইউএনও। ঘটনার সত্যতা পেয়ে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ১ বছরের কারাদণ্ড দেন অভিযুক্ত রাজিবুলকে।

এ ব্যাপারে ইউএনও আতিকুল ইসলাম বলেন, ওই কিশোরীর মা ৯৯৯-এ অভিযোগ করার পর সেখান থেকে আমাকে জানানো হয়। পরে সদর থানা পুলিশ সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে রাজিবুলকে এক বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

রাজিবুল বছরখানেক আগে কাতার থেকে দেশে এসেছে। তার দুজন স্ত্রীও রয়েছে। পরে সন্ধ্যায় তাকে টাঙ্গাইল জেলা কারাগারে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।


ঢাকা/তারা

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়