ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭ ||  ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

কঠিন পরিস্থিতি উতরে সেঞ্চুরির আনন্দ মুশফিকের

287 || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:২২, ১৫ মার্চ ২০২০  
কঠিন পরিস্থিতি উতরে সেঞ্চুরির আনন্দ মুশফিকের

‘ঢাকা লিগে তিন বছর পর সেঞ্চুরির আনন্দ কতোটুকু?’ গণমাধ্যমকর্মীর প্রশ্ন শুনে মুশফিকের তাৎক্ষণিক উত্তর, ‘তিন বছর না তো, দুই বছর! গত বছর তো খেলিনি…।’

মুশফিক গত বছর ঘরোয়া ক্রিকেটের সবথেকে জৌলুসপূর্ণ আসরে খেলেননি ঠিক-ই, কিন্তু সময়ের হিসেবে তো তিন বছর পরই পেলেন সেঞ্চুরি। সবশেষ এসেছিল ২০১৭ সালে।

পারটেক্সের বিপক্ষে আজ আবাহনীর জার্সিতে পেয়েছেন সেঞ্চুরি। ১২৫ রানের ঝকঝকে ইনিংস উপহার দিয়েছেন। তাতে জিতেছে তার দল আবাহনী। নিজের সেঞ্চুরি, দলের জয় ও ম্যাচসেরার পুরস্কার; আবাহনী লিমিটেডের হয়ে অভিষেকে মুশফিকুর রহিমের প্রাপ্তির খাতা টইটুম্বুর।

তাইতো দলপতির মুখে চড়া হাসি, ‘আলহামদুলিল্লাহ ভালো লাগছে। বাংলাদেশে আবাহনী শীর্ষ দল। শুরুটা ভালো হওয়ায় ভালো হয়েছে। প্রথম ম্যাচ ছিল, সবাই একটু নার্ভাস ছিল, এটাই স্বাভাবিক। চ্যাম্পিয়ন দলের ওপর সব সময় চাপ থাকে। আবাহনী জেতার জন্য খেলে। দিন শেষে দল জিতেছে এটাই আনন্দের।’

ধ্বংসস্তুপ থেকে দলকে টেনে তুলে সেঞ্চুরি পেয়েছেন মুশফিক। তৃতীয় ওভারে নেমেছিলেন মাঠে। প্রথম রান পেতে অপেক্ষা করেন ২৪ বল। প্রথম বাউন্ডারি হাঁকান ৫২তম বলে। উইকেটে থিতু হতে সময় নিয়েছিলেন। কিন্তু কঠিন সময় পার করার পর তাকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

৭৫ বলে স্পর্শ করেন ফিফটি। সেঞ্চুরির পথে বাকি পঞ্চাশ করেন ৩৬ বলে। স্কুপ, রিভার্স সুইপ, সুইপ প্রত্যেকটি শট খেলেছেন দারুণ দক্ষতায়। পেসারদের বলে ড্রাইভ, কাভার ড্রাইভসহ উইকেটের সামনে শট খেলেছেন সিদ্ধহস্তে। কঠিন পরিস্থিতি উতরে সেঞ্চুরির আনন্দে ভাসছেন মুশফিক।

‘সব সময় এই চাপগুলো আমি উপভোগ করি। এই জিনিসগুলো উপভোগ করলে খেলোয়াড় হিসেবে আরও দুই ধাপ এগিয়ে যাওয়া যায়। আমি সব সময় এটা উপভোগ করি। শুধু আবাহনীর জন্যই না, যে পর্যায়েই খেলি ঘরোয়া বা আন্তর্জাতিক ম্যাচ…আমার দলের জয়ে আমার অবদান যেন বেশি থাকে এটাই মাথায় থাকে। ’

নিজের ব্যাটিং নিয়ে উচ্ছ্বসিত মুশফিক। পাশাপাশি প্রশংসা করেছেন দুই সতীর্থ মোসাদ্দেক ও সাইফউদ্দিনের। মুশফিককে ষষ্ঠ উইকেটে সঙ্গ দেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ১৬০ রানের জুটি গড়েন দুজন। ধানমন্ডি পাড়ার দলটির হয়ে শেষটা রাঙিয়েছেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ১৫ বলে ৫ ছক্কায় ৩৯ রান করেন সাইফউদ্দিন। 

‘আমার কাজটা সহজ করে দিয়েছে মোসাদ্দেক। পরবর্তীতে সাইফউদ্দিনও। জিতলে সব কিছু ঠিক হয়ে যায়। আমাদের এটা প্রথম ম্যাচ ছিল। সামনে আরও অনেক বড় বড় ম্যাচ আছে। ’


ঢাকা/ইয়াসিন

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়