ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭ ||  ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

ঢাকা লিগ খেলতে চান ক্রিকেটাররা

287 || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:১৩, ১৭ মার্চ ২০২০  
ঢাকা লিগ খেলতে চান ক্রিকেটাররা

ক্রিকেটাররা চান মাঠে ফিরতে। খেলতে চান ঢাকা লিগ।

করোনার প্রভাবে স্থগিত হয়েছে বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলা। ১৮ ও ১৯ মার্চ লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সরকারের নির্দেশে লিগের খেলা আপাতত বন্ধ রেখেছে বিসিবি।

কিন্তু ক্রিকেটাররা চান লিগ চালু রাখতে। ঢাকার লিগের ঐতিহ্যবাহী দল আবাহনীর কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) জানান, তার দলের ক্রিকেটাররা মাঠে ফিরতে মুখিয়ে আছেন।

‘বুধবার আমাদের খেলা ছিল। সেটা হবে না। আমরা খেলতে চাই। ছেলেদের সঙ্গে আমি কথা বলেছি। সবাই খেলতে চায়। জানি যে, করোনার একটা বিপদ আছে। এখানে একাডেমিতে আমরা যতটুকু নিরাপদ, বাইরে ছেলেরা যখন যাবে ওরা ততো নিরাপদ না।’

‘আমি ছেলেদের এখান থেকে ছাড়তে চাই না। যখনই ওদের ছাড়ব ওরা ওদের দেশের বাড়িতে যেতে চাইবে। গণপরিবহন ব্যবহার করবে। সেটা কতোটা সুরক্ষিত? কেউ যদি আক্রান্ত হয়, তাহলে তো খারাপই হবে ওদের জন্য। আমরা চাই ওদের এখানে রাখতে। আমরা অনেক নিরাপদ আছি এখন পর্যন্ত। আমরা তো মাঠের মানুষ, আমরা চাই খেলা হোক। আশা করি সব ঠিক হয়ে যাবে। আর করোনাভাইরাসের যে ভয়াবহতা চলছে, সেটা থেকে সবাই মুক্তি পাবে, এটাই আশা করছি। সব স্বাভাবিক হয়ে আসবে, খেলা মাঠে ফিরবে এটাই আশা করি।’

‘তারপরেও এটা যেহেতু সরকারের সিদ্ধান্ত, এটাকে প্রাধান্য দিতেই হবে। যত তাড়াতাড়ি মাঠে যাওয়া যায় ভালো হবে। ছেলেরা খেলতে চায়। দেখা যাক, বোর্ড থেকে কী সিদ্ধান্ত আসে।’– বলেছেন খালেদ মাহমুদ।

প্রিমিয়ার লিগ বন্ধ হলে পরবর্তীতে কী কী সমস্যা হতে পারে সেই ধারণাও দিয়েছেন খালেদ মাহমুদ, ‘যদি লিগ এখন বন্ধ হয়ে যায় কবে শুরু হবে তা নিশ্চিত নয় কেউ। সামনে রোজার মাস। তখন ঠিকমতো শেষ করতে পারবে কিনা এই ব্যাপার নিয়েও ভাবতে হবে। এটা খেলার মৌসুম। পরে তো বৃষ্টি হবে। কষ্ট হবে খেলতে। জাতীয় দলের ক্রিকেটারদেরও পাওয়া যাবে না। তাই সব কিছু মিলিয়ে ভাবতে হবে।’

তবে লিগ বন্ধ থাকার সময়টায় বিসিবির সকল সুযোগ-সুবিধা ব্যবহার করতে পারবেন ক্রিকেটাররা। করতে পারবেন ঐচ্ছিক অনুশীলনও। সৌম্য সরকার নিজ ইচ্ছায় মঙ্গলবার এসেছিলেন মাঠে। করেছেন জিম ও রানিং।

মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার সময় গণমাধ্যমে বলেছেন, ‘খেলা স্থগিত হওয়া অবশ্যই সবার ভালোর জন্য। আশা করি দেশের মানুষ সুস্থ থাকবেন, আমরাও সুস্থ থাকি। সুস্থ থাকাটাই মুখ্য। সুস্থ থাকলে সামনে অনেক খেলা পাব। এর মধ্যে ফিটনেসের কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকব। আমরা খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে থাকতে চাই, ফিরতে চাই। ব্যক্তিগতভাবে আমরা ফিটনেসের দিকে মনোযোগী এবং অনুশীলনও করবো ব্যক্তিগতভাবে। যখনই বলবে যে খেলা শুরু হবে তখনই আবার মানসিকতাটা খেলার মধ্যে নিয়ে যাবো।’

 

ঢাকা/ইয়াসিন/আমিনুল

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়