ঢাকা     মঙ্গলবার   ১১ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৭ ১৪২৭ ||  ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

পাঠাওয়ের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফাহিমের মরদেহ উদ্ধার

নিউজ ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২৩:৫২, ১৪ জুলাই ২০২০  
পাঠাওয়ের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফাহিমের মরদেহ উদ্ধার

বাংলাদেশের জনপ্রিয় রাইড শেয়ারিং অ্যাপ পাঠাওয়ের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফাহিম সালেহ’র মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

১৪ জুলাই (মঙ্গলবার) বেলা সাড়ে তিনটার দিকে ম্যানহাটনের ইস্ট হাউস্টন স্ট্রিট ও সাফোক স্ট্রিট–সংলগ্ন ফাহিম সালেহর অ্যাপার্টমেন্ট থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় দৈনিক নিউইয়র্ক ডেইলি নিউজের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, ফাহিমের খোঁজ না পেয়ে তার বোন হেল্পলাইন ৯১১-এ ফোন করলে পুলিশ ম্যানহাটনের অ্যাপার্টমেন্টে গিয়ে ফাহিমের খণ্ডিত মরদেহ পায়। মরদেহের পাশে একটি বৈদ্যুতিক করাতও পাওয়া গেছে।

নিউইয়র্ক পুলিশের কর্মকর্তা সার্জেন্ট কার্লো নিভস জানান, ওই অ্যাপার্টমেন্ট থেকেই তার খণ্ডবিখণ্ড অঙ্গপ্রত্যঙ্গ উদ্ধার করা হয়েছে। 

পুলিশ বলছে, মরহেদের ফরেনসিক প্রতিবেদন ও ফিঙ্গারপ্রিন্টের জন্য অপেক্ষা করছেন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, গত বছর সাড়ে ২২ লাখ ডলারে ম্যানহাটানের লোয়্যার ইস্ট সাইডে সাফোক স্ট্রিটের ইস্ট হিউস্টন স্ট্রিটের ওপর কন্ডোটি (বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্ট) কিনেন।  কয়েকদিন আগে তিনি নিজের অ্যাপার্টমেন্টে ওঠেন।

ফাহিম সালেহর জন্ম ১৯৮৬ সালে। তার বাবা সালেহ উদ্দিন চট্টগ্রামের, আর মা নোয়াখালীর মানুষ।  ফাহিম পড়াশোনা করেছেন আমেরিকার বেন্টলি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনফরমেশন সিস্টেম নিয়ে।  তিনি রাইড শেয়ারিং অ্যাপ পাঠাওয়ের অন্যতম উদ্যোক্তা। ২০১৪ সালে নিউইয়র্ক থেকে ঢাকায় গিয়ে পাঠাও চালু করে নতুন প্রজন্মের উদ্যোক্তা হিসেবে খ্যাতি লাভ করেন তিনি।  ফাহিম নাইজেরিয়া ও কলম্বিয়ায় এমন আরও দুটি রাইড শেয়ারিং অ্যাপ কোম্পানির মালিক ছিলেন।  

 

ঢাকা/সাইফ

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়